মন্টসেরাট জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মন্টসেরাট
ডাকনামএমেরাল্ড বয়েজ
অ্যাসোসিয়েশনমন্টসেরাট ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচউইলি ডোনাচি
অধিনায়কলাইল টেইলর
সর্বাধিক ম্যাচডিন ম্যাসন (১৪)
শীর্ষ গোলদাতাজেলি হজসন (৪)
মাঠব্লেকস ইস্টেট স্টেডিয়াম
ফিফা কোডMSR
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৭৭ বৃদ্ধি(১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ১৬৫ (আগস্ট ২০১৪)
সর্বনিম্ন২০৬ (জানুয়ারি ২০১১–জানুয়ারি ২০১২, জুন ২০১২, আগস্ট–সেপ্টেম্বর ২০১২)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৯৫ বৃদ্ধি ১০ (১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ১০৭ (ফেব্রুয়ারি ১৯৫০)
সর্বনিম্ন২৩৩ (সেপ্টেম্বর ২০১২)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 সেন্ট লুসিয়া ৩–০ মন্টসেরাট 
(সেন্ট লুসিয়া; ১০ মে ১৯৯১)
বৃহত্তম জয়
 মন্টসেরাট ৭–০ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ 
(ফর-দ্য-ফ্রান্স, মার্তিনিক; ৯ সেপ্টেম্বর ২০১২)
বৃহত্তম পরাজয়
 বারমুডা ১৩–০ মন্টসেরাট 
(হ্যামিল্টন, বারমুডা; ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৪)

মন্টসেরাট জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Montserrat national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মন্টসেরাটের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম মন্টসেরাটের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা মন্টসেরাট ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৯৬ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৯৪ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৩] ১৯৯১ সালের ১০শে মে তারিখে, মন্টসেরাট প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; সেন্ট লুসিয়ায় অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে মন্টসেরাট সেন্ট লুসিয়ার কাছে ৩–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

১,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট ব্লেকস ইস্টেট স্টেডিয়ামে এমেরাল্ড বয়েজ নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় মন্টসেরাটের রাজধানী প্লাইমাউথে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন উইলি ডোনাচি এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন নটিংহ্যাম ফরেস্টের আক্রমণভাগের খেলোয়াড় লাইল টেইলর

মন্টসেরাট এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপেও মন্টসেরাট এপর্যন্ত একবারও অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়নি।

ডিন ম্যাসন, ব্র্যাডলি উড-গার্নেস, অ্যালেক্স জেমস ডায়ার, জেলি হজসন এবং লাইল টেইলরের মতো খেলোয়াড়গণ মন্টসেরাটের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১৪ সালের আগস্ট মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে মন্টসেরাট তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (১৬৫তম) অর্জন করে এবং ২০১১ সালের জানুয়ারি মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ২০৬তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে মন্টসেরাটের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১০৭তম (যা তারা ১৯৫০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ২৩৩। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৭৫ হ্রাস  ইন্দোনেশিয়া ৯৫৭.০৫
১৭৬ অপরিবর্তিত  সেন্ট লুসিয়া ৯৫৩.৪৫
১৭৭ বৃদ্ধি  মন্টসেরাট ৯৫০.৭১
১৭৮ বৃদ্ধি  কম্বোডিয়া ৯৫০.২৬
১৭৯ বৃদ্ধি  কিউবা ৯৪৬.৮৬
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৯৩ অপরিবর্তিত  বনেয়ার ৯৬০
১৯৪ অপরিবর্তিত  মালদ্বীপ ৯৫১
১৯৫ বৃদ্ধি ১০  মন্টসেরাট ৯৪০
১৯৬ বৃদ্ধি    নেপাল ৯৩৩
১৯৭ বৃদ্ধি  আরুবা ৯১২
১৯৭ হ্রাস  সোমালিয়া ৯১২

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ উত্তীর্ণ হয়নি
জার্মানি ২০০৬ ২০
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪
রাশিয়া ২০১৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৪৫

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  3. "This Week in CONCACAF History: April 10-16"। CONCACAF.com (2011)। এপ্রিল ২১, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]