হিন্দু ধর্মগ্রন্থ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(হিন্দুশাস্ত্র থেকে পুনর্নির্দেশিত)

হিন্দুধর্মের অনুশাসনশাস্ত্রটি একক কোনো গ্রন্থ নয় [১][২]। বর্তমানে ধর্মটিকে অানুশাসনিকভাবে এককভাবে মূলত মনুসংহিতাতে নিবেশিত মনে হলেও আসলে তা ন্যূনতম ১০২ [ব্যবহার্য্যভাবে এ সংখ্যা ৮৩ , কেননা পুঞ্জ-২০ মিলে ১[৩]+৮২) ধর্মগ্রন্থের শ্রুতিস্মৃতি বিন্যাসে বিন্যস্ত গ্রন্থপুঞ্জ হিসেবে হিন্দুধর্মের আপাত পরস্পরবৈপরীত্যর বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ধর্মীয় বিশ্বাসজীবনাচার নিয়ন্ত্রণ ক'রে আসছে । [৪][৫] গবেষকরা ‘হিন্দুশাস্ত্রে’র সংজ্ঞা নির্ধারণের বিষয়ে দ্বিধাগ্রস্থ বোধ করেন ।[২][৬][২]


নির্দিষ্ট লেখক কর্তৃক রচিত ধর্মগ্রন্থগুলি ‘স্মৃতি’ পর্যায়ভুক্ত।[৫] শ্রুতিশাস্ত্রের তুলনায় স্মৃতিশাস্ত্রের গুরুত্ব কম।[৭] স্মৃতিশাস্ত্র বৈচিত্র্যপূর্ণ এক বিশাল শাস্ত্র-সংকলন। বেদাঙ্গ, হিন্দু মহাকাব্য, ধর্মসূত্র, হিন্দু দর্শন, পুরাণ, কাব্য, ভাষ্য এবং রাজনীতি, নৈতিকতা, সংস্কৃতি, শিল্প ও সমাজ-সংক্রান্ত বিভিন্ন ‘নিবন্ধ’ এই ধারার অন্তর্গত।[৮][৯]

প্রাচীন ও মধ্যযুগীয় হিন্দু ধর্মগ্রন্থগুলি সংস্কৃত ভাষায় রচিত। অনেক ধর্মগ্রন্থ স্থানীয় ভারতীয় ভাষাতেও রচিত। আধুনিক কালে প্রাচীনতমন ধর্মগ্রন্থগুলি ভারতের বিভিন্ন ভাষা এবং পাশ্চাত্যের নানা ভাষায় অনূদিত হয়েছে।[২] খ্রিস্টের জন্মের আগে হিন্দু ধর্মগ্রন্থগুলি মুখে মুখে রচিত হত ও মনে রাখা হত এবং মুখে মুখেই গুরুশিষ্য-পরম্পরায় এক প্রজন্ম থেকে পরবর্তী প্রজন্মে প্রচলিত ছিল। এক সহস্রাব্দ পর এগুলি পাণ্ডুলিপি আকারে লিখিত হয়।[১০][১১] হিন্দুশাস্ত্র মুখে মুখে সংরক্ষণ ও প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে প্রচলনের এই প্রথা আধুনিক যুগেও প্রচলিত আছে।[১০][১১]

শ্রুতিমালা[সম্পাদনা]

ঋষি ও তাদের উত্তরসূরী সাধু-সন্তদের শ্রুত তথা জ্ঞাত (যা দৃষ্ট ব'লেই অধিকাংশ ক্ষেত্রে ব্যাখ্যাত হয়ে আসছে) ধর্ম-সম্পর্কিত চিন্তারাশিকে শ্রতি বিন্যাসে বিন্যস্ত করা হয় ।

শ্রুতি গঠিত হয়েছে ন্যূনতম ৭৬-গ্রন্থমালায় (৪ বেদ , ৬ বেদাঙ্গ , ১৮ ব্রাহ্মণ , ৯ আরণ্যক , ১৩ উপনিষদ , ৪ উপবেদ , ২০ ধর্মসূত্র বা স্মৃতি এবং ২ সমন্বয়ী - গীতাব্রহ্মসূত্র) । স্মৃতি পর্যায়ভুক্ত গ্রন্থাদি মূলত লোককাহিনী বা লোকগাথাদির সংকলন , যেসবে সংকলকের চিন্তা , কল্পনাদর্শন মিলেমিশে এগুলোর আকার ক্রমাগত বর্ধিত হয়ে আসছে । [৫] শ্রুতিশাস্ত্রের তুলনায় স্মৃতিশাস্ত্রের গুরুত্ব কম।[৭] স্মৃতিশাস্ত্র বৈচিত্র্যপূর্ণ এক বিশাল শাস্ত্র-সংকলন। বেদাঙ্গ, হিন্দু মহাকাব্য, ধর্মসূত্র, হিন্দু দর্শন, পুরাণ, কাব্য, ভাষ্য এবং রাজনীতি, নৈতিকতা, সংস্কৃতি, শিল্প ও সমাজ-সংক্রান্ত বিভিন্ন ‘নিবন্ধ’ এই ধারার অন্তর্গত।[৮][৯]

বেদ[সম্পাদনা]

  1. শুক্লযজুর্বেদ
  2. কৃষ্ণযজুর্বেদ

বেদাঙ্গ[সম্পাদনা]

  1. শ্রৌতসূত্র
  2. গৃহ্যসূত্র
  3. ধর্মসূত্র
  4. শূল্ব্যসূত্র
  1. পানিনি রচিত অষ্টাধ্যায়ী
  1. যাষ্ক সংকলিত নিরুক্ত (বেদে ব্যবহৃত শব্দাদির অভিধান)
  1. পিঙ্গল বিন্যস্ত ছন্দসূত্র
  1. লগধ বর্ণিত জ্যোতিষ

১৮+ ব্রাহ্মণ[সম্পাদনা]

৯+ আরণ্যক[সম্পাদনা]

১৩+ উপনিষদ[সম্পাদনা]

২০ ধর্মসূত্র (বেদাঙ্গান্তর্ভুক্ত কল্পশ্রেণীভুক্ত নীতিশাস্ত্র সংকলন)[সম্পাদনা]

এ পুঞ্জে নিম্নোক্ত ২০ রচকের রচনাদিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ।[১২]

২+ সর্ব-সমন্বয়ী গ্রন্থ গীতাব্রহ্মসূত্র[সম্পাদনা]

সমন্বয়ী গীতা ১৮ অধ্যায়ে ৭০০ ও ব্রহ্মসূত্র ৪×৪=১৬ অধ্যায়ে ৫৫৫ শ্লোক বা পংক্তি ধারণ ক'রে বর্তমানে নানামুখী ব্যাখ্যাসহ বিভিন্ন ভাষাতে প্রাপ্য ।

অন্যান্য শ্রুতি[সম্পাদনা]

স্মৃতিমালা[সম্পাদনা]

স্মৃতি[৪]গাথায় আছে ন্যূনতম ২৬ এর সমাহার (৬ দর্শন , ১৮ পুরাণ ও ২ ইতিহাস ) ।[৫]

৬+ দর্শন[সম্পাদনা]

১৮+ পুরাণ[সম্পাদনা]

২+ ইতিহাস[সম্পাদনা]

অন্যান্য স্মৃতি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Frazier, Jessica (2011), The Continuum companion to Hindu studies, London: Continuum, ISBN 978-0826499660, pages 1–15
  2. ২.০ ২.১ ২.২ ২.৩ Dominic Goodall (1996), Hindu Scriptures, University of California Press, ISBN 978-0520207783, page ix-xliii
  3. মনুস্মৃতি হচ্ছে সেই ১ যে স্মৃতি হয়েও হিন্দুদের সংহিতারূপে অানুশাসনিক কর্মটি সারছে
  4. ৪.০ ৪.১ Wendy Doniger (1990), Textual Sources for the Study of Hinduism, 1st Edition, University of Chicago Press, ISBN 978-0226618470, pages 2-3; Quote: "The Upanishads supply the basis of later Hindu philosophy; they alone of the Vedic corpus are widely known and quoted by most well-educated Hindus, and their central ideas have also become a part of the spiritual arsenal of rank-and-file Hindus."
  5. ৫.০ ৫.১ ৫.২ ৫.৩ Wendy Doniger O'Flaherty (1988), Textual Sources for the Study of Hinduism, Manchester University Press, ISBN 0-7190-1867-6, pages 2-3
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; klausscrip নামের ref গুলির জন্য কোন টেক্সট প্রদান করা হয়নি
  7. ৭.০ ৭.১ James Lochtefeld (2002), "Smrti", The Illustrated Encyclopedia of Hinduism, Vol. 2: N–Z, Rosen Publishing, ISBN 978-0823931798, page 656-657
  8. ৮.০ ৮.১ Purushottama Bilimoria (2011), The idea of Hindu law, Journal of Oriental Society of Australia, Vol. 43, pages 103-130
  9. ৯.০ ৯.১ Roy Perrett (1998), Hindu Ethics: A Philosophical Study, University of Hawaii Press, ISBN 978-0824820855, pages 16-18
  10. ১০.০ ১০.১ Michael Witzel, "Vedas and Upaniṣads", in: Flood, Gavin, ed. (2003), The Blackwell Companion to Hinduism, Blackwell Publishing Ltd., ISBN 1-4051-3251-5, pages 68-71
  11. ১১.০ ১১.১ William Graham (1993), Beyond the Written Word: Oral Aspects of Scripture in the History of Religion, Cambridge University Press, ISBN 978-0521448208, pages 67-77
  12. https://archive.org/details/ajoymondol297_gmail_20160624

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]