সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ
সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ.jpeg
নীতিবাক্যপ্রভু আমাকে জ্ঞান দন কর
ধরনসরকারি কলেজ
স্থাপিত৩ মার্চ ১৯৮৬ [১]
অধ্যক্ষপ্রফেসর পরাগ কান্তি দেব
ঠিকানা
বাঁধনপাড়া
, ,
শিক্ষাঙ্গনউশহর
সংক্ষিপ্ত নামসু.স.ম.ক
অধিভুক্তিজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, সিলেট
ওয়েবসাইটsunamganj-gwc.org

সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ সুনামগঞ্জ সদর সুনামগঞ্জ বাংলাদেশের একটি সরকারি কলেজ । এই কলেজটি সরকারি মহিলা কলেজ নামে পরিচিত।[৩] আধুনিক সুযোগ সুবিধা সহ শ্রেণীকক্ষ, গবেষণাগার, গ্রন্থাগার এবং সাধারণ কক্ষ রয়েছে। কলেজ রাজনৈতিক অস্থিরতা থেকে মুক্ত ফলে কলেজটি উপজেলার অন্যতম কলেজের স্বীকৃতি পেয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ ক্রমান্বয়ে কুড়ি থেকে বৃক্ষে পরিণত হয়েছে। ১৯৮৭-১৯৮৮ শিক্ষা বর্ষে একাদশ শ্রেণীর মানবিক বিভাগে মাত্র ১১ জন ছাত্রী নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ। বর্তমানে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে মানবিক ও বিজ্ঞান বিভাগ সহ স্নাতক পর্যায়ে বি.এ ও বি.এস.এস (পাস) কোর্স চালু রয়েছে, কলেজটিতে বর্তমান ছাত্রী সংখ্যা প্রায় ৩৮০০ জন ।[৪]

প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

সুনামগঞ্জ জেলার একমাত্র মহিলা শিক্ষার উচ্চতর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হলো সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ। কিছু সংখ্যক শিক্ষানুরাগী মহিলা ও পুরুষ মিলে বিদ্যাপীঠটির জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠা করেন এবং ৬ এপ্রিল ১৯৯৭ সালে কলেজটি জাতীয়করণ হয়। কলেজটি সুনামগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র বাঁধনপাড়ায় অবস্থিত। কলেজটির পূর্বের নাম ছিল সুনামগঞ্জ মহিলা মহাবিদ্যালয়। [৫]

শিক্ষাবৃত্ত[সম্পাদনা]

সরকারের শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে উপবৃত্তি, উপজেলা পর্যায়ের শিক্ষা বৃত্তি, শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক শিক্ষাবৃত্তি, বিভিন্ন ব্যাংক হতে প্রাপ্ত শিক্ষা বৃত্তি সহ অন্যান্য শিক্ষা বৃত্তি সমূহ শিক্ষার্থীরা অর্জন করতে পারে।

অর্জন সমূহ[সম্পাদনা]

স্নাতক (পাস) কোর্স চালু হয়েছে, ডিজিটাল শ্রেণী কক্ষ চালু, মাল্টিমিডিয়া শ্রেণী কক্ষ চালু সহ কলেজটির অবকাঠামোগত উন্নয়ন সহ ক্রমাগত ছাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ভবিষৎ পরিকল্পনা[সম্পাদনা]

অনার্স ও মাস্টার্স কোর্স চালুকরণ করার লক্ষেে কলেজ কর্তৃপক্ষ কাজ করছে । শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য বাস ক্রয় করা সহ আরও অনেক উন্নয়নের পরিকল্পনা রয়েছে ।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]