ভেড়ামারা কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভেড়ামারা কলেজ
Veramara College.JPG
ভেড়ামারা উপজেলার ভেড়ামারা কলেজের প্রধান ফটক।
ধরনবেসরকারি কলেজ
স্থাপিত১৯৬৫
অধ্যক্ষমোঃ শামছুল বারী
শিক্ষার্থী২৬৬৪
অবস্থানভেড়ামারা, কুষ্টিয়া, বাংলাদেশ
২৪°০১′৩১″ উত্তর ৮৮°৫৯′২০″ পূর্ব / ২৪.০২৫৩৩০° উত্তর ৮৮.৯৮৮৯৭৭° পূর্ব / 24.025330; 88.988977স্থানাঙ্ক: ২৪°০১′৩১″ উত্তর ৮৮°৫৯′২০″ পূর্ব / ২৪.০২৫৩৩০° উত্তর ৮৮.৯৮৮৯৭৭° পূর্ব / 24.025330; 88.988977
শিক্ষাঙ্গনশহর
অধিভুক্তিজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
ক্রীড়াক্রিকেট, ফুটবল,

ভেড়ামারা কলেজ (ইংরেজি: Veramara College) বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কুষ্টিয়া সদর উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে সুন্দর ও মনোরম পরিবেশে প্রায় ৫ একর জমির উপর কলেজটি অবস্থিত। এই কলেজ বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত। পহেলা জুলাই, ১৯৬৫ সালে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।[১]

প্রতিষ্ঠার ইতিহাস[সম্পাদনা]

ভেড়ামারা কলেজ শিক্ষার উন্নয়ের চিন্তা থেকে স্থানীয় শিক্ষনুরাগী ও সমাজহিতৈষী ব্যাক্তিগনের মহতী উদ্যাগে ১৯৪৭ সালের ১ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠা লাভ করে।[১]

একাডেমিক কোর্স চালুর ইতিহাস[সম্পাদনা]

যশোর শিক্ষাবোর্ডের উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম স্বীকৃতির তারিখ ১ জুলাই, ১৯৬৫। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রথম অধিভূক্তির তারিখ হচ্ছে ৫ আগস্ট, ১৯৭০ (বিএ, বিকম) এবং বিএসসি শাখার অধিভূক্তির তারিখ হচ্ছে ২৫ জুলাই, ১৯৭৬। উচ্চ মাধ্যমিক ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা (বিএম) শিক্ষাক্রমের প্রথম স্বীকৃতির তারিখ হচ্ছে ১০ জুলাই, ২০০৩। উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক সত্মর প্রথম এমপিও ভূক্তির তারিখ হচ্ছে ১ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৫ এবং বিএম শাখার প্রথম এমপিও ভূক্তির তারিখ হচ্ছে ১ মে, ২০১০। স্নাতক সম্মান শিক্ষাকার্যক্রম প্রথম অধিভূক্তি লাভ করে ২০১২ সালে।[১]

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

ভেড়ামারা কলেজের অনার্স ভবন।

এই কলেজের ক্যাম্পাস ৫ একর বিশিষ্ট। । কলেজটি তিনটি ভবন নিয়ে গঠিত।

জমির পরিমাণ[সম্পাদনা]

ভেড়ামারা কলেজের মোট জমির পরিমাণ ০৫ একর।

মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা[সম্পাদনা]

ভেড়ামারা কলেজের মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে ২৬৬৪ জন।[১]

মোট শিক্ষক সংখ্যা[সম্পাদনা]

একাডেমিক কোর্স[সম্পাদনা]

স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনসমূহ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভেড়ামারা ডিগ্রি কলেজ"http://bheramara.kushtia.gov.bd/। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৫  |publisher= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)