বিষয়বস্তুতে চলুন

খুলনা বিভাগ

স্থানাঙ্ক: ২২°৫৫′ উত্তর ৮৯°১৫′ পূর্ব / ২২.৯১৭° উত্তর ৮৯.২৫০° পূর্ব / 22.917; 89.250
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খুলনা বিভাগ
বিভাগ
ডাকনাম: সাদা সোনার দেশ, বৃহত্তম ব-দ্বীপ, সুন্দরবনের দেশ
খুলনা বিভাগের মানচিত্র
খুলনা বিভাগের মানচিত্র
স্থানাঙ্ক: ২২°৫৫′ উত্তর ৮৯°১৫′ পূর্ব / ২২.৯১৭° উত্তর ৮৯.২৫০° পূর্ব / 22.917; 89.250
দেশ বাংলাদেশ
প্রতিষ্ঠা১৯৬০
রাজধানীখুলনা
সরকার
 • বিভাগীয় কমিশনারমোঃ হেলাল মাহমুদ শরীফ
আয়তন
 • মোট২২,২৮৪.২২ বর্গকিমি (৮,৬০৩.৯৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০২২ জনশুমারি)
 • মোট১,৭৪,১৬,৬৪৫
 • জনঘনত্ব৭৮০/বর্গকিমি (২,০০০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলবাংলাদেশ মান সময় (ইউটিসি+৬)
আইএসও ৩১৬৬ কোডBD-D

খুলনা বিভাগ বাংলাদেশের আটটি বিভাগের মধ্যে একটি এবং এটি দেশের দক্ষিণ পশ্চিম দিকে অবস্থিত। ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুয়ায়ী, বিভাগটির আয়তন ২২,২৮৫ বর্গ কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা ১৫,৫৬৩,০০০ জন। খুলনা বিভাগের সদর দপ্তর খুলনা শহর। এই বিভাগের সদর দপ্তর খুলনা শহর হলো ঢাকাচট্টগ্রাম শহরের পরে বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম শহর। খুলনা বিভাগের ২য় বহত্তম শহর কুষ্টিয়া, ৩য় বহত্তম শহর যশোরখুলনা বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে রূপসা নদী এবং ভৈরব নদীর তীরে অবস্থিত। বাংলাদেশের প্রাচীনতম নদী বন্দরগুলোর মধ্যে খুলনা অন্যতম। খুলনা, কুষ্টিয়াযশোর অঞ্চল বাংলাদেশের অন্যতম শিল্প ও বাণিজ্যিক এলাকা হওয়ায় খুলনাকুষ্টিয়া এবং যশোর অঞ্চল নিয়ে গঠিত এই বিভাগ কে শিল্প ইন্ডাস্ট্রির বিভাগ হিসেবে ডাকা হয়। খুলনা শহর থেকে ৪৮ কি.মি. দূরে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সমুদ্র বন্দর মোংলা বন্দর অবস্থিত। দেশের সবচেয়ে বড় স্থলবন্দর বন্দর খুলনা বিভাগের যশোরে অবস্থিত। বাংলাদেশের প্রথম রেলপথ এবং এশিয়ার সর্ববৃহৎ চিনিকল কেরু এন্ড কোম্পানি খুলনা বিভাগের চুয়াডাঙ্গা জেলাতে অবস্থিত। এছাড়া কুষ্টিয়ায় রয়েছে ভারী শিল্পাঞ্চল। বাংলাদেশের কয়েকটি উঁচু ভবনের মধ্যে কুষ্টিয়ার বিআরবি কেবল টাওয়ার অন্যতম যা ৪০ তালা। এছাড়া চুয়াডাঙ্গাতে রয়েছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ভিটা, যশোরে রয়েছে মাইকেল মধুসূদন দত্তের ভিটা, কুষ্টিয়ায় রয়েছে কবি রবীন্দ্রনাথের ভিটা,মেহেরপুরে রয়েছে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী মুজিবনগর, বাগেরহাটে রয়েছে ষাট গম্বুজ মসজিদ সহ খুলনা বিভাগের জেলা গুলো তে রয়েছে অনেক নিদর্শন। পৃথিবী বিখ্যাত উপকূলীয় বন সুন্দরবন খুলনা বিভাগের দক্ষিণাংশে অবস্থিত। খুলনা বিভাগের খুলনা, বাগেরহাটসাতক্ষীরা জেলায় সুন্দরবনের বিস্তৃতি ঘটেছে। খুলনাকে সুন্দরবনের প্রবেশদ্বার বলা হয়। এছাড়া কুষ্টিয়া তে রয়েছে লালন শাহ এর মাজার, চুয়াডাঙ্গাতে রয়েছে ঘোলদাড়ী শাহী মসজিদ এবং যশোরে রয়েছে বহু ঐতিহাসিক সব নিদর্শন।[১][২] রাজধানী ঢাকা থেকে খুলনা শহরের দূরত্ব সড়কপথে ২১০ কি.মি.। রাজধানী সহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলের সংগে স্থলপথ, আকাশপথ, জলপথ ব্যবহার করা যায়। ১৯১২ সালে থেকে অত্র অঞ্চলে নদীপথে স্টিমার (স্টিমবোট) চলাচল করে।খুলনা বিভাগের জেলা গুলোর মধ্যকার যোগাযোগ ব্যবস্থা দেশের অন্যান্য জেলা গুলোর থেকে অনেক ভালো

প্রতিষ্ঠাকাল এবং ইতিহাস

[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ ভারতে খুলনা বিভাগ ছিল প্রেসিডেন্সি বিভাগ এর একটি অংশ। ১৯৪৭ সালের আগে প্রেসিডেন্সি বিভাগের ছয়টি প্রধান জেলা ছিল, মুর্শিদাবাদ, কলকাতা, চব্বিশ পরগনা, খুলনা, অবিভক্ত যশোর এবং অবিভক্ত নদিয়া। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের সময় এই বিভাগটিকে দুটি ভাগে বিভক্ত করে। খুলনা জেলা এবং যশোর এবং নদিয়া জেলার সিংহভাগ নব প্রতিষ্ঠিত পূর্ব বাংলার অংশ হয়ে যায়। এবং প্রেসিডেন্সি বিভাগের বাকি জেলাগুলি পশ্চিমবঙ্গ এর অংশ হয়ে যায়। ১৯৪৮ সালে পূর্ববঙ্গের নদিয়া জেলার সিংহভাগ নিয়ে নতুন কুষ্টিয়া জেলা গঠন করে। এবং পূর্ববঙ্গ সরকার যশোর, খুলনাকুষ্টিয়া জেলাকে রাজশাহী বিভাগে যুক্ত করে৷ ১৯৬০ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সরকার সেই সময়ের রাজশাহী বিভাগের কুষ্টিয়া, যশোরখুলনা এবং ঢাকা বিভাগের বরিশাল,নিয়ে খুলনা বিভাগের যাত্রা শুরু হয়। ১৯৯৩ সালে খুলনা বিভাগ থেকে আলাদা করে বরিশাল বিভাগ গঠিত হয়।

ভৌগোলিক অবস্থান

[সম্পাদনা]

খুলনা বিভাগ এর পশ্চিমে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সীমানা, উত্তরে রাজশাহী বিভাগ, পূর্বে বরিশাল বিভাগ এবং দক্ষিণে বিখ্যাত ম্যানগ্রোভ নামে পরিচিত সুন্দরবন সহ বঙ্গোপসাগরেরগা ঘেষে রয়েছে নয়নাভিরাম সমুদ্র সৈকত এবং দ্বীপপুঞ্জ।দশটি জেলা সমৃদ্ধ এই বিভাগ পদ্মা নদী এর ব-দ্বীপ বা গ্রেটার বেঙ্গল ডেল্টার একটি অংশবিশেষ। অন্যান্য নদীর মধ্যে রয়েছে মধুমতি নদী, ভৈরব নদ, কপোতাক্ষ নদ, কুমার নদ, চিত্রা নদী, রুপসা নদী, পশুর নদী ইত্যাদি।

প্রশাসনিক জেলা

[সম্পাদনা]

খুলনা বিভাগ ৫৯টি উপজেলা (উপবিভাজন) ও নিম্নলিখিত ১০টি জেলা (জিলা) নিয়ে গঠিত হয়েছে:[৩]

ক্রম জেলা প্রশাসনিক
কেন্দ্র
এলাকা
কিমিবর্গ.
জনসংখ্যা
১৯৯১ আদমশুমারী
জনসংখ্যা
২০০১ আদমশুমারী
জনসংখ্যা
২০১১ আদমশুমারী
জনসংখ্যা ২০২২ আদমশুমারি
কুষ্টিয়া জেলা কুষ্টিয়া ১,৬০৮.৮০ ১,২০২,১২৬ ১,৭৪০,১৫৫ ১,৯৪৬,৮৩৮ ২,১৪৯,৬৯২
খুলনা জেলা খুলনা ৪,৩৯৪.৪৫ ২,৩১০,৬৪৩ ২,৫৭৮,৯৭১ ৩,৯১৮,৫২৭ ২,৬১৩,৩৮৫
চুয়াডাঙ্গা জেলা চুয়াডাঙ্গা ১,১৭৪.১০ ৮০৭,১৬৪ ১,০০৭,১৩০ ১,১২৯,০১৫ ১,২৩৪,০৬৬
ঝিনাইদহ জেলা ঝিনাইদহ ১,৯৬৪.৭৭ ১,৩৬১,২৮০ ১,৫৭৯,৪৯০ ১,৭৭১,৩০৪ ২,০০৫,৮৪৯
নড়াইল জেলা নড়াইল ৯৬৭.৯৯ ৬৫৫,৭২০ ৬৯৮,৪৪৭ ৭২১,৬৬৮ ৭৮৮,৬৭৩
বাগেরহাট জেলা বাগেরহাট ৩,৯৫৯.১১ ১,৪৩১,৩২২ ১,৫৪৯,০৩১ ১,৪৭৬,০৯০ ১,৬১৩,০৭৯
মাগুরা জেলা মাগুরা ১,০৩৯.১০ ৭২৪,০২৭ ৮২৪,৩১১ ৯১৮,৪১৯ ১,০৩৩,১১৫
মেহেরপুর জেলা মেহেরপুর ৭৫১.৬২ ৪৯১,৯১৭ ৫৯১,৪৩০ ৬৫৫,৩৯২ ৭০৫,৩৫৫
যশোর জেলা যশোর ২,৬০৬.৯৪ ২,১০৬,৯৯৬ ২,৪৭১,৫৫৪ ২,৭৬৪,৫৪৭ ৩,০৭৬,৮৪৯
১০ সাতক্ষীরা জেলা সাতক্ষীরা ৩,৮১৭.২৯ ১,৫৯৭,১৭৮ ১,৮৬৪,৭০৪ ১,৯৮৫,৯৫৯ ২,১৯৬,৫৮১
মোট ১০ ১০ ২২,২৮৪.২২ ১২,৬৮৮,৩৮৩২ ১৪,৭০৫,২২৩ ১৫,৬৮৭,৭৫৯ ১৭,৪১৬৬৪৪

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

[সম্পাদনা]

বিভাগ সহ উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-

বিশ্ববিদ্যালয়

[সম্পাদনা]
নং নাম ঠিকানা ধরন
০১ খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা সরকারি প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
০২ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় যশোর
০৩ সাতক্ষীরা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাতক্ষীরা
০৪ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,কুষ্টিয়া কুষ্টিয়া সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
০৫ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা
০৬ মুজিবনগর বিশ্ববিদ্যালয় মেহেরপুর
০৭ শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়
০৮ খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
০৯ নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
১২ রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়া
১০ নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলোজি খুলনা খুলনা
১১ ফার্স্ট ক্যাপিটাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ চুয়াডাঙ্গা
১২ খুলনা খান বাহাদুর আহ্ছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয় খুলনা
১৩ বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি খুলনা খুলনা

মেডিকেল কলেজ

[সম্পাদনা]
নং নাম জেলা ধরন
০১ খুলনা মেডিকেল কলেজ খুলনা সরকারি
০২ যশোর মেডিকেল কলেজ যশোর
০৩ কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ কুষ্টিয়া
০৪ মাগুরা মেডিকেল কলেজ মাগুরা
০৫ সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ সাতক্ষীরা
০৬ আদ-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজ খুলনা বেসরকারি
০৭ আদ-দ্বীন সখিনা মেডিকেল কলেজ
০৮ গাজী মেডিকেল কলেজ
০৮ খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ
১০ সেলিমা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল কুষ্টিয়া

মাধ্যমিক বিদ্যালয়

[সম্পাদনা]

কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

[সম্পাদনা]
  1. যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  2. মাগুরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  3. খুলনা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  4. খুলনা মহিলা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  5. ঝিনাইদহ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  6. চুয়াডাঙ্গা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
  7. কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  8. সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  9. মাগুরা টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ
  10. বিসিএমসি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়
  11. ম্যানগ্রোভ ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি
  12. খান জাহান আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
  13. সিটি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
  14. সরকারি টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট,খুলনা

মাদ্রাসা

[সম্পাদনা]
  1. খুলনা আলিয়া কামিল মাদ্রাসা, খুলনা
  2. দারুল কুরআন সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসা-খুলনা
  3. সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা খুলনা
  4. চুয়াডাঙ্গা ফাজিল মাদ্রাসা
  5. চুয়াডাঙ্গা মহিলা দাখিল মাদ্রাসা
  6. ফয়লাহাট আছিয়া কারামতিয়া সিনিয়র আলিম মাদ্রাসা- রামপাল, বাগেরহাট।
  7. আগরদাড়ী আমিনিয়া কামিল মাদ্রাসা,সাতক্ষীরা
  8. কায়বা-বাইকোলা ওসমানীয়া দাখিল মাদ্রাসা, শার্শা
  9. মনিপুর ভি, বি দাখিল মাদ্রাসা, আনুলিয়া আশাশুনি, সাতক্ষীরা

অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

[সম্পাদনা]

খুলনায় ৬টি সমন্বিত সাধারণ ও বৃত্তিমূলক (আইজিভি) বিদ্যালয় রয়েছে এবং এবং ইউসেপ এর একটি টেকনিক্যাল স্কুল (অবহেলিত শিশুদের জন্য শিক্ষা), যা একটি অ-লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে সেবা করে আসছে।

শিল্প

[সম্পাদনা]

খুলনা বিভাগ শিল্পে সমৃদ্ধ একটি বিভাগ।

খুলনা বিভাগের প্রধান সমৃদ্ধ জেলা হল:

খুলনা বিভাগের কুষ্টিয়া, যশোর ও খুলনা জেলাতে অসংখ্য শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এছাড়াও বাগেরহাট সহ বাকি জেলা গুলোতে কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

সংবাদপত্র ও পত্রিকা

[সম্পাদনা]

খুলনা বিভাগ থেকে প্রকাশিত দৈনিক এবং সাপ্তাহিক খবরের কাগজ সমূহ:

  • গ্রামের কাগজ
  • স্পন্দন
  • দৈনিক পূর্বাঞ্চল
  • দৈনিক খুলনাঞ্চল
  • দৈনিক দৃষ্টিপাত
  • দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা
  • দৈনিক দক্ষিণের মশাল
  • খুলনা নিউজ
  • লোকসমাজ
  • দৈনিক মাথাভাঙ্গা
  • দৈনিক সাতক্ষীরা নিউজ
  • দৈনিক খেদমত
  • দৈনিক সময়ের খবর
  • দৈনিক আমার একুশ
  • Daily Tribune
  • দৈনিক জন্মভূমি
  • দৈনিক অনির্বাণ
  • দৈনিক প্রবাহ
  • দৈনিক তথ্য
  • পত্রদূত
  • খুলনা গেজেট
  • দৈনিক খুলনার জনগন 24
  • যুগের বার্তা
  • দৈনিক খুলনা
  • খুলনা অবজারভার

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গ

[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. Marshall Cavendish Corporation (২০০৭)। World and Its Peoples: Eastern and Southern Asia। Marshall Cavendish। পৃষ্ঠা 491। আইএসবিএন 9780761476313 
  2. Girard, Luigi Fusco (২০০৩)। The Human Sustainable City: Challenges and Perspectives from the Habitat Agenda। Ashgate Publishing, Ltd। পৃষ্ঠা 298। আইএসবিএন 9780754609452 
  3. Census figures for 1991, 2001 and 2011 are from Bangladesh Bureau of Statistics, Population Census Wing. The 2011 Census figures are based on preliminary results.

বহিঃসংযোগ

[সম্পাদনা]