জুলি হ্যারিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জুলি হ্যারিস
Julie Harris
Julie Harris 1973.JPG
১৯৭৩ সালে হ্যারিস
জন্ম
জুলিয়া অ্যান হ্যারিস

(১৯২৫-১২-০২)২ ডিসেম্বর ১৯২৫
মৃত্যু২৪ আগস্ট ২০১৩(2013-08-24) (বয়স ৮৭)
ওয়েস্ট চ্যাটাম, ম্যাসাচুসেট্‌স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৪৮-২০০৯
দাম্পত্য সঙ্গীজে জুলিয়ান
(বি. ১৯৪৬; বিচ্ছেদ. ১৯৫৪)

ম্যানিং গুরিয়ান
(বি. ১৯৫৪; বিচ্ছেদ. ১৯৬৭)

ওয়াল্টার ক্যারল
(বি. ১৯৭৭; বিচ্ছেদ. ১৯৮২)
সন্তান

জুলিয়া অ্যান হ্যারিস (২ ডিসেম্বর ১৯২৫ - ২৪ আগস্ট ২০১৩) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। ধ্রুপদী ও সমকালীন মঞ্চনাটকে অভিনয়ের জন্য সর্বাধিক পরিচিত জুলি মঞ্চনাটকে শ্রেষ্ঠ মুখ্য অভিনেত্রী বিভাগে পাঁচটি টনি পুরস্কার অর্জন করেছেন।

হ্যারিসের ব্রডওয়ে মঞ্চে অভিষেক ঘটে ১৯৪৫ সালে। হ্যারিস ১৯৫০ সালের মঞ্চনাটক দ্য মেম্বার অব দ্য ওয়েডিং-এ ১২ বছর বয়সী কিশোরী চরিত্রে তার অভিনয়ের জন্য সমাদৃত হন। তিনি একই চরিত্রে এই নাটকের ১৯৫২-এর চলচ্চিত্রায়নে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোণয়ন লাভ করেন। ১৯৫১ সালে আই অ্যাম আ ক্যামেরা নাটকে স্যালি বোলস চরিত্রে তিনি তার অভিনয়ের বৈচিত্র প্রদর্শন করেন এবং এই কাজের জন্য তার প্রথম টনি পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি এরপর এই নাটকের ১৯৫৫-এর চলচ্চিত্র সংস্করণেও অভিনয় করেন।

১৯৭৯ সালে আমেরিকান থিয়েটার হল অব ফেমে হ্যারিসের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ১৯৯৪ সালে তিনি জাতীয় শিল্পকলা পদকে ভূষিত হন।[১] ২০০২ সালে তাকে টনি পুরস্কারের বিশেষ আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

জুলিয়া অ্যান হ্যারিস ১৯২৫ সালের ২রা ডিসেম্বর মিশিগানের গ্রস পয়েন্টে জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতা এলসি এল. (বিবাহপূর্ব স্মিথ) ছিলেন একজন সেবিকা এবং পিতা উইলিয়াম পিকেট হ্যারিস ছিলেন একজন ব্যাংকার।[২] তার দুই ভাই ছিল, বড় ভাই উইলিয়াম ও ছোট ভাই রিচার্ড। তিনি গ্রস পয়েন্ট কাউন্টি ডে স্কুলে পড়াশোনা করেন, যা পরবর্তী কালে আরও দুটি বিদ্যালয়ের সাথে একত্রিত হয়ে ইউনিভার্সিটি লিজেট স্কুলে পরিণত হয়। নিউ ইয়র্ক সিটিতে তিনি দ্য হিউইট স্কুলে পড়াশোনা করেন।[৩] কিশোর বয়সে তিনি কলোরাডোর পেরি-ম্যানসফিল্ড পারফর্মিং আর্টস স্কুল অ্যান্ড ক্যাম্পে অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নেন। সেখানে তার প্রশিক্ষক শার্লট পেরি তাকে ইয়েল স্কুল অব ড্রামায় ভর্তির আবেদন করতে অনুপ্রাণিত করেন। পরের বছর তিনি সেখানে ভর্তি হন।[৪] হ্যারিস লি স্ট্র্যাসবার্গের অ্যাক্টরস স্টুডিওর শুরুর দিকের সদস্য ছিলেন এবং সফলতার সাথে পদ্ধতিগত অভিনয়ের কৌশল ব্যবহার করতে সক্ষম হন, নারীকেন্দ্রিক চরিত্রে এর চিত্রায়ন বেশ কষ্টসাধ্য ছিল।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Lifetime Honors – National Medal of Arts"National Endowment for the Arts। জুলাই ২১, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই ২০২০ 
  2. "Julie Harris profile at"। ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই ২০২০ 
  3. Mula, Rose Madeline। "Julie Harris – Too Good to be True?" (ইংরেজি ভাষায়)। সিনিয়র উইমেন ওয়েব। সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই ২০২০ 
  4. ওয়েবার, ব্রুস (২৪ আগস্ট ২০১৩)। "Julie Harris, Celebrated Actress of Range and Intensity, Dies at 87"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]