খলিশাউড় ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
খলিশাউড়
ইউনিয়ন
Government Seal of Bangladesh.svg খলিশাউড় ইউনিয়ন পরিষদ।
খলিশাউড় ময়মনসিংহ বিভাগ-এ অবস্থিত
খলিশাউড়
খলিশাউড়
খলিশাউড় বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
খলিশাউড়
খলিশাউড়
বাংলাদেশে খলিশাউড় ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°৫৬′০০″ উত্তর ৯০°৩৬′১০″ পূর্ব / ২৪.৯৩৩৩° উত্তর ৯০.৬০২৮° পূর্ব / 24.9333; 90.6028স্থানাঙ্ক: ২৪°৫৬′০০″ উত্তর ৯০°৩৬′১০″ পূর্ব / ২৪.৯৩৩৩° উত্তর ৯০.৬০২৮° পূর্ব / 24.9333; 90.6028
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগময়মনসিংহ বিভাগ
জেলানেত্রকোণা জেলা
উপজেলাপূর্বধলা উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

খলিশাউড় ইউনিয়ন বাংলাদেশের ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলার অন্তর্গত একটি।[১][২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

খলিশাউড় ইউনিয়নের উত্তরে রয়েছে পূর্বধলা সদর ইউনিয়ন, দক্ষিনে গোহালাকান্দ ইউনিয়ন ও আংশিক নারান্দিয়া ইউনিয়ন, পূর্বে নেত্রকোনা সদর থানার রৌহা ইউনিয়ন, পশ্চিমে বিশকাকুনি ইউনিয়ন। (জাকির আহাম্মদ খান)

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

আয়তন ও জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার :

শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণ

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

খলিশাউড় ইউনিয়ন একটি ঐতিহ্যবাহী গ্রাম। এ গ্রামে রয়েছে অনেক কৃতী মানুষ যাদের পদচারনায় খলিশাউড় হয়েছে ধন্য। মৌলানা মিরাশ উদ্দিন, হাজ্বী আমির উদ্দিন মুন্সি, মৌলভী আবদুল হামিদ, ভাষা সৈনিক আবদুল ওয়াদুদ খান, নজমুল হুদা এম.পি, মাহাবুব তালুকদার (প্রধান নির্বাচন কমিশনার ২০১৮ থেকে বর্তমান), মুহ. আবদুল হাননান খান (আইজিপি পদমর্যাদা), মন্টু বিশ্বাস সচিব, আলী আহাম্মদ খান আইয়োব (লেখক ও গবেষক), মরহুম মোস্তাক আহম্মদ (সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান) এছাড়া আরো অনেক কৃতী সন্তান রয়েছেন তাদের নাম অজানা।।।।।।

(jakir Ahammed Khan)

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

বর্তমান চেয়ারম্যান-

চেয়ারম্যানগণের তালিকা
ক্রমিক নাম মেয়াদ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "খলিশাউড় ইউনিয়ন"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ৪ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২০ 
  2. "পূর্বধলা উপজেলা"বাংলাপিডিয়া। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। ৪ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২০