৬ মে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(মে ৬ থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১০ ১১ ১২ ১৩ ১৪ ১৫ ১৬
১৭ ১৮ ১৯ ২০ ২১ ২২ ২৩
২৪ ২৫ ২৬ ২৭ ২৮ ২৯ ৩০
৩১  

৬ মে গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১২৬তম (অধিবর্ষে ১২৭তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৩৯ দিন বাকি রয়েছে।

ঘটনাবলী[সম্পাদনা]

  • ১৫৪২ - প্রথম খ্রিস্টান মিশনারি ফ্রান্সিস খ্যাভিয়ের গোয়ায় আসেন।
  • ১৭৩৩ - প্রথম আর্ন্তজাতিক বক্সিং ম্যাচে বব হুইটেকার টিটু ডি কার্নিকে হারায়।
  • ১৭৫৭ - দীর্ঘ ৭ বছর প্রাগযুদ্ধ শেষে অস্ট্রীয়রা বিজয় লাভ করে।
  • ১৭৬৩ - আমেরিকান আদিবাসী নেতা পন্টিয়াক নিউ ইয়র্কে বৃটিশদের বিপক্ষে যুদ্ধ ঘোষণা করেন।
  • ১৭৭৫ - ব্রিটিশ রাজের হাতে মহারাজ নন্দনকুমার গ্রেফতার হন।
  • ১৮৩১ - ভারত উপমহাদেশের উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশের বালাকোট উপত্যাকায় মুক্তি বা আজাদী আন্দোলনের নেতা সাইয়েদ আহমাদ ব্রেলভী ইংরেজ ও শিখ বাহিনীর সাথে এক লড়াইয়ে শতাধিক মুজাহিদসহ শহীদ হন।
  • ১৮৩৫ - জেমস গর্ডন ব্যানাট বিখ্যাত নিউইয়র্ক হেরাল্ড পত্রিকার প্রথম সংখ্যা প্রকাশ করেন।
  • ১৮৪০ - ইংল্যান্ডে প্রথম ডাকটিকেট চালু হয় ।
  • ১৮৫৭ - ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ বেঙ্গল নেটিভ ইনফ্যান্ট্রিকে বিলুপ্ত করে। মঙ্গল পাণ্ডেকে সিপাহি বিপ্লবের প্রথম শহীদ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
  • ১৮৮৯ - প্যারিসের আইফেল টাওয়ার সকলের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করা হয়।
  • ১৯১০ - বাবার মৃত্যুর পর পঞ্চম জর্জ ব্রিটেনের রাজা মনোনীত হন।
  • ১৯১১ - পিকাসোর আঁকা ৩ কোটি ডলার মূল্যমানের ছবি প্রাগ ন্যাশনাল গ্যালারি থেকে চুরি হয়।
  • ১৯৩৯ - জার্মানী ও ইতালী সামরিক ও রাজনৈতিক মৈত্রী ঘোষণা করে, যা বার্লিন-রোম অক্ষ নামে পরিচিত।
  • ১৯৪০ - উইন্সটন চার্চিল বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।
  • ১৯৪৫ - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পর জর্মানী ফ্রান্সের রাইমে নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ করে।
  • ১৯৫৪ - রজার ব্যানিস্টারই প্রথম ৪মিনিটে এক মাই দূরত্ব দৌড়ে অতিক্রম করেন।
  • ১৯৬৫ - ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার বিল লরি ও সিম্পসন ৩৮২ রান করেন।
  • ১৯৭৫ - মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফোর্ড ভিয়েৎনাম যুদ্ধ সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
  • ১৯৮৮ - গ্রায়েম হিক উরচেস্টার এর হয়ে সমারসেটের বিপক্ষে একাই ৪০৫ রান করেন।
  • ১৮৮৯ - প্যারিসের আইফেল টাওয়ার সকলের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করা হয়।
  • ১৯৯১ - পিকাসোর আঁকা তিন কোটি ডলার মূল্যমানের চারটি ছবি চেকোস্লোভিয়ার প্রাগস্থ ন্যাশনাল গ্যালারি থেকে চুরি হয়ে যায়।
  • ১৯৯৪ - ব্রিটিশ রাণী এলিজাবেথ ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রান্সিস মিতেরাঁ দুই দেশের মধ্যে চ্যানেল টানেল উদ্বোধন করেন।
  • ১৯৯৪ - চীন-জাপান পারমাণবিক নিরাপত্তা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
  • ১৯৯৭ - প্রয়াত গ্রেট পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসন এবং বিখ্যাত ব্যান্ড দল বি গিস কে “রক এন্ড রোল” এর হল অব ফেইমে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
  • ১৯৯৯ - সাবেক যুগোশ্লাভিয়ার বেলগ্রেডে ন্যাটোর ‘ভুলবশত’ চীনা দূতাবাসের উপর বোমা নিক্ষেপে দুইজন চীনা নাগরিক নিহত ও বিশজন আহত হন।
  • ২০০১ - সিরিয়া সফরের সময় প্রথম কোন পোপ হিসেবে পোপ পল ২ মসজিদে প্রবেশ করেন।
  • ২০০২ - দীর্ঘ ১৯ মাস গৃহবন্দী থাকার পর মিয়ানমারের নেত্রী নোবেল বিজয়ী অংসান সুচি মুক্তিলাভ করেন।

জন্ম[সম্পাদনা]

  • ১৭৫৮ - ম্যাক্সিমিলিয়েন দ্য রোবসপিয়ের, তিনি ছিলেন ফরাসি আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ।
  • ১৮৫৬ - সিগমুন্ড ফ্রয়েড, প্রখ্যাত অষ্ট্রীয় মনোবিজ্ঞানী। (মৃ.২৩/০৯/১৯৩৯)
  • ১৮৫৬ - এডুইন পিয়ারি, তিনি ছিলেন একজন মার্কিন মেরু অভিযাত্রী।
  • ১৮৬১ - মতিলাল নেহেরু, ভারতের বিখ্যাত আইনজীবী ও ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর পিতা। (মৃ.৬/০২/১৯৩১)
  • ১৮৬৮ - গ্যাস্টোন লেরোউক্স, তিনি ছিলেন ফরাসি সাংবাদিক ও লেখক।
  • ১৮৭১ - ভিক্টোর গ্রিগ্নারড, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ফরাসি রসায়নবিদ ও শিক্ষাবিদ।
  • ১৮৭২ - উইলেম ডে সিটার, নেদারল্যান্ডের একজন বিখ্যাত গণিতবিদ, পদার্থবিজ্ঞানী ও জ্যোতির্বিজ্ঞানী। (মৃ. ১৯৩৪)
  • ১৮৭২ - জামাল পাশা, উসমানীয় সামরিক নেতা। (মৃ. ১৯২২)
  • ১৯০৪ - হ্যারি মারটিনসোন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ লেখক ও কবি।
  • ১৯১৫ - অরসন ওয়েলস, মার্কিন চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা, লেখক এবং প্রযোজক। (মৃ. ১৯৮৫)
  • ১৯১৬ - রবার্ট হেনরী, মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী। (মৃ. ১৯৯৭)
  • ১৯১৮ - জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান, আবুধাবির আমির এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম রাষ্ট্রপতি। (মৃ. ২০০৪)
  • ১৯২৯ - পল লাউটারবার, একজন মার্কিন রসায়নবিদ। (মৃ. ২০০৭)
  • ১৯৩২ - আলাউদ্দিন আল আজাদ, বাংলাদেশী বাংলাদেশের খ্যাতিমান ঔপন্যাসিক, প্রাবন্ধিক, কবি, নাট্যকার, গবেষক ও অধ্যাপক। (মৃ. ২০০৯)
  • ১৯৪৩ - আন্দ্রিয়াস বাডের, তিনি ছিলেন জার্মান সন্ত্রাসী ও সহ-প্রতিষ্ঠিত রেড আর্মি দল।
  • ১৯৫০ - জেফ্রি ডেভার, মার্কিন রহস্য ও অপরাধ সাহিত্য লেখক।
  • ১৯৫১ - স্যামুয়েল ডো, তিনি ছিলেন লাইবেরিয়া সার্জন, রাজনীতিবিদ ও ২১ তম প্রেসিডেন্ট।
  • ১৯৫৩ - টনি ব্লেয়ার, তিনি ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী।
  • ১৯৬১ - জর্জ ক্লুনি, মার্কিন অভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা ও সমাজকর্মী।
  • ১৯৭৫ - অ্যালান রিচার্ডসন, অবসরগ্রহণকারী ইংরেজ ক্রিকেটার।
  • ১৯৮১ - ভারতের পেস বোলার লক্ষ্মী রতন শুক্লা। তিনি তিনটি এক দিনের ম্যাচ খেলেন।
  • ১৯৮৩ - দানি আলভেস, ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।
  • ১৯৮৭ - মোন গেউন-ইয়উং, তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার অভিনেত্রী।
  • ১৯৮৭ - ড্রিস মের্টেনস, বেলজিয়ামের একজন পেশাদার ফুটবলার।
  • ১৯৮৯ - ডোমিনিকা কিবুল্কোভা, তিনি স্লোভাকিয়ান টেনিস খেলোয়াড়।
  • ১৯৯২ - তাকাশি উসামি, তিনি জাপানি ফুটবলার।
  • ১৯৯৪ - মাতেও কোভাচিচ, ক্রোয়েশীয় পেশাদার ফুটবলার।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

  • ১৫৪০ - জুয়ান লুইস ভিভেস, স্প্যানিশ পণ্ডিত। (জ. ১৪৯২)
  • ১৫৮৯ - তানসেন, উত্তর ভারতের সর্বশ্রেষ্ঠ সঙ্গীতজ্ঞ, আকবরের সভার নবরত্নের অন্যতম।
  • ১৭৫৮ - ম্যাক্সিমিলিয়েন দ্য রোবসপিয়ের, ফরাসি বিপ্লবের নেতা, জঁ-জাক রুসোর অনুরাগী, জ্যাকোবিন টেররের নেতা। (মৃ. ১৭৯৪)
  • ১৮৩১ - সাইয়েদ আহমাদ ব্রেলভী, তিনি ছিলেন ভারতের একজন মুসলিম সংস্কার আন্দোলনকারী ছিলেন এবং “নবী মুহাম্মদের পথ” (তারিকাহ মুহাম্মাদিয়াহ), একটি বিপ্লবী ইসলামী আন্দোলন, এর প্রতিষ্ঠাতা।
  • ১৮৫৯ - আলেকজান্ডার ফন হুমবোল্‌ড্‌ট্, জার্মান অভিযাত্রী ও বিজ্ঞানী। (জ. ১৭৬৯)
  • ১৮৭৭ - জোহান লুডভিগ রুনেবেরগ, তিনি ছিলেন সুইডিশ বংশোদ্ভূত ফিনিশ কবি ও স্তবগান লেখক।
  • ১৯১৯ - এল. ফ্রাঙ্ক বাউম, তিনি ছিলেন আমেরিকান সাংবাদিক ও লেখক।
  • ১৯৩০ - রজতকুমার সেন, ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের বিপ্লবী নেতা।
  • ১৯৪৯ - মোরিস মাতরলাঁক, বেলজীয় নাট্যকার, কবি এবং প্রবন্ধকার। (জ. ১৮৬২)
  • ১৯৫১ - এলি কারতঁ, প্রভাবশালী ফরাসি গণিতবিদ। (জ. ১৮৬৯)
  • ১৯৫২ - মারিয়া মন্টেসরি, ইতালীয় চিকিৎসক এবং শিক্ষাবিদ, নিজের নামে প্রতিষ্ঠা করা শিক্ষা দর্শন - "মন্টেসরি শিক্ষাপদ্ধতি"র জন্য সুপরিচিত। (জ.৩১/০৮/১৮৭০)
  • ১৯৫২ - রেবতী মোহন বর্মণ, বিংশ শতাব্দীর বাঙালি লেখক।
  • ১৯৬৩ - মন্টি উলি, মার্কিন অভিনেতা। (জ. ১৮৮৮)
  • ১৯৭৩ - বৈজ্ঞানিক ও শিক্ষাবিদ ডা: সতীশরঞ্জন খাস্তগীর।
  • ১৯৯২ - মারলেনে ডিট্রিশ, জার্মান অভিনেত্রী ও গায়িকা ছিলেন। (জ. ১৯০১)
  • ২০০২ - পিম ফরটুয়ন, তিনি ছিলেন ডাচ সমাজবিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ ও রাজনীতিবিদ।
  • ২০১১ - কাজী নূরুজ্জামান, বীর উত্তম খেতাব প্রাপ্ত বাংলাদেশি মুক্তিযোদ্ধা, সেক্টর কমান্ডার।
  • ২০১৩ - গিউলিও অ্যান্ডরেওটি, তিনি ছিলেন ইতালীয় সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদ ও ৪১ তম প্রধানমন্ত্রী।
  • ২০১৫ - নভেরা আহমেদ, বাংলাদেশি ভাস্কর। (জ. ১৯৩৯)

ছুটি ও অন্যান্য[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]