নৃসিংহ পুরাণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নৃসিংহ, কালীঘাট পটচিত্র, ১৯শ শতাব্দী

নৃসিংহ পুরাণ (Sanskrit:नरसिंह पुराण) বা নারসিংহ পুরাণ হল একটি উপপুরাণ। প্রথাগত বিশ্বাস অনুযায়ী, অন্যান্য পুরাণ ও উপপুরাণের মতো এই উপপুরাণটিও কৃষ্ণদ্বৈপায়ন বেদব্যাসের রচনা। স্টাডিজ ইন দি উপপুরাণস্‌ গ্রন্থে রাজেন্দ্রচন্দ্র হাজরা[১] এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে, নরসিংহ পুরাণের আদি পাঠটি খ্রিস্টীয় ৫ম শতাব্দীর শেষ ভাগে রচিত হয়েছিল। যদিও বহু পরে কয়েকটি প্রক্ষিপ্তাংশ সেই পাঠের সঙ্গে যুক্ত হয়। খ্রিস্টীয় ১৪শ শতাব্দী নাগাদ এই উপপুরাণটি তেলুগু ভাষায় অনূদিত হয়। ১৮৮৪ সালে কলকাতার মহাভারত কার্যালয় থেকে গ্রন্থটির মূল পাঠের বঙ্গানুবাদ চন্দ্রনাথ বসু কর্তৃক প্রকাশিত হয়।

বিষয়বস্তু[সম্পাদনা]

নৃসিংহ পুরাণের মুদ্রিত সংস্করণগুলি ৬৮টি অধ্যায়ে বিন্যস্ত। এই গ্রন্থের ৮ম অধ্যায়টি যমগীতা গ্রন্থের তিনটি পাঠান্তরের অন্যতম (অন্য দু’টি পাঠান্তর হল বিষ্ণুপুরাণের ৩য় স্কন্দের ১ম থেকে ৭ম অধ্যায় এবং অগ্নিপুরাণের ৩য় স্কন্দের ৩৮১তম অধ্যায়)। ২২শ ও ২৩শ অধ্যায়ে শুদ্ধোধনের পুত্র বুদ্ধ পর্যন্ত সূর্যবংশীয় এবং উদয়নের পৌত্র ক্ষেমক পর্যন্ত চন্দ্রবংশীয় রাজাদের সংক্ষিপ্ত বংশলতিকা দেওয়া হয়েছে। ৩৬শ থেকে ৫৪শ অধ্যায়ের মধ্যে বিষ্ণুর দশাবতারের উপাখ্যান বর্ণিত হয়েছে। ৫৭শ থেকে ৬১শ অধ্যায়গুলি হারীতসংহিতা বা লঘুহারীতস্মৃতি নামে পৃথক গ্রন্থাকারেও প্রচলিত।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hazra, R.C. (1958). Studies in the Upapuranas, Vol. I (Calcutta Sanskrit College Research Series No.II), Calcutta: Sanskrit College, pp.242-3
  2. Hazra, R.C. (1962). The Upapuranas in S. Radhakrishnan ed. The Cultural Heritage of India, Calcutta: The Ramakrishna Mission Institute of Culture, Vol.II, আইএসবিএন ৮১-৮৫৮৪৩-০৩-১, p.278

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]