বাংগালপাড়া ইউনিয়ন

স্থানাঙ্ক: ২৪°১৪′৪৫″ উত্তর ৯১°৬′৪১″ পূর্ব / ২৪.২৪৫৮৩° উত্তর ৯১.১১১৩৯° পূর্ব / 24.24583; 91.11139
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাংগালপাড়া
ইউনিয়ন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg ৪নং বাংগালপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ
বাংগালপাড়া ঢাকা বিভাগ-এ অবস্থিত
বাংগালপাড়া
বাংগালপাড়া
বাংগালপাড়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বাংগালপাড়া
বাংগালপাড়া
বাংলাদেশে বাংগালপাড়া ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°১৪′৪৫″ উত্তর ৯১°৬′৪১″ পূর্ব / ২৪.২৪৫৮৩° উত্তর ৯১.১১১৩৯° পূর্ব / 24.24583; 91.11139 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগঢাকা বিভাগ
জেলাকিশোরগঞ্জ জেলা
উপজেলাঅষ্টগ্রাম উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানমোঃ মনিরুজ্জামান রুস্তম
আয়তন
 • মোট৬,৫৫৯ বর্গকিমি (২,৫৩২ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা
 • মোট১৯,৬৮৫
 • জনঘনত্ব৩.০/বর্গকিমি (৭.৮/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড২৩৫০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

বাংগালপাড়া ইউনিয়ন বাংলাদেশের ঢাকা বিভাগের কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম উপজেলার একটি ইউনিয়ন[১][২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

অবস্থানঃ বাংগালপাড়া ইউনিয়নের উত্তর দিকে রয়েছে অষ্টগ্রাম থানা, উত্তর-পশ্চিমে দেওঘর ইউনিয়ন, পশ্চিমে বাজিতপুর উপজেলা, দক্ষিণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা, দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে নাসিরনগরের চাতলপাড় ইউনিয়ন, পূর্ব দিকে হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলা অবস্থিত।

সীমানাঃ আয়তন ৬৫৫৯ একর।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

...স্বাধীনতার পরও আমরাই তো দেখেছি রত্নগর্ভা  বাংগালপাড়ার বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ ঝিনুক কুঁড়িয়ে অষ্টগ্রাম পুরাতন সাবরেজিষ্টার অফিসের সামনে বিক্রি করতে। মাত্র ৩০-৪০ বৎসর আগে যদি মুক্তার পসরা বসতে পারে, যদি মুক্তার ছড়াছড়ি থাকতে পারে তবে নবাবের গলার মুক্তার মালাটি যে আমার বাংগালপাড়ার মুক্তার নয়, তা কে বলবে?!

কারণ বাংগালপাড়ার ঝিনুকের মুক্তা সারা ভারতবর্ষে বিখ্যাত ছিল। ইংল্যান্ডেও এই মুক্তার কদর ছিল বলে প্রমাণ আছে। মুলত অনন্ত দত্তের আগমনের পর থেকেই এই অঞ্চলে জনবসতি শুরু হয়েছিল। অবিভক্ত ভারতে বাংগালপাড়া আসামের অন্তর্ভুক্ত ছিল। ঈশা খাঁ'র সঙ্গে কোচ ও হাজং রাজদের ব্যাপক যুদ্ধ, আবার ১৬৩৮ সনে মোগলদের সাথে অহম রাজদের এক তুমুল যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল এখানে। ঐ যুদ্ধে অহম রাজ পরাজিত হয়ে আসাম চলে যায়। এ অঞ্চলে অসমীয় ভাষাভাষীর লোকদের বসবাসের যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়। বাংলা ভাষাভাষীর বা বাঙ্গালি সংখ্যাঘরিষ্টতার জন্য এ এলাকাটির নাম হয় ‘বাংগালপাড়া’।

- অসমাপ্ত -

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, বাংগালপাড়া বাজার।

গ্রাম ও ওয়ার্ড[সম্পাদনা]

বাংগালপাড়া ইউনিয়নে মোট গ্রাম সংখ্যা ১৫টি, ওয়ার্ড ৯টি।

  • ১নং ওয়ার্ড : মনোহরপুর ও করমনগর
  • ২নং ওয়ার্ড : উসমানপুর
  • ৩নং ওয়ার্ড : উত্তর বাংগালপাড়া
  • ৪নং ওয়ার্ড : আনোয়ারপুর
  • ৫নং ওয়ার্ড : দক্ষিণ বাংগালপাড়া, হায়দরাবাদ ও কলিমপুর
  • ৬নং ওয়ার্ড : রথানী ও শান্তিনগর
  • ৭নং ওয়ার্ড : ভাটিনগর
  • ৮নং ওয়ার্ড : লাউড়া ও নাজিরপুর
  • ৯নং ওয়ার্ড : নোয়াগাঁও ও বাঘাইয়া

ইউনিয়ন সম্পর্কিত তথ্য, আয়তন ও জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

আয়তন ৬৫৫৯ একর
গ্রাম ১৫টি
মৌজা
জনসংখ্যা ১৯,৬৮৫ জন
ভোটার ১২,৫০৬ জন
খাস জমি
অর্পিত জমি
ম্যাধমিক বিদ্যালয় ১টি
প্রাথমিক বিদ্যালয় ১০টি
দাখিল মাদরাসা ১টি
মসজিদ ১৫টি
মন্দির ২টি
মাজার ৩টি
কবরস্থান ৭টি
শ্মশান ৩টি
ঈদগাহ ১টি
এনজিও ১০টি
ব্যাংক ১টি

শিক্ষার হার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার :

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান : বাংগালপাড়া ইউনিয়নে ১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১টি দাখিল মাদ্রাসা ও ১০টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকাঃ

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ বাংগালপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়

মাদ্রাসাঃ বাংগালপাড়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা

প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ

• বাংগালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• আব্দুল জলিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রথানী

• উসমানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• হাসুক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মনোহরপুর

• করমনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• লাউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,

• নোয়াগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• নাজিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• বাঘাইয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

• ভাটিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

• বাংগালপাড়া ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী রথানী ঈদগাহ।

• বাংগালপাড়া চৌদ্দমাদল মন্দির।

• হাওর ও মেঘনার বুকে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ সড়ক।

তবে বাংগালপাড়া ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ দর্শনীয় স্থানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- বাংগালপাড়ার রথানী গ্রামের পশ্চিম দিকে নবনির্মিত একটি সড়ক রয়েছে যা হাওরের মধ্যদিয়ে নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের সাথে যুক্ত হয়েছে। এই নবনির্মিত সড়কে বিভিন্ন পর্যটকদের দেখা যায় প্রতিদিন। তবে বর্ষায় দূরদূরান্ত থেকে মানুষের সমাগম হয় বেশি তাই এই সড়ককেই ইউনিয়নের মূল পর্যটনকেন্দ্র হিসেবেই ধরা হয়।

যোগাযোগব্যবস্থা[সম্পাদনা]

কিশোরগঞ্জ জেলার সাথে বাংগালপাড়া ইউনিয়নের যোগাযোগব্যবস্থাঃ কিশোরগঞ্জ ডিসি অফিস থেকে রিক্সাযোগে বত্রিশ বাসস্ট্যান্ড/রেলস্টেশন; রেলস্টেশন থেকে কুলিয়ারচর স্টেশন অথবা ভৈরব স্টেশন, বত্রিশ বাসস্ট্যান্ড থেকে দাড়িয়াকান্দি বাসস্ট্যান্ড/কুলিয়ারচর বাসস্ট্যান্ড; দারিয়াকান্দি বাসস্ট্যান্ড বা রেলস্টেশন থেকে সিএনজি অথবা অটোরিক্সায় (১০ থেকে ২০ টাকা ভাড়া) কুলিয়ারচর লঞ্চঘাট থেকে নৌকাযোগে (ভাড়া ৬০ টাকা) অথবা স্পিডবোট যোগে (ভাড়া ২০০ টাকা), অথবা ভৈরব হতে লঞ্চযোগে (ভাড়া ৭৫ ও ১১০ টাকা) সরাসরি বাংগালপাড়া লঞ্চঘাট। অথবা বর্ষাকাল ব্যতীত বাজিতপুর নৌকাঘাট থেকে নদী পার হয়ে মোটরসাইকেল (ভাড়া ১২০ টাকা) বা অটোরিকশায় (ভাড়া ৯০ টাকা) সরাসরি বাংগালপাড় ইউনিয়ন পরিষদের সামনে আসা যাবে।

এখন অষ্টগ্রাম-মিঠামইন-ইটনা তিন উপজেলাকে নতুনভাবে সড়কব্যবস্থা করে দেওয়ায় কিশোরগঞ্জ সদর হতে যেকোনো যানবাহনের মাধ্যমে (সিএনজি ভাড়া ২০০ টাকা) মিঠামইন উপজেলা হয়ে অষ্টগ্রামের বাংগালপাড়া ইউনিয়নে সরাসরি আসা যায় খুব সহজেই।

(উল্লেখ্য যে, কিশোরগঞ্জ থেকে মিঠামইন আসার পথে দুটি ফেরী পার হতে হবে।)

উপজেলার সাথে বাংগালপাড়া ইউনিয়নের যোগাযোগব্যবস্থাঃ অষ্টগ্রাম উপজেলার সাথে বাংগালপাড়া ইউনিয়নের চমৎকার যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে। উপজেলা থেকে রিক্সা (ভাড়া ২৫ টাকা) অথবা অটোরিকশা (ভাড়া ২০ টাকা) যোগে বাংগালপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ (প্রায় ৩ কি.মি.) আসা যায়।

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

চেয়ারম্যান নির্ধারিত মেয়াদকাল
মোঃ মনিরুজ্জামান রুস্তম পাঁচ বছর (২০২২-২০২৭)
ওয়ার্ড নং ওয়ার্ড সদস্য সংরক্ষিত সদস্য
জামাল মিয়া হেলেনা বেগম
হাজ্জত মিয়া
ওয়ালী মিয়া
একছার মিয়া হেপি বেগম
দয়ানন্দ দাস
লাল মোহাম্মদ
লিটন দাস আহেরা বেগম
জুসেল রানা
আমিরুল ইসলাম

ইউপি চেয়ারম্যান[সম্পাদনা]

বর্তমান চেয়ারম্যানঃ

বর্তমান চেয়ারম্যান মেয়াদকাল
মনিরুজ্জামান রুস্তম ২০২২-বর্তমান
প্রাক্তন চেয়ারম্যানগণের তালিকাঃ
ক্রমিক নং চেয়ারম্যানগণের নাম মেয়াদকাল
মোঃ এনামুল হক ভূঁইয়া ২০১৬-২০২২
মাহমুদুুল হক অলি ২০০২-২০১৬
মোঃ সবধর মিয়া ১৯৯৭-২০০২
বোরহান উদ্দিন ভূূঁইয়া ১৯৯২-১৯৯৭
মোঃ সবধর মিয়া ১৯৮৯-১৯৯২
জহিরুল হক নছিম ১৯৭৩-১৯৮৮
আতাউল হক নুরু ১৯৬৮-১৯৭৩
লালমোহন সূত্রধর ১৯৬১-১৯৬৮

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংগালপাড়া ইউনিয়ন"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  2. "অষ্টগ্রাম উপজেলা"বাংলাপিডিয়া। ১৮ আগস্ট ২০১৪। ১ মে ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০