বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ
বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ.png
ধরনবেসরকারি
স্থাপিত১১ জানুয়ারি ১৯৮৫ (1985-01-11)
অ্যাকাডেমিক কর্মকর্তা
৫২
শিক্ষার্থী৮২৫
অবস্থানবরিশাল, বাংলাদেশ
২২°৪১′১৩″ উত্তর ৯০°২১′২৪″ পূর্ব / ২২.৬৮৬৯৪৪° উত্তর ৯০.৩৫৬৬০২° পূর্ব / 22.686944; 90.356602স্থানাঙ্ক: ২২°৪১′১৩″ উত্তর ৯০°২১′২৪″ পূর্ব / ২২.৬৮৬৯৪৪° উত্তর ৯০.৩৫৬৬০২° পূর্ব / 22.686944; 90.356602
শিক্ষাঙ্গনশহুরে পরিবেশ
অধিভুক্তিজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
ওয়েবসাইটwww.bthmmmcollege.edu.bd

বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে বরিশাল শহরে অবস্থিত একটি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। [১] কলেজটি ১৯৮৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি বরিশালের একমাত্র বেসরকারি মহিলা কলেজ। কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক (পাস) পর্যায়ে পাঠদান করা হয়। [২] এর উচ্চ মাধ্যমিক ও ডিগ্রী শ্রেণীতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা - তিনটি শাখায় পাঠদান করা হয় ও শিক্ষা কার্যক্রম বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় ও স্নাতক শিক্ষা কার্যক্রম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত। ১৯৯৪ সালে কলেজটি জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিল। [২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বরিশাল অঞ্চলে নারী শিক্ষাকে পূর্ণ বিকাশের লক্ষ্যে বিশিষ্ট সমাজসেবী হাবিবুল ইসলাম আনিচ তালুকদার এর উদ্যোগে ও বরিশাল কিশোর মজলিস এর সহযোগিতায় ১৯৮৫ সালের ১১ জানুয়ারী বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে তৎকালীন জেলা প্রশাসক আজিজ আহমেদ এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতা করেন। বিখ্যাত সাংবাদিক ও রাজনীতিক তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া এর স্ত্রী মাজেদা বেগম যিনি বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া নামে পরিচিত ও তাদের পুত্র প্রাক্তন যোগাযোগ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এ কলেজের উন্নয়নের জন্য এককালীন দশ লক্ষ টাকা অনুদান দেন। তার প্রতি সম্মানার্থে তার নামেই এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নামকরণ করা হয়।

কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন আবদুল মাজেদ হাওলাদার অধ্যক্ষ হিসেবে নিযুক্ত হন। ১৯৮৯ সালে অধ্যক্ষের দায়িত্বে আসেন জনাব মোঃ সিরাজুল হক। এর পর একে বাবু নিকুঞ্জু বিহারী দেবনাথ, প্রফেসর সৈয়দ আমিনুল হক, মোঃ মোকতার হোসাইন ও মোঃ আবুল কাসেম অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন।

প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীতে মানবিক, বিজ্ঞান ও বাণিজ্য বিভাগ চালু করা হয়। ১৯৮৭ সাল থেকে বি.এ. (পাস), বি.এস.এস. (পাস) এর উপর স্নাতক কোর্স চালু করা হয় এবং ১৯৮৯ সাল থেকে বি.কম. (পাশ) বিভাগে পাঠদান করা হয়।

শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

পাঠ্যক্রম[সম্পাদনা]

বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক (পাশ) শ্রেনী পাঠদান করা হয়। উচ্চ মাধ্যমিক ও ডিগ্রী শ্রেণীতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা - তিনটি শাখায় শিক্ষার্জনের সুযোগ রয়েছে। উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেনীতে ২২ টি বিষয়ে পাঠদান করা হয় এবং স্নাতক (সম্মান) শ্রেনীতে ১২ টি বিষয়ে শিক্ষাদান করা হয়।

উচ্চ মাধ্যমিক[সম্পাদনা]

এই কলেজে এস,এস,সি, পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে একাদশ শ্রেনীতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ছাত্রছাত্রীদের ভর্তির সুযোগ দেয়া হয়। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা (এইচ,এস,সি) কার্যক্রম বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়।

স্নাতক (পাশ) শ্রেণীতে পঠিত বিষয়/বিভাগ সমূহ[সম্পাদনা]

স্নাতক (পাস) কোর্স

  • বাংলা বিভাগ
  • ইংরেজী বিভাগ
বি.এ. (পাস) কোর্স
  • ইতিহাস বিভাগ
  • ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ
  • দর্শন বিভাগ
  • অর্থনীতি বিভাগ
  • সমাজকল্যাণ বিভাগ
  • রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ
  • ইসলামী শিক্ষা বিভাগ
বি.এস.এস. (পাস) কোর্স
  • অর্থনীতি বিভাগ
  • রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ
  • সমাজকল্যাণ বিভাগ
  • ইতিহাস বিভাগ
  • ইসলামের ইতিহাস বিভাগ
  • ইসলামী শিক্ষা বিভাগ
  • দর্শন বিভাগ
বি.বি.এস (পাস) ব্যবসায় শিক্ষা কোর্স
  • হিসাববিজ্ঞান বিভাগ
  • ব্যবস্থাপনা বিভাগ
  • মার্কেটিং বিভাগ
  • অর্থনীতি বিভাগ

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

কলেজে শ্রেণীকক্ষের জন্য দু’টি তিনতলা ভবন ও একটি দ্বিতল ভবন রয়েছে। ছাত্রীদের যাতায়াতের জন্য একটি মিনিবাস ও থাকার জন্য একটি ছাত্রী নিবাস রয়েছে। এছাড়া কলেজ প্রাঙ্গণে সুসজ্জিত বাগান ও একটি পুকুর রয়েছে।

প্রশাসন[সম্পাদনা]

গ্রন্থাগার[সম্পাদনা]

অন্যান্য[সম্পাদনা]

শিক্ষা-সহায়ক কার্যক্রম[সম্পাদনা]

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "হোম - বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ"। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০১৫ 
  2. "Begum Tofazzal Hossain Manik Mia Mohila College"। বরিশাল বোর্ড। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]