অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা
ডাকনামবেনা বয়েজ
অ্যাসোসিয়েশনঅ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচটমাস ডেভিস কার্টিস
অধিনায়ককুইন্টন গ্রিফিথ
সর্বাধিক ম্যাচপিটার বায়ার্স (৯০)
শীর্ষ গোলদাতাপিটার বায়ার্স (৪৩)
মাঠস্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়াম
ফিফা কোডATG
ওয়েবসাইটantiguafootball.com
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১২৮ অপরিবর্তিত (১৯ নভেম্বর ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ৭০ (অক্টোবর ২০১৪)
সর্বনিম্ন১৭০ (ডিসেম্বর ২০০৩ – জানুয়ারি ২০০৪)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৬৬ বৃদ্ধি ৫ (২৬ নভেম্বর ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ১৩১ (নভেম্বর ২০১০)
সর্বনিম্ন১৭৯ (নভেম্বর ২০০৭)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ১১–১ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা 
(পোর্ট অব স্পেন, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো; ১০ নভেম্বর ১৯৭২)
বৃহত্তম জয়
 অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ১০–০ মার্কিন ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ 
(নর্থ সাউন্ড, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা; ১১ অক্টোবর ২০১১)
বৃহত্তম পরাজয়
 ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ১১–১ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা 
(পোর্ট অব স্পেন, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো; ১০ নভেম্বর ১৯৭২)

অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Antigua and Barbuda national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৭০ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৭৩ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৩] ১৯৭২ সালের ১০শে নভেম্বর তারিখে, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর পোর্ট অব স্পেনে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর কাছে ১১–১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

১০,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে বেনা বয়েজ নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার রাজধানী সেন্ট জন'সে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন টমাস ডেভিস কার্টিস এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় কুইন্টন গ্রিফিথ

অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপেও অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা এপর্যন্ত একবারও অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়নি।

পিটার বায়ার্স, ট্যামার্লি টমাস, কুইন্টন গ্রিফিথ, জ্যামি টমাস এবং র‍্যান্ডলফ বার্টনের মতো খেলোয়াড়গণ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে অ্যান্টিগুয়া এবং বার্বুডা ফুটবল দল

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৭০তম) অর্জন করে এবং ২০০৩ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৭০তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১৩১তম (যা তারা ২০১০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৭৯। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৯ নভেম্বর ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১২৬ বৃদ্ধি  ফিলিপাইন ১১৩১.৯৩
১২৭ বৃদ্ধি  অ্যাঙ্গোলা ১১৩১.৭২
১২৮ অপরিবর্তিত  অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ১১৩১.০৭
১২৯ হ্রাস  মালাউই ১১২৭.২১
১৩০ হ্রাস ১৫  মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র ১১২৭.২
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
২৬ নভেম্বর ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৬৪ অপরিবর্তিত  ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র ১১৭১
১৬৫ হ্রাস  ইয়েমেন ১১৬৯
১৬৬ বৃদ্ধি  অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ১১৬৫
১৬৭ বৃদ্ধি  সলোমন দ্বীপপুঞ্জ ১১৬২
১৬৮ অপরিবর্তিত  হংকং ১১৬০

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪ উত্তীর্ণ হয়নি ২২
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬ উত্তীর্ণ হয়নি
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১৫
জার্মানি ২০০৬
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪ ১২ ৩২ ১৮
রাশিয়া ২০১৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৪২ ১৩ ২৪ ৬৬ ৯৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৯ নভেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ২৬ নভেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০২১ 
  3. "Abrahams likely to head CONCACAF"Kingston Gleaner in newspaperarchive.com। ১৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৩। 
    "The Caribbean CONCACAF members are Jamaica, Antigua, Bahamas, Barbados, Cuba, Haiti, Netherland Antilles, Puerto Rico, Surinam, Trinidad and the Dominican Republic."

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]