বৈশাখী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বৈশাখী
হিন্দু ধর্মীয় সমাবেশ, হরিদ্বার
শিখ মিছিল
পালনকারীশিখ, কিছু[১] হিন্দু
তাৎপর্যসৌর নববর্ষ[২][৩][৪], Quote: "The Sikh new year, Vaisakhi, occurs at Sangrand in April, usually on the thirteenth day."[৫] ফসল কাটার উৎসব, খালসার জন্ম
উদযাপনমেলা ও শোভাযাত্রা, মন্দিরের সাজসজ্জা
পালনধর্মীয় সমাবেশ ও অনুশীলন
সম্পর্কিতদক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় সৌর নববর্ষ

বৈশাখী বৈশাখ মাসের প্রথম দিনটিকে চিহ্নিত করে এবং সাধারণত ১৩ই বা ১৪ই এপ্রিল[২][৩][৪][৬][৭][৮][৯] হিন্দু ও শিখ সৌর নববর্ষ হিসাবে পালিত হয়।[১০][১১][১২] এটি অতিরিক্তভাবে অনেক ভারতীয়দের জন্য একটি বসন্ত ফসলের উৎসব।[১]

শিখদের জন্য, নববর্ষের তাৎপর্য ছাড়াও,[৩] সে সময়ে শিখরা কীর্তন করে, স্থানীয় গুরুদ্বার ও সম্প্রদায়ের মেলায় যায়, নগর কীর্তন মিছিল করে, নিশান সাহেব পতাকা উত্তোলন করে এবং সামাজিকতা ও উৎসবের খাবার বন্টন করতে সমবেত হয়।[২][১৩][১৪] বৈশাখীর সময়, পাঞ্জাব অঞ্চলে ঘটে যাওয়া শিখ ধর্ম ও ভারতীয় উপমহাদেশের ইতিহাসের প্রধান ঘটনাগুলি পালন করা হয়।[১৩][১৫] বৈশাখী একটি প্রধান শিখ উৎসব হিসাবে শিখ ধর্মের দশম গুরু গুরু গোবিন্দ সিংয়ের কর্তৃক ১৬৯৯ সালের ৩০শে মার্চ খালসা আদেশের জন্মকে চিহ্নিত করে।[১৬][১৭][১৮] পরবর্তীতে, রঞ্জিত সিংকে ১৮০১ সালের ১২ই এপ্রিল শিখ সাম্রাজ্যের মহারাজা হিসাবে ঘোষণা করা হয় (বৈশাখীর সাথে মিলিয়ে), একটি ঐক্যবদ্ধ রাজনৈতিক রাজ্য তৈরি করা হয়,[১৯] সেই দিনও বৈশাখী ছিল, যখন বেঙ্গল আর্মি অফিসার রেজিনাল্ড ডায়ার তার সৈন্যদেরকে প্রতিবাদী জনতার উপর গুলি করার নির্দেশ দেন। এই ঘটনা জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড হিসাবে পরিচিত হয়; গণহত্যাটি ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাসে প্রভাবশালী প্রমাণিত হয়েছিল।[১৩]

এই ছুটিটিকে হিন্দু বিক্রম সংবৎ ক্যালেন্ডারের উপর ভিত্তি করে বৈশাখ সংক্রান্তি নামেও ডাকা হয় এবং ভারতের অন্যান্য অংশে বিভিন্ন আঞ্চলিক নামে পরিচিত।[২০] উৎসবটি অনেক হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য গঙ্গা, ঝিলামকাবেরীর মতো পবিত্র নদীতে স্নান করার, মন্দিরে যাওয়ার, বন্ধুদের সাথে দেখা করার, অন্যান্য উৎসবে অংশ নেওয়া এবং বিশেষ করে হাত পাখা, জলের কলস ও মৌসুমি ফলের বাধ্যতামূলক দান করার একটি উপলক্ষ।[২১] হিন্দু তীর্থস্থানে সম্প্রদায়ের মেলা অনুষ্ঠিত হয়। অনেক এলাকায় মন্দিরের দেবতাদের শোভাযাত্রা বের করা হয়।[২২]

তারিখ[সম্পাদনা]

২১তম শতকে প্রতি বছর ১৩ই বা ১৪ই এপ্রিল বৈশাখী পালন করা হয়।[২৩] ১৮০১ খ্রিস্টাব্দে এটি ১১ই এপ্রিল পালিত হয়েছিল।[২৪] এর কারণ বৈশাখী ও অন্যান্য সংক্রান্তির তারিখ বছরের পর বছর ধীরে ধীরে পরিবর্তন হতে থাকে। বৈশাখী ২৯৯৯ সালের ২৯শে এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে।[২৫] উৎসবটি ভারতীয় উপমহাদেশের অন্যান্য অঞ্চলে বৈশাখের প্রথম দিনে পালিত পয়লা বৈশাখ, বোহাগ বিহু, বিষু, পুথান্দু ইত্যাদির মত নববর্ষের উৎসবের সাথে মিলে যায়।[১][২৬]

হিন্দুধর্ম[সম্পাদনা]

নদীতে স্নান একটি বৈশাখী ঐতিহ্য

আসাম, বাংলা, বিহার, হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা, কেরল, ওড়িশা, পাঞ্জাব[২৭] তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড ও ভারতের অন্যান্য অংশের[১][২৮] কিছু হিন্দুদের জন্য বৈশাখের প্রথম দিনটি ঐতিহ্যবাহী সৌর নববর্ষকে চিহ্নিত করে।[২৮][২৯][৩০] যাইহোক, এটি সমস্ত হিন্দুদের জন্য সর্বজনীন নববর্ষ নয়। কারো কারো জন্য নতুন বছরের উৎসব পাঁচ দিনের দীপাবলি উৎসবের সাথে মিলে যায়, যেমন গুজরাত ও তার কাছাকাছি অঞ্চল।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Karen Pechilis; Selva J. Raj (২০১৩)। South Asian Religions: Tradition and Today। Routledge। পৃষ্ঠা 48–49। আইএসবিএন 978-0-415-44851-2 
  2. K.R. Gupta; Amita Gupta (২০০৬)। Concise Encyclopaedia of India। Atlantic Publishers। পৃষ্ঠা 998। আইএসবিএন 978-81-269-0639-0 
  3. "Vaisakhi and the Khalsa"bbc.com। BBC Religions (2009)। 
  4. William Owen Cole; Piara Singh Sambhi (১৯৯৫)। The Sikhs: Their Religious Beliefs and Practices। Sussex Academic Press। পৃষ্ঠা 63। আইএসবিএন 978-1-898723-13-4 
  5. {Cite book|url=https://books.google.com/books?id=cg8iAQAAMAAJ&q=Nepalese+New+Year+baisakhi&pg=PA13%7Ctitle=International Commerce|date=1970|publisher=Bureau of International Commerce.|language=en}}
  6. Harjinder Singh। Vaisakhi। Akaal Publishers। পৃষ্ঠা 2। 
  7. Bodiwala, Suresh (নভেম্বর ১৮, ২০১৭)। "Sikh Religious Society Organizes Two -day Conference in Chicago to Implement Mool Nanakshahi Calendar"Chicago Tribune। নভেম্বর ২০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. Cath Senker (২০০৭)। My Sikh Year। The Rosen Publishing Group। পৃষ্ঠা 10। আইএসবিএন 978-1-4042-3733-9 , At Vaisakhi, Sikhs remember how their community, the Khalsa, first began."
  9. Knut A. Jacobsen (২০০৮)। South Asian Religions on Display: Religious Processions in South Asia and in the Diaspora। Routledge। পৃষ্ঠা 192। আইএসবিএন 978-1-134-07459-4 , Quote: "Vaisakhi is also a Hindu festival, but for the Sikhs, it celebrates the foundation of the Khalsa in 1699."
  10. Harbans Singh (১ জানুয়ারি ১৯৯৮)। The Encyclopaedia of Sikhism: S-Z। Publications Bureau। আইএসবিএন 978-81-7380-530-1 
  11. Rinehart, Robin; Rinehart, Robert (২০০৪)। Contemporary Hinduism: Ritual, Culture, and Practice (ইংরেজি ভাষায়)। ABC-CLIO। আইএসবিএন 978-1-57607-905-8 
  12. Kelly, Aidan A.; Dresser, Peter D.; Ross, Linda M. (১৯৯৩)। Religious Holidays and Calendars: An Encyclopaedic Handbook (ইংরেজি ভাষায়)। Omnigraphics, Incorporated। আইএসবিএন 978-1-55888-348-2 
  13. S. R. Bakshi, Sita Ram Sharma, S. Gajnani (1998) Parkash Singh Badal: Chief Minister of Punjab. APH Publishing pages 208–209
  14. Jonathan H. X. Lee; Kathleen M. Nadeau (২০১১)। Encyclopedia of Asian American Folklore and Folklife। ABC-CLIO। পৃষ্ঠা 1012–1013। আইএসবিএন 978-0-313-35066-5 
  15. William Owen Cole; Piara Singh Sambhi (১৯৯৫)। The Sikhs: Their Religious Beliefs and Practices। Sussex Academic Press। পৃষ্ঠা 135–136। আইএসবিএন 978-1-898723-13-4 
  16. Seiple, Chris (২০১৩)। The Routledge handbook of religion and security। New York: Routledge। পৃষ্ঠা 96। আইএসবিএন 978-0-415-66744-9 
  17. Pashaura Singh; Louis E. Fenech (২০১৪)। The Oxford Handbook of Sikh Studies। Oxford University Press। পৃষ্ঠা 236–237। আইএসবিএন 978-0-19-969930-8 
  18. Harkirat S. Hansra (২০০৭)। Liberty at Stake, Sikhs: the Most Visible। iUniverse। পৃষ্ঠা 28–29। আইএসবিএন 978-0-595-43222-6 
  19. The Encyclopaedia of Sikhism ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৮ মে ২০১৪ তারিখে, section Sāhib Siṅgh Bedī, Bābā (1756–1834).
  20. Christian Roy (২০০৫)। Traditional Festivals: A Multicultural Encyclopedia। ABC-CLIO। পৃষ্ঠা 479–480। আইএসবিএন 978-1-57607-089-5 
  21. Agarwal, Sanjay (২০১০)। Daan and Other Giving Traditions in India: The Forgotten Pot of Gold (ইংরেজি ভাষায়)। AccountAid India। আইএসবিএন 978-81-910854-0-2 
  22. Śarmā, Gautama (১৯৮৪)। Folklore of Himachal Pradesh (ইংরেজি ভাষায়)। National Book Trust, India। 
  23. "Vaisakhi 2021: Right Info About Satnaam Holds the Key to Sachkhand"S A NEWS (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৪-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-১১ 
  24. Singh, Harbans (১৯৮০)। Maharaja Ranjit Singh (ইংরেজি ভাষায়)। Sterling। 
  25. Bhatia, Ramaninder K. (৭ এপ্রিল ২০১১)। "Myth behind Baisakhi: Baisakhi not always on April 13"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-০১ 
  26. Crump, William D. (2014), Encyclopedia of New Year's Holidays Worldwide, MacFarland, page 114
  27. Crump, William D. (2014) Encyclopedia of New Year's Holidays Worldwide. McFarland [১]
  28. "BBC – Religion: Hinduism – Vaisakhi"BBC। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১২ 
  29. Rao, S. Balachandra (১ জানুয়ারি ২০০০)। Indian Astronomy: An Introduction। Universities Press। আইএসবিএন 9788173712050। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ – Google Books-এর মাধ্যমে। 
  30. Tribune 15 April 2011 Baisakhi fervour at Haridwar Lakhs take dip in holy Ganga [২]