বিয়োগান্ত নাটক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বিয়োগান্ত নাটক মানুষের দুঃখ কষ্টের উপর ভিত্তি করে নাটকের একটি রূপ যা শ্রোতাদের মধ্যে একটি সঙ্গতিপূর্ণ প্রহসন বা আনন্দের সৃষ্টি করে।[১][২] যদিও বিভিন্ন সংস্কৃতি আপার্তবৈপরীত ধারার বিভিন্ন রূপ অভিব্যক্ত করেছে, বিয়োগান্ত নাটক শব্দটি মূলত পাশ্চাত্য সভ্যতার আত্ম সংজ্ঞায় ঐতিহাসিকভাবে একটি অনন্য এবং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে যার দ্বারা নাটকের একটি নির্দিষ্ট ঐতিহ্যকে বোঝায়।.[১][৩]

বিশ্ব মঞ্চনাটকে অনুরূপ নাটকীয় রূপ[সম্পাদনা]

প্রাচীন ভারতীয় নাটক[সম্পাদনা]

ভরত মুনি নাট্যশাস্ত্র (Sanskrit: Nātyaśāstra, नाट्य शास्त्र, ২০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দ - ২০০ খ্রিস্টাব্দ)[৪] নামক নাটকীয় তত্ত্বে প্রাচীন ভারতের সংস্কৃত নাটকের দর্শকের মানসিক প্রতিক্রিয়ার বিভিন্ন ভাব (যেমন করুণা, রাগ, ঘৃণা এবং ভয়) চিহ্নিত করেন। পাঠ্যসূত্রটি সঙ্গীতের প্রকার বা জাতিরও ধারনা দেয় যেগুলি আধুনিক স্বর গঠন- সংক্রান্ত ধ্যানধারণার মূল এবং রাগ নামে পরিচিত। আবেগ সঞ্চারে তাদের ভূমিকার গুরুত্ব বিশ্লেষিত হয়; যেমন সুর রচনায় গান্ধার বিষাদ রস উৎপন্ন করে সেখানে ঋষভের ব্যাবহার বীর রস উৎপন্ন করে। জাতিগুলি ডেটিলাম পাঠ্যাংশে আরও বিস্তারিতভাবে বর্ণন করা হয় যেটি তৎকালীন গ্রন্থ হিসাবে একই সময়ে রচনা করা হয়। সুপ্রসিদ্ধ প্রাচীন ভারতীয় মহাকাব্য, মহাভারত, কিছু ভাবে বিয়োগান্তক নাটক সম্পর্কিতও হতে পারে। হারমান ওল্ডবার্গের মতে, মূল মহাকাব্যটি কোথাও এক অপরিমেয় " বিয়োগাত্মক প্রভাব" বহন করে।[৫] সংস্কৃত নাটকে মহাভারত থেকে ঘটনাবলীকে নাটকীয় রূপে রূপান্তর করা প্রচলিত ছিল।

উত্স[সম্পাদনা]

অ্যারিস্টট্ল এর বিয়োগান্ত পালার কাঠামো

"বিয়োগান্ত" শব্দটি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ঘটনা বর্ণনা করতে ব্যবহৃত হয়েছে বলে মনে হয়. এটি প্রাচীন গ্রিক থেকে এসেছে τραγῳδία, trag(o)-aoidiā = "goat song", সন্ধি থেকে, যেটি এসেছে tragos = "he-goat" and aeidein = "to suspect this may be traced to a time whn a sing" (cf. "ode") থেকে। পণ্ডিতদের সন্দেহ হয় যে, এটি এমন একটি সময় যখন একটি ছাগল গ্রীক নৃত্য প্রতিযোগিতায় পুরস্কার হিসাবে দেওয়া হত [৬] অথবা ছাগল বলির পূর্বে তাকে ঘিরে সমবেত/কোরাস নৃত্য হতi[৭] বু্যত্পত্তির আরেকটি দৃষ্টিভঙ্গিতে, Athenaeus of Naucratis (2nd–3rd century CE) বলছেন যে এই শব্দটির মূল রূপ হল trygos থেকে trygodia (দ্রাক্ষা ফসল) ও ode (গান), কারণ এই ঘটনাগুলি প্রথম দ্রাক্ষা ফসলের সময় শুরু হয়েছিল।[৮]

গ্রিক[সম্পাদনা]

Dionysus এর মুখোশ। গ্রিক, মরিনা, খ্রিস্টপূর্ব দ্বিতীয় শতাব্দী ।

এথেনীয় ট্র্যাজেডি-বিয়োগান্ত নাটকের প্রাচীনতম জীবিত রূপ - একটি ধরনের নৃত্য-নাটিকা যা শহর-রাজ্যের থিয়েটারিক সংস্কৃতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।[৯][১০][১১][১২][১৩][১৪] খ্রিস্টপূর্ব ৬ ষ্ঠ শতাব্দীতে কোন এক সময়ে প্রসূত হওয়ার পর, এটি খ্রিস্টপূর্বাব্দ ৫ ম শতাব্দীতে (যেখান থেকে সারা গ্রীক জুড়ে ছড়িয়ে পড়তে আরম্ভ করে) উজ্জ্বল হয়ে ওঠে এবং হেলেনীয় সময়ের প্রারম্ভ পর্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।[১৫][১৬][১৭] ৬ ষ্ঠ শতাব্দীর কোন বিয়োগান্ত নাটক বেঁচে নেই এবং ৫ম শতাব্দীতে সঞ্চালিত নাটকগুলির এক হাজারের বেশী নাটক থেকে শুধুমাত্র ৩২টি বেঁচে আছে। [১৮][১৯][ক] আমাদের কাছে সম্পূর্ণ গ্রন্থে ইস্কাইলাস, সোফোক্লেস, আর ইউরিপিডিস অদ্যাপি বর্তমান আছে।[১৮][খ]

রোমান[সম্পাদনা]

টরিশে ইউরিপিডিসের বিয়োগান্ত নাটক আইফিজেনিয়ার দৃশ্য পম্পেইতে রোমান দেয়াল চিত্রে।

২৭০ থেকে ২৪০ খ্রিস্টপূর্বাব্দের মধ্যবর্তী কয়েকটি গ্রিক অঞ্চলগুলিতে রোমান প্রজাতন্ত্রের (৫০৯-২৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দ) বিস্তার ঘটেছিল, তাঁর পরবর্তী সময়ে রোমে গ্রিক বিয়োগান্ত নাটকের উন্মেষ ঘটে।[২১] প্রজাতন্ত্রের পরবর্তী বছরগুলি থেকে এবং রোমান সাম্রাজ্যের (২৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দ -৪৭৬ সিই) মাধ্যমে থিয়েটার পশ্চিমে ইউরোপ জুড়ে, বিস্তৃত ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের চারিপাশে এবং এমনকি ইংল্যান্ডেও ছড়িয়ে পড়ে।[২২] রোমান যুগে গ্রীক বিয়োগান্ত নাটক চলতে থাকাকালীন, ২৪০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে নিয়মিত রোমান নাটকের সূচনা হয়। [২১][গ] লিভিয়াস আন্দেরিকনিকস রোমান বিয়োগান্ত নাটক লিখতে শুরু করেন, এর ফলে রোমান সাহিত্যের প্রথম গুরুত্বপূর্ণ শিল্পকর্মগুলি সৃষ্টি হয়।[২৩]পাঁচ বছর পর গিনিয়াস নায়েভিয়াসও বিয়োগান্ত নাটকগুলি লিখতে শুরু করেন (যদিও তিনি তাঁর হাস্যরসাত্মকের জন্য আরও বেশি প্রশংসা পেয়েছেন)। [২৩] প্রারম্ভিক কালের কোন রোমান বিয়োগান্ত নাটক সম্পূর্ণরূপে স্থায়ী হয় নি, যদিও এটি তার সময়কালে অত্যন্ত মান্যতা পেয়েছে; ঐতিহাসিকরা তিনটি প্রথম বিয়োগান্ত নাটকগুলি-কুইন্টাস এনিয়েস, মার্কাস প্যাকুইভিস এবং লুসিয়াস অ্যাক্সিসিয়াস সম্পর্কে জানতে পারেন। [২৪]

সাম্রাজ্যের সময় থেকে, দুটি নাট্যকারের বিয়োগান্ত নাটকগুলি বেঁচে থাকে- প্রথমজন অজানা লেখক, অন্যজন এথেন্সের দার্শনিক সেনেকা[২৫] সেনেকার বিয়োগান্ত নাটকের ন'টি বেঁচে থাকে, যা সবই ফ্যাবুলা ক্রিপিডটা (গ্রিক মূলগ্রন্থ থেকে সংযোজিত)। উদাহরণস্বরূপ, তাঁর ফায়েড্রা ইউরিপিডিসের হিপ্পোলাইটাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি।[২৬]ঐতিহাসিকরা জানেন না যে ফ্যাবুলা প্রাটেক্সটার একমাত্র কালজয়ী উদাহরণটি কে লিখেছিলেন(রোমীয় বিষয়বস্তুর উপর ভিত্তি করে সংযোজিত), কিন্তু প্রাক্তন সময়ে বিয়োগান্ত নাটকে একটি চরিত্রে তাঁর উপস্থিতির কারণে অক্টাভিয়া নাটকটিতে ভুলভাবে সিনেকাকে কৃতিত্ব দেয়া হয়েছিল।[২৫]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

নোট[সম্পাদনা]

  1. We have seven by Aeschylus, seven by Sophocles, and eighteen by Euripides. In addition, we also have the Cyclops, a satyr play by Euripides. Some critics since the 17th century have argued that one of the tragedies that the classical tradition gives as Euripides'—Rhesus—is a 4th-century play by an unknown author; modern scholarship agrees with the classical authorities and ascribes the play to Euripides.[২০] This uncertainty accounts for Brockett and Hildy's figure of 31 tragedies.
  2. The theory that Prometheus Bound was not written by Aeschylus adds a fourth, anonymous playwright to those whose work survives.
  3. For more information on the ancient Roman dramatists, see the articles categorised under "Ancient Roman dramatists and playwrights" in Wikipedia.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Banham 1998, পৃ. 1118।
  2. Nietzsche 1999, পৃ. 21, §2: ‘two-fold mood[…] the strange mixture and duality in the affects of the Dionysiac enthusiasts, that phenomenon whereby pain awakens pleasure while rejoicing wrings cries of agony from the breast. From highest joy there comes a cry of horror or a yearning lament at some irredeemable loss. In those Greek festivals there erupts what one might call a sentimental tendency in nature, as if it had cause to sigh over its dismemberment into individuals’.
  3. Williams 1966, পৃ. 14–16।
  4. Banham 1998, পৃ. 517।
  5. Oldenberg, Hermann (১৯২২), Das Mahabharata, Göttingen 
  6. See Horace, Epistulae, II, 3, 220: "Carmino qui tragico vilem certavit ob hircum".
  7. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 13।
  8. of Naucratis, Athenaeus, The deipnosophists, Wisc 
  9. Brown 1998, পৃ. 441।
  10. Cartledge 1997, পৃ. 3–5।
  11. Goldhill 1997, পৃ. 54।
  12. Ley 2007, পৃ. 206।
  13. Styan 2000, পৃ. 140।
  14. Taxidou 2004, পৃ. 104: “most scholars now call 'Greek' tragedy 'Athenian' tragedy, which is historically correct”.
  15. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 32–3।
  16. Brown 1998, পৃ. 444।
  17. Cartledge 1997, পৃ. 3–5, 33: [although Athenians of the 4th century judged Aeschylus, Sophocles, and Euripides "as the nonpareils of the genre, and regularly honored their plays with revivals, tragedy itself was not merely a 5th-century phenomenon, the product of a short-lived golden age. If not attaining the quality and stature of the fifth-century 'classics', original tragedies nonetheless continued to be written and produced and competed with in large numbers throughout the remaining life of the democracy—and beyond it".
  18. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 15।
  19. Kovacs 2005, পৃ. 379।
  20. Walton 1997, পৃ. viii, xix।
  21. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 43।
  22. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 36, 47।
  23. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 47।
  24. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 49।
  25. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 50।
  26. Brockett ও Hildy 2003, পৃ. 49–50।

উৎস[সম্পাদনা]

  • Aristotle (১৯৭৪), "Poetics", Dukore, Dramatic Theory and Criticism: Greeks to Grotowski, Butcher SH, trans, পৃষ্ঠা 31–55 .
  • ——— (১৯৮৭), Poetics with Tractatus Coislinianus, Reconstruction of Poetics II and the Fragments of the On Poets, Janko, Richard trans, Cambridge: Hackett, আইএসবিএন 0-87220-033-7 .
  • Banham, Martin, সম্পাদক (১৯৯৮), The Cambridge Guide to Theatre, Cambridge: Cambridge UP, আইএসবিএন 0-521-43437-8 .
  • Barker, Howard. 1989. Arguments for a Theatre. 3rd ed. London: John Calder, 1997. আইএসবিএন ০-৭১৯০-৫২৪৯-১.
  • Benjamin, Walter (১৯৯৮) [1928], The Origin of German Tragic Drama, Osborne, John trans, London and New York: Verso, আইএসবিএন 1-85984-899-0 .
  • Bradley, AC (২০০৭) [1909], Oxford Lectures on Poetry (repr সংস্করণ), Atlantic, আইএসবিএন 81-7156-379-1 .
  • Brockett, Oscar Gross; Hildy, Franklin Joseph (২০০৩), History of the theatre (9th, ill সংস্করণ), Allyn & Bacon, আইএসবিএন 978-0-205-35878-6 .
  • Carlson, Marvin (১৯৯৩), Theories of the Theatre: A Historical and Critical Survey from the Greeks to the Present (expanded সংস্করণ), Ithaca and London: Cornell UP, আইএসবিএন 0-8014-8154-6 .
  • Deleuze, Gilles; Guattari, Félix (২০০৪), Robert Hurley, Mark Seem and Helen R Lane trans, "Anti-Oedipus", Continuum, New Accents, London and New York: Methuen, 1, আইএসবিএন 0-416-72060-9 .
  • Dukore, সম্পাদক (১৯৭৪), Dramatic Theory and Criticism: Greeks to Grotowski .
  • Felski, Rita, সম্পাদক (২০০৮), Rethinking Tragedy, Baltimore: Johns Hopkins UP, আইএসবিএন 0-8018-8740-2 .
  • Headington, Christopher; Westbrook, Roy; Barfoot, Terry (১৯৯১), Opera: a History, Arrow, পৃষ্ঠা 22 .
  • Hegel, GWF (১৯২৭), "Vorlesungen uber die Asthetik", Glockner, Hermann, Samlichte Werke, 14, Stuttgart: Fromann .
  • Ley, Graham (২০০৭), A Short Introduction to the Ancient Greek Theater (rev সংস্করণ), University of Chicago Press, আইএসবিএন 978-0-226-47761-9 .
  • Lucas, FL (১৯৫৪)। Greek Drama for Everyman। London: JM Dent & Sons। 
  • Miller, Arthur (ফেব্রুয়ারি ২৭, ১৯৪৯), "Tragedy and the Common Man", The New York Times  (Dukore 1974, পৃ. 894–7).
  • Nietzsche, Friedrich (১৯৯৯) [1872], Geuss, Raymond; Speirs, Ronald, সম্পাদকগণ, The Birth of Tragedy and Other Writings, Cambridge Texts in the History of Philosophy, Speirs, Ronald trans, Cambridge: Cambridge UP, আইএসবিএন 0-521-63987-5 .
  • Pfister, Manfred (১৯৮৮) [1977], The Theory and Analysis of Drama, European Studies in English Literature, Halliday, John trans, Cambridge: Cambridge UP, আইএসবিএন 0-521-42383-X .
  • Rehm, Rush (১৯৯২), Greek Tragic Theatre, Theatre Production Studies, London and New York: Routledge, আইএসবিএন 0-415-11894-8 .
  • Schlegel, August Wilhelm (১৮০৯), Lectures on Dramatic Art and Literature, Gutenberg .
  • Sorkin, Nancy (২০০৮), Greek Tragedy, Introductions to the Classical World, Malden, MA: Blackwell, আইএসবিএন 1-4051-2161-0 .
  • Taxidou, Olga (২০০৪), Tragedy, Modernity and Mourning, Edinburgh: Edinburgh UP, আইএসবিএন 0-7486-1987-9 .
  • Williams, Raymond (১৯৬৬), Modern Tragedy, London: Chatto & Windus, আইএসবিএন 0-7011-1260-3 .

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • Taplin, Oliver; Billings, Joshua। "What is Tragedy?" (podcast)। UK: Oxford University। .
  • Aristotle। "Poetics" (online সংস্করণ)। Tufts। .