মোক্ষ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Moksha
এর অনুবাদসমূহ
ইংরেজিEmancipation, liberation, release
সংস্কৃতमोक्ष
(IAST: mokṣa)
বালিᬫᭀᬓ᭄ᬲ
(moksa)
বাংলামোক্ষ
(mokkho)
গুজরাটিમોક્ષ
(mōkṣa)
হিন্দিमोक्ष
(moksh)
জাভানিꦩꦺꦴꦏ꧀ꦱ
(moksa)
কান্নাডাಮೋಕ್ಷ
(mōkṣa)
মালায়ামമോക്ഷം
(mōkṣaṁ)
নেপালিमोक्ष
(moksh)
ওড়িয়াମୋକ୍ଷ
(mokhya)
পাঞ্জাবিਮੋਕਸ਼
(mōkaśa)
তামিলதுறவு-முக்தி-வீடுபேறு-விடுதலை
(tuṟavu-mukti-vīṭupēṟu-viḍutalai)
তেলেগুమోక్షం
(moksham)
হিন্দুধর্মের সূচিপত্র

মোক্ষ (/ˈmkʃə/; সংস্কৃত: मोक्ष, mokṣa), বিমোক্ষ, বিমুক্তি বা মুক্তি নামেও পরিচিত,[১] হল হিন্দুধর্ম, বৌদ্ধধর্ম, জৈন ধর্ম ও শিখ ধর্মের একটি পরিভাষা, যার দ্বারা বিভিন্ন প্রকারের দাসত্ব মুক্তি, বন্ধনমুক্তি, জ্ঞানলাভ, স্বাধীনতা লাভ ও পরিত্রাণ লাভ কে বোঝানো হয়।[২] এটি একটি আত্মার মুক্তি ও পরকাল বিষয়ক ধারণা যার দ্বারা সংসার নামক জন্ম-মৃত্যুর দ্বারা আবর্তিত পুনর্জন্মের চক্র হতে জীবাত্মার মুক্তিলাভ করে পরমাত্মার সঙ্গে মিলিত হওয়াকে বোঝানো হয়।[৩] জ্ঞানতাত্ত্বিক ও মনস্তাত্ত্বিক দিক বিবেচনায়, মোক্ষ হল অজ্ঞানতা হতে মুক্তিলাভ, যার মানে হলঃ আত্ম-অনুধাবন, আত্ম-সংশোধন ও আত্ম -জ্ঞান।[৪]

হিন্দু ধর্মের ঐতিহ্যে মোক্ষ হলো একটি কেন্দ্রীয় মতবাদ[৫] এবং মানব জীবনে তিনটি পন্থার মাধ্যমে অর্জিত চূড়ান্ত লক্ষ্য; এই তিনটি পন্থা হল ধর্ম (পূণ্যময়, সঠিক ও নৈতিক জীবন), অর্থ (বস্তুগত উন্নতি, উপার্জনের নিরাপত্তা, জীবিকা) এবং কাম (আনন্দ, উদ্দীপনা, এবং আবেগের পূর্ণতা)।[৬] হিন্দু ধর্মে এই চারটি ধারণাকে একত্রে পুরুষার্থ বলা হয়[৭]

হিন্দু ধর্মের কিছু পাঠশালায় মোক্ষকে অন্যান্য কিছু পরিভাষার সমার্থক এবং পরস্পরের বিকল্প শব্দ হিসেবে ব্যবহার করা হয় এগুলো হল বিমোক্ষ, বিমুক্তি, কৈবল্য, অপবর্গ, মুক্তি, নিঃশ্রেয়াস ও নির্বাণ।[৮] তবে মোক্ষ ও নির্বাণ হিসেবে পরিভাষাটির পার্থক্য রয়েছে এবং হিন্দু, বৌদ্ধ ও জৈন ধর্মের বিভিন্ন পাঠ্যশাস্ত্রে এর দ্বারা চেতনার বিভিন্ন অবস্থাকে বোঝানো হয়।[৯] বৌদ্ধধর্মে নির্বাণ পরিভাষাটি অধিক গ্রহণযোগ্য,[১০] এবং হিন্দুধর্মে সে স্থলে মোক্ষ শব্দটি ব্যবহার করা হয়।[১১]


আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Soka Gakkai Dictionary of Buddhism, vimoksha"। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  2. John Bowker, The Oxford Dictionary of World Religions, Oxford University Press, আইএসবিএন ৯৭৮-০১৯২১৩৯৬৫৮, p. 650
  3. Sharma 2000, পৃ. 113।
  4. See:
  5. John Tomer (2002), Human well-being: a new approach based on overall and ordinary functionings, Review of Social Economy, 60(1), pp 23-45; Quote - "The ultimate aim of Hindus is self-liberation or self-realization (moksha)."
  6. See:
  7. See:
  8. The Soka Gakkai Dictionary of Buddhism: "Vimoksha [解脱]" (Skt.; Jpn. gedatsu). Emancipation, release, or liberation. The Sanskrit words vimukti, mukti, and moksha also have the same meaning. Vimoksha means release from the bonds of earthly desires, delusion, suffering, and transmigration. While Buddhism sets forth various kinds and stages of emancipation, or enlightenment, the supreme emancipation is nirvana, a state of perfect quietude, freedom, and deliverance. See The Soka Gakkai Dictionary of Buddhism, vimoksha ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে
  9. See:
    • Loy, David (1982), Enlightenment in Buddhism and Advaita Vedanta: Are Nirvana and Moksha the Same?, International Philosophical Quarterly, 23 (1), pp 65–74;
    • T. Chatterjea (2003), Knowledge and Freedom in Indian Philosophy, আইএসবিএন ৯৭৮-০৭৩৯১০৬৯২১, pp 89; Quote - "In different philosophical systems moksa appears in different names, such as apavarga, nihsreyasa, nirvana, kaivalya, mukti, etc. These concepts differ from one another in detail."
  10. Peter Harvey (2013), An Introduction to Buddhism: Teachings, History and Practices, আইএসবিএন ৯৭৮-০৫২১৮৫৯৪২৪, Cambridge University Press
  11. Knut Jacobsen, in The Continuum Companion to Hindu Studies also known as Induition Samosa Samsara(Editor: Jessica Frazier), আইএসবিএন ৯৭৮-০-৮২৬৪-৯৯৬৬-০, pp 74-83

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • Padmanabh Jaini (১৯৮০)। Wendy Doniger, সম্পাদক। Karma and Rebirth in Classical Indian Traditions। University of California Press। আইএসবিএন 978-0-520-03923-0 
  • Harvey, Graham (২০১৬), Religions in Focus: New Approaches to Tradition and Contemporary Practices, Routledge 
  • Harvey, Peter (২০১৩), An Introduction to Buddhism, Cambridge University Press 
  • Makransky, John J. (১৯৯৭), Buddhahood Embodied: Sources of Controversy in India and Tibet, SUNY 
  • Rahula, Walpola (২০০৭), What the Buddha Taught, Grove Press 
  • Spiro, Melford E. (১৯৮২), Buddhism and Society: A Great Tradition and Its Burmese Vicissitudes, University of California Press. 

ওয়েব উৎস[সম্পাদনা]

উৎস[সম্পাদনা]

  • Sharma, Arvind (২০০০), Classical Hindu Thought: An Introduction, Oxford University Press 

টেমপ্লেট:Indian philosophy

টেমপ্লেট:Heaven