মিরিয়াম মার্গলিজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিরিয়াম মার্গলিজ

Miriam Margolyes
Miriam Margolyes 2008.jpg
২০০৮ সালের সেপ্টেম্বরে মার্গলিজ
জন্ম (1941-05-18) ১৮ মে ১৯৪১ (বয়স ৮১)
অক্সফোর্ড, ইংল্যান্ড
নাগরিকত্বযুক্তরাজ্য
অস্ট্রেলিয়া (২০১৩)
মাতৃশিক্ষায়তননিউনহাম কলেজ, ক্যামব্রিজ
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৬৩–বর্তমান
সঙ্গীহিদার সাদারল্যান্ড
(১৯৬৮–বর্তমান)
ওয়েবসাইটmiriammargolyes.com

মিরিয়াম মার্গলিজ ওবিই (জন্ম: ১৮ মে ১৯৪১) একজন ব্রিটিশ-অস্ট্রেলীয় অভিনেত্রী। তিনি মঞ্চে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তার কর্মজীবন শুরু করেন। চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনে কিছু পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করার পর তিনি মার্টিন স্করসেসির দি এজ অব ইনোসেন্স (১৯৯৩)-এ অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রী বিভাগে বাফটা পুরস্কার অর্জন করেন। পরবর্তীকালে তিনি হ্যারি পটার চলচ্চিত্র ধারাবাহিকে প্রফেসর স্প্রাউট চরিত্রে অভিনয় করেন।

মার্গলিজ দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া ও ইতালিতে বসবাস করছেন। তিনি যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ায় মঞ্চে অভিনয় করছেন, তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ২০১৩ সালে আই'ল ইট ইউ লাস্ট-এর অস্ট্রেলীয় প্রিমিয়ার। ২০১৩ সালে তিনি অস্ট্রেলীয় নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন।[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মার্গলিজ ১৯৪১ সালের ১৮ই মে অক্সফোর্ডে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার পিতা জোসেফ মার্গলিজ (১৮৯৯-১৯৯৫) একজন স্কটিশ চিকিৎসক এবং গ্লাসগোর গর্বালস এলাকার সাধারণ অনুশীলনকারী,[৩] এবং মাতা রুথ[৪] (জন্মনাম: ওয়াল্টার্স; ১৯০৫-১৯৭৪) লিভারপুলের কার্কডেলের আসবাবপত্র ব্যবসায়ী ও নিলামকারীর কন্যা। তিনি তার পিতামাতার একমাত্র সন্তান।[৫][৬][৭] তিনি ইহুদি পরিবারে বেড়ে ওঠেন।[৮][৯][১০] তার পূর্বপুরুষগণ বেলারুশপোল্যান্ড থেকে যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন। তার প্র-মাতামহ সিমন স্যান্ডমান পোল্যান্ডের মার্গনিন শহরে জন্মগ্রহণ করেন, মার্গলিজ ২০১৩ সালে সেখানে গিয়েছিলেন। তার পিতামহ মার্গলিজ বেলারুশের আমদুর (বর্তমান - ইন্দুরা) জন্মগ্রহণ করেন, যা তখন রুশ সাম্রাজ্যের অংশ ছিল।[১১]

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার বিভাগ মনোনীত কর্ম ফলাফল সূত্র
১৯৮৯ লস অ্যাঞ্জেলেস নাট্য সমালোচক সমিতি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী লিটল ডরিট বিজয়ী [১২][১৩]
১৯৯১ লরন্স অলিভিয়ে পুরস্কার সঙ্গীতনাট্যে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী ডিকেন্স ওম্যান মনোনীত [১৪]
১৯৯৩ বাফটা চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী দি এজ অব ইনোসেন্স বিজয়ী [১২][১৫]
সনি রেডিও পুরস্কার বেতারে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী দ্য কুইন অ্যান্ড আই বিজয়ী [১৬]
১৯৯৭ বর্ষসেরা টকিজ পারফর্মার প্রযোজ্য নয় অলিভার টুইস্ট বিজয়ী [১৩]
২০০১ অডিওফাইলস ইয়ারফোনস পুরস্কার প্রযোজ্য নয় আ ক্রিসমাস ক্যারল বিজয়ী [১৭]
২০০৭ থিয়েটারগোয়ার্স চয়েস পুরস্কার সঙ্গীতনাট্যে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী উইকড বিজয়ী [১৮]
২০১০ মঞ্চনাটকে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী এন্ডগেম বিজয়ী [১৯]
২০১৮ অডিওফাইলস ইয়ারফোনস পুরস্কার প্রযোজ্য নয় ব্লিক হাউজ বিজয়ী [২০]

নাট্যকলায় অবদানের জন্য ২০০২ সালের নববর্ষ সম্মাননায় মার্গলিজকে অফিসার অব দি অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ার খেতাবে ভূষিত করা হয়।[২১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Margolyes, Miriam। "Miriam Margolyes » Bio"। Miriam Margolyes' official website। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০২২ 
  2. Empire (২৩ আগস্ট ২০১৫)। "Miriam Margolyes"এম্পায়ার। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  3. "BBC One - Matron, Medicine and Me, Series 1, Miriam Margolyes"বিবিসি। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  4. Newnham College Register, 1871-1971: 1951-1970, Newnham College, Cambridge (Cambridge University Press), 1990, p. 130
  5. This Much Is True, Miriam Margolyes, John Murray Publishing, 2021
  6. "Miriam Margolyes: I had no secrets from my mother"TheGuardian.com। ২২ জুন ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  7. "Liverpool's giant caring heart praised as foster campaign gathers pace"। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  8. "Harry Potter actress Miriam Margolyes on her Gorbals roots, women in comedy and how Monty Python stars shunned her"Daily Record। Scotland। ২ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  9. Farndale, Nigel (১১ অক্টোবর ২০০৯)। "Miriam Margolyes: 'I'm still a naughty schoolgirl at heart'"The Daily Telegraph। London। ১১ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে মূলঅর্থের বিনিময়ে সদস্যতা প্রয়োজন থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  10. Chitra Ramaswamy (৬ আগস্ট ২০১২)। "As Miriam Margolyes prepares to perform her one-woman show, dedicated to the women in the victorian novelist's fiction, she reflects on her own fascinating life story"The Scotsman। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২২ 
  11. মার্গলিজ, মিরিয়াম (২০২১)। This Much is True। হ্যাচেট। আইএসবিএন 9781529379884 
  12. "Honours in the arts world"বিবিসি নিউজ। ৩১ ডিসেম্বর ২০০১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  13. "Miriam Margoyles comes to The Brewhouse"Somerset County Gazette। ১১ মে ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  14. গুডম্যান, জোন (১২ অক্টোবর ১৯৯৩)। "Miriam Margolyse Bubbles On and Off 'Innocence' Set : Movie: As the formidable dowager Mrs. Manson Mingott, the British actress brings verve and audacity to Martin Scorsese's film."লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  15. "Film | Actress in a Supporting Role in 1994"BAFTA। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  16. "The Queen And I on BBC Radio Four Extra"BBC Media Centre। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  17. "A Christmas Carol: Earphones Award Winner"AudioFile। ২০০০। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  18. "Theatregoers Name Wicked 'Best New Musical'"londontheatredirect.com। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  19. "WOS Awards: Full Winners' Acceptance Speeches"WhatsOnStage.com। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১০। 
  20. "Bleak House: Earphones Award Winner"অডিওফাইল। জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২২ 
  21. "নং. 56430"দ্যা লন্ডন গেজেট (সম্পূরক) (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ ডিসেম্বর ২০০১। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]