সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ

স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৫′৫৫″ উত্তর ৮৯°৫০′০৮″ পূর্ব / ২৩.৫৯৮৭২৬৪° উত্তর ৮৯.৮৩৫৬৪৬৬° পূর্ব / 23.5987264; 89.8356466
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ
সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ লোগো.svg
ধরনসরকারি কলেজ
স্থাপিত১৯৬৬
অধ্যক্ষপ্রফেসর কাজী গোলাম মোস্তফা (অধ্যক্ষ)
ঠিকানা
সারদা সুন্দরী কলেজ রোড
, , ,
২৩°৩৫′৫৫″ উত্তর ৮৯°৫০′০৮″ পূর্ব / ২৩.৫৯৮৭২৬৪° উত্তর ৮৯.৮৩৫৬৪৬৬° পূর্ব / 23.5987264; 89.8356466
শিক্ষাঙ্গনশহর
ওয়েবসাইটgssmcollege.faridpur.gov.bd

সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ বাংলাদেশের ঢাকা বিভাগের ফরিদপুর জেলা শহরে অবস্থিত একটি স্নাতকোত্তর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১মার্চ ১৯৮০ সালে সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজটি জাতীয়করন করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

অনির্বচনীয় সৌন্দর্য-শােভিত নারীশিক্ষার এক নান্দনিক প্রতিষ্ঠান সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ, ফরিদপুর। | ২০১৬ সালের উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে নির্বাচিত ফরিদপুর জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর স্থাপিত হয় ১৯৬৬ সালে। কলেজটির প্রতিষ্ঠাতা স্বর্গীয় শ্রী চন্দ্রকান্ত নাথ।বর্তমানে ফরিদপুর জেলার ঝিলটুলি এলাকায় ২.৪৯৭৮ একর জায়গার উপর সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর ১টি প্রশাসনিক কাম একাডেমিক ভবন, ২টি একাডেমিক ভবন, ১টি অধ্যক্ষের বাসভবন, শাপলা ও শিউলি নামের ২ টি ছাত্রী হােস্টেল রয়েছে।[১]

প্রাক-ইতিহাস এবং পরিচালনা কমিটি[সম্পাদনা]

ষাট-এর দশকে এদেশে তৎকালীন প্রাদেশিক রাজধানী ঢাকা ব্যতীত অন্যান্য জেলা শহরে মাত্র হাতে গোনা কয়েকটি স্থানে মহিলাদের জন্য পৃথক উচ্চ শিক্ষার সুযোগ ছিল। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভক্তির পরও তৎকালীন ফরিদপুর জেলাতে মহিলাদের জন্য পৃথক কোন উচ্চ শিক্ষার ব্যবস্থা ছিল না। এমনি পটভূমিতে ষাট-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে ফরিদপুর শহরের কিছু বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তি মহিলাদের জন্য একটি পৃথক কলেজ প্রতিষ্ঠার চিন্তা-ভাবনা শুরু করেন।

ফরিদপুরের তৎকালীন ডেপুটি কমিশনার জনাব এম. কে. আনোয়ার এবং ফরিদপুর শহরের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবীদের সাথে কয়েক দফা আলাপ-আলোচনার পর একটি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। তাঁরা ফরিদপুর শহরের গোয়ালচামট এলাকার দানশীল ব্যক্তিত্ব শ্রী চন্দ্রকান্ত নাথ-এর শরণাপন্ন হয়ে তাঁকে এ ব্যাপারে সাহায্য-সহযোগিতা প্রদানের অনুরোধ জানান। তাঁদের অনুরোধক্রমে শ্রী চন্দ্রকান্ত নাথ ভাঙ্গা রাস্তার মোড়ে অবস্থিত তাঁর এক একর দশ শতাংশ জমির উপর পাঁচটি ছোট-বড় দালান ও আরও চারটি ঘর মহিলা কলেজের জন্য দান করতে সম্মত হন। এ বিরল দান শ্রী চন্দ্রকান্ত নাথ-কে মহিলা শিক্ষা প্রসারের ব্যাপারে ইতিহাসের পাতায় স্থান করে দিয়েছে। সর্বপ্রথমে বিনা খণ্ডকালীন অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন রাজেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ মরহুম এ.কে.এম. হায়দার হোসেন। মিস্ মুশতারী বেগম পরবর্তীতে পূর্ণকালীন অধ্যক্ষ হিসেবে ১৯৬৮ সনের ফেব্রুয়ারি থেকে দায়িত্ব পালন করেন। মিস্ মুশতারী বেগম এ কলেজের প্রায় প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ১৯৭৬ সন পর্যন্ত অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে কলেজের বহু উত্থান-পতনের সঙ্গে নিজেকে বিজড়িত করেছেন। এ কলেজ তাঁর কাছে ঋণী।

১৯৬৬-৬৭ শিক্ষা বছরে ২৯ জন ছাত্রী নিয়ে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের ক্লাস শুরু হয়। এ বছরই কলেজ ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের স্বীকৃতি লাভ করে। কলেজের অবস্থান শহরের পশ্চিমে জনবহুল এলাকায় প্রধান সড়ক তথা আন্তঃজেলা সড়কের একেবারে সন্নিকটে হওয়ায় শহরের প্রধান এলাকা হতে জরাজীর্ণ সংকীর্ণ আলিমুজ্জামান সেতুর উপর দিয়ে ছাত্রীদের যাতায়াতের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে কলেজ কর্তৃপক্ষ ১৯৬৯ সনে গোয়ালাচামট হতে কলেজটিকে ঝিলটুলীতে স্থানান্তর করেন। ঝিলটুলীতে অবস্থিত (এ্যাডভোকেট নলিনী সেনের বাড়ী হিসেবে পরিচিত) সরকারের অর্পিত সম্পত্তির একটি বাড়ী ভাড়া নেয়া হয়। এগার কক্ষ বিশিষ্ট একটি একতলা দালানসহ প্রায় দু’একর পঞ্চাশ শতাংশ জমির উপর অবস্থিত  সেই ভাড়া করা অর্পিত সম্পত্তিতেই বর্তমান কলেজের অবস্থান। গোয়ালচামটের শ্রী চন্দ্রকান্ত বাবুর প্রদানকৃত ভবনগুলি কলেজের হোস্টেলরূপে ব্যবহৃত হতে থাকে।


২০১৭ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি তিনি অবসরে যান। ২০১৭ সালের ১৬ মার্চ কলেজের অধ্যক্ষ হিসাবে যোগদান করেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের স্বনামধন্য প্রফেসর মোহাম্মদ সুলতান মাহমুদ। তিনি ইতোমধ্যেই শিক্ষকবান্ধব, কর্মচারীবান্ধব এবং ছাত্রীবান্ধব অধ্যক্ষ হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেছেন এবং কলেজের ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। বাংলা, ইতিহাস ও ইসলামের ইতিহাস এবং সংস্কৃতি বিভাগের মাষ্টার্স কোর্স চালুর প্রক্রিয়াধীন চলছে। বাংলা, ইতিহাস, ইস: ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মস্টার্স কোর্স চালু প্রক্রিয়াধীন আছে। তার হাত ধরে কলেজটি অনেকদুর এগিয়ে যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। কলেজ প্রশাসন, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ছাত্রীবৃন্দ বৃহত্তর ফরিদপুরের নারী শিক্ষা প্রসারে কলেজটির উন্নতি ও অগ্রগতির চেষ্টায় নিয়োজিত রয়েছেন।[২]

শিক্ষাকার্যক্রম[সম্পাদনা]

উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ, ফরিদপুরে রয়েছে বিজ্ঞান শাখা, মানবিক শাখা, ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় পড়ার সুযােগ। বিজ্ঞান শাখা, মানবিক শাখায় এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখার আবশ্যক বিষয়গুলাে হচ্ছে,১) বাংলা (১০১,১০২),,২) ইংরাজি (১০৭,১০৮),,৩) তথ্য ও যােগাযােগ প্রযুক্তি(২৭৫)। এছাড়া রয়েছে শাখাভিত্তিক আবশ্যিক বিষয়। বিজ্ঞান শাখার আবশ্যিক বিষয় ( যে কোন তিনটি) পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, জীববিজ্ঞান অথবা উচ্চতর গণিত। বিজ্ঞান। শাখার ঐচ্ছিক বিষয়( যেকোনাে একটি) জীববিজ্ঞান, উচ্চতর গণিত, ভূগােল। মানবিক শাখার আবশ্যিক বিষয়( যে কোন তিনটি) অর্থনীতি, পৌরনীতি ও সুশাসন, ইতিহাস অথবা ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, সমাজকর্ম, ভূগােল, যুক্তিবিদ্যা। মানবিক শাখার ঐচ্ছিক বিষয় ( যে কোন একটি) অর্থনীতি, পৌরনীতি ও সুশাসন, যুক্তিবিদ্যা, সমাজকর্ম, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, ইসলাম শিক্ষা, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান। ব্যবসা শিক্ষা শাখার আবশ্যিক বিষয়( যে কোন তিনটি) হিসাব বিজ্ঞান, ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা, ফিন্যান্স ব্যাংকিং ও বিমা, অথবা উৎপাত ব্যবস্থাপনা ও বিপণন। ব্যবসায় শিক্ষা শাখার ঐচ্ছিক | বিষয়( যে কোন একটি) অর্থনীতি, ফিন্যান্স ব্যাংকিং ও বিমা, উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন, ভূগােল।[১]

 উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির পর সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুরে মােট ১০ বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু রয়েছে । স্নাতক সম্মান শ্রেণীর বিভাগ সমূহ ও আসন সংখ্যা যথাক্রমে, বাংলা বিভাগের আসন সংখ্যা ১২০, ইংরেজি বিভাগের আসন সংখ্যা ১২০, অর্থনীতি বিভাগের আসন সংখ্যা ১২০, দর্শন | বিভাগের আসন সংখ্যা ১০০, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের আসন সংখ্যা ১২০ ইসলাম ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের আসন সংখ্যা | ১০০, সমাজকর্ম বিভাগের আসন সংখ্যা ১৬৫, ইতিহাস বিভাগের আসন সংখ্যা ১০০, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের আসন সংখ্যা | ১৩০,ব্যবস্থাপনা বিভাগের আসন সংখ্যা ১০০। স্নাতক সম্মান শ্রেণীর ছাড়াও সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর রয়েছে স্নাতকোত্তর শ্রেণি। স্নাতকোত্তর শ্রেণীর বিষয়সমূহ আসন সংখ্যা যথাক্রমে। সমাজকর্ম বিভাগে আসন সংখ্যা ১০০, অর্থনীতি বিভাগে আসন সংখ্যা ৫০, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে আসন সংখ্যা ৫০। সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর সকল ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কলেজের নির্ধারিত পােশাক। কোমরে বেল্ট সহ সাদা প্লেইন কাপড়ের কামিজ, সাদা সালােয়ার, ওড়না, সাদা কেডস, কলেজ সময় সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত। এছাড়া কলেজের ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কিছু আচরণবিধি। কলেজের সকল প্রকার অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা অংশগ্রহণ উত্তীর্ণ হওয়া কলেজে বাধ্যতামূলক। শ্রেণিকক্ষে বাের্ড কর্তৃক নির্দেশিত ৭৫% উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। কলেজে প্রবেশের পর কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি বা উপযুক্ত কারণ ব্যতীত কোন ছাত্রী কলেজ ক্যাম্পাস ত্যাগ করতে পারবে না। কলেজ ক্যাম্পাসে স্মার্ট এন্ড্রয়েড মােবাইল ফোন বহন ও ব্যবহার করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থানকালে আইডি কার্ড কলেজের পরিচয় পত্র গলায় ঝুলিয়ে রাখা বাধ্যতামূলক।[১]

বিভাগ সমূহ:[সম্পাদনা]

স্নাতক (সম্মান) কোর্স[সম্পাদনা]

  • অর্থনীতি বিভাগ
  • সমাজকর্ম বিভাগ
  • রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ
  • বাংলা বিভাগ
  • ইংরেজি বিভাগ
  • হিসাববিজ্ঞান বিভাগ
  • ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ
  • ইতিহাস বিভাগ
  • ব্যবস্থাপনা বিভাগ
  • দর্শন বিভাগ

বর্তমান শিক্ষার্থী ও পরিকাঠামো[সম্পাদনা]

সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর ১টি প্রশাসনিক কাম একাডেমিক ভবন, ২টি একাডেমিক ভবন, ১টি অধ্যক্ষের বাসভবন, শাপলা ও শিউলি নামের ২ টি ছাত্রী হােস্টেল (শাপলা ও শিউলী) রয়েছে।[৩] সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর সকল ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কলেজের নির্ধারিত পােশাক। কোমরে বেল্ট সহ সাদা প্লেইন কাপড়ের কামিজ, সাদা সালােয়ার, ওড়না, সাদা কেডস, কলেজ সময় সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত। এছাড়া কলেজের ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কিছু আচরণবিধি। কলেজের সকল প্রকার অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা অংশগ্রহণ উত্তীর্ণ হওয়া কলেজে বাধ্যতামূলক। শ্রেণিকক্ষে বাের্ড কর্তৃক নির্দেশিত ৭৫% উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। কলেজে প্রবেশের পর কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি বা উপযুক্ত কারণ ব্যতীত কোন ছাত্রী কলেজ ক্যাম্পাস ত্যাগ করতে পারবে না। কলেজ ক্যাম্পাসে স্মার্ট এন্ড্রয়েড মােবাইল ফোন বহন ও ব্যবহার করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থানকালে আইডি কার্ড কলেজের পরিচয় পত্র গলায় ঝুলিয়ে রাখা বাধ্যতামূলক। একাডেমিক কার্যক্রমের বাহিরেও সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর ছাত্রীদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সহপাঠ কার্যক্রম। ছাত্রীদের বাহ্যিক জ্ঞান অর্জনের জন্য সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুর এর রয়েছে একটি সুসজ্জিত ও সমৃদ্ধ পাঠাগার। যেখান থেকে ছাত্রীরা লাইব্রেরী কার্ডের মাধ্যমে ১০ দিনের জন্য উত্তোলনের সুযােগ পায়। এছাড়া লাইব্রেরীতে বসে বই দৈনিক পত্রিকা শিক্ষামূলক ম্যাগাজিন পড়ার ব্যবস্থা রয়েছে সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ফরিদপুরে। বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রীদের ব্যবহারিক ক্লাসের জন্য বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি ও রাসায়নিক দ্রব্যাদি তেলসমৃদ্ধ প্রতিটি বিষয়ের জন্য আলাদা গবেষণাগার রয়েছে কলেজটিতে। কলেজের ছাত্রীদের অবসর বিনােদন ও আন্তঃক্রিয়া অংশগ্রহণের জন্য খেলাধুলার বিভিন্ন সরঞ্জামাদি দিয়ে সুসজ্জিত অবস্থায় রয়েছে একটি ছাত্রী মিলনের মিলনায়তন। দেশ গঠন, সমাজসেবা ও জনকল্যাণমূলক কাজে উদ্বুদ্ধ করা ও আগ্রহ সৃষ্টির জন্য এবং দেহ ও মনের সুস্থতা বজায় রাখার জন্য কলেজে গার্ল-ইনরােভার ইউনিটের রােভারদের জন্য সুসজ্জিত গার্ডেন রয়েছে। শৃঙ্খলা নিয়মানুবর্তিতা সুস্থতা ও দেশ গঠনে ভূমিকা রাখার জন্য। বিএনসিসি এর একটি সুসজ্জিত সেনা ইউনিট রয়েছে কলেজটিতে।আর্তমানবতার সেবায় বিভিন্ন জনকল্যাণ মূলক কার্যক্রম সহ প্রতিবছর নিরাপদ রক্ত গ্রহণের জন্য কলেজের রেড ক্রিসেন্টের একটি শক্তিশালী ইউনিট বিদ্যমান।[১]

বর্তমান শিক্ষক ও কর্মচারীদের সংখ্যা[সম্পাদনা]

সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ, ফরিদপুর সঠিকভাবে পরিচালনা করার জন্য রয়েছেন অধ্যক্ষ ১জন, উপধ্যক্ষ ১জন, অধ্যাপক ৩ জন (সংযুক্ত), সহযােগী অধ্যাপক ১০জন, সহকারি অধ্যাপক ১৮ জন, প্রভাষক ৩৩ জন, গ্রন্থাগারিক ১জন, | সহকারী গ্রন্থাগারিক ১ জন, প্রদর্শক ৪ জন, শরীরচর্চা শিক্ষক ১জন, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী( সরকারি) ৯ জন, | বেসরকারি কর্মচারী ২৮ জন, হােটেল কর্মচারী ১৬ জন।[৩][১]

সহকার্যক্রম[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ ওয়েবসাইট

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "অনির্বচনীয় সৌন্দর্য- শোভিত নারীশিক্ষার এক নান্দনিক প্রতিষ্ঠান সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ, ফরিদপুর"ganasonghoti.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-২৯ 
  2. gssmcollege.faridpur.gov.bd http://gssmcollege.faridpur.gov.bd/bn/site/page/8i8w-%E0%A6%86%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%A5%E0%A6%BE। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-২৯  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  3. gssmcollege.faridpur.gov.bd http://gssmcollege.faridpur.gov.bd/bn/site/page/VpcJ-%E0%A6%8F%E0%A6%95-%E0%A6%A8%E0%A6%9C%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%BF-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A6%E0%A6%BE-%E0%A6%B8%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%B0%E0%A7%80-%E0%A6%AE%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%BE-%E0%A6%95%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C-%E0%A6%AB%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%A6%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-২৯  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)