উপপুরাণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

উপপুরাণ হল এক ধরনের হিন্দু ধর্মগ্রন্থ। গুরুত্বের দিক থেকে পুরাণ সাহিত্যে এগুলির স্থান মহাপুরাণগুলির ঠিক পরেই। এগুলির অধিকাংশই মহাপুরাণগুলির পরবর্তীকালে রচিত। তবে এগুলির কয়েকটি আকারে বৃহৎ ও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।[১]

মহাপুরাণগুলির মতো উপপুরাণগুলিও সংখ্যায় ১৮টি বলে দাবি করা হয়। যদিও বৃহদ্ধর্ম পুরাণ-এ বলা হয়েছে, উপপুরাণের সংখ্যায় অনেক। তবে মহাপুরাণগুলির নাম নিয়ে যেমন ঐকমত্য দেখা যায়, উপপুরাণগুলির ক্ষেত্রে তা হয় না। কূর্ম পুরাণ, গরুড় পুরাণ, বৃহদ্ধর্ম পুরাণ, দেবীভাগবত পুরাণ, একাম্র পুরাণ, হেমাদ্রির চতুর্বর্গচিন্তামণিবল্লালসেনের দানসাগর-এ উপপুরাণগুলির তালিকা পাওয়া যায়। এই সব গ্রন্থে দেওয়া তালিকা থেকে ১৮-এর অনেক বেশি সংখ্যক উপপুরাণের কথা জানা যায়। সংস্কৃত ধর্মগ্রন্থগুলিতে বিভিন্ন তালিকায় প্রায় একশোটি উপপুরাণের নাম পাওয়া যায়। তবে এগুলির অধিকাংশই এখন অবলুপ্ত।[১]

তালিকা[সম্পাদনা]

কূর্ম পুরাণের তালিকা[সম্পাদনা]

কূর্ম পুরাণ-এ (পূর্বভাগ, ১। ১৭-২০) উপপুরাণের নিম্নোক্ত তালিকাটি পাওয়া যায়:[১]

  1. আদ্যা পুরাণ (সনৎকুমার)
  2. নরসিংহ পুরাণ
  3. স্কন্দ পুরাণ
  4. শিবধর্ম পুরাণ
  5. দুর্বাসা পুরাণ
  6. নারদীয় পুরাণ
  7. কপিল পুরাণ
  8. বামন পুরাণ
  9. ঔশানস পুরাণ
  10. ব্রহ্মাণ্ড পুরাণ
  11. বরুণ পুরাণ
  12. কালিকা পুরাণ
  13. মহেশ্বর পুরাণ
  14. সাম্ব পুরাণ
  15. সৌর পুরাণ
  16. পরাশর পুরাণ
  17. মারীচ পুরাণ
  18. ভার্গব পুরাণ

বৃহদ্ধর্ম পুরাণের তালিকা[সম্পাদনা]

বৃহদ্ধর্ম পুরাণ-এ উপপুরাণের নিম্নোক্ত তালিকাটি পাওয়া যায়:[১]

  1. আদি পুরাণ
  2. আদিত্য পুরাণ
  3. বৃহন্নারদীয় পুরাণ
  4. নারদীয় পুরাণ
  5. নন্দীশ্বর পুরাণ
  6. বৃহন্নন্দীশ্বর পুরাণ
  7. সাম্ব পুরাণ
  8. ক্রিয়াযোগসার
  9. কালিকা পুরাণ
  10. ধর্ম পুরাণ
  11. বিষ্ণুধর্মোত্তর পুরাণ
  12. শিবধর্ম পুরাণ
  13. বিষ্ণুধর্ম পুরাণ
  14. বামন পুরাণ
  15. বরুণ পুরাণ
  16. নরসিংহ পুরাণ
  17. ভার্গব পুরাণ
  18. বৃহদ্ধর্ম পুরাণ

সাম্প্রদায়িক বিভাজন[সম্পাদনা]

মহাপুরাণগুলির মতো অধিকাংশ উপপুরাণও উপকরণগত দিক থেকে সাম্প্রদায়িক চরিত্রের। উপপুরাণগুলিকে সম্প্রদায়ভেদে বৈষ্ণব, শাক্ত, শৈব, সৌর, গাণপত্য ও অসাম্প্রদায়িক - এই কয়টি ভাগে ভাগ করা যায়।[১]

বৈষ্ণব উপপুরাণ[সম্পাদনা]

বৈষ্ণব উপপুরাণগুলির মধ্যে প্রধান: বিষ্ণুধর্ম পুরাণ, বিষ্ণুধর্মোত্তর পুরাণ, নরসিংহ পুরাণ, বৃহন্নারদীয় পুরাণক্রিয়াযোগসার[১]

শাক্ত উপপুরাণ[সম্পাদনা]

শাক্ত উপপুরাণগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য দেবী পুরাণ, কালিকা পুরাণ, মহাভাগবত পুরাণ, দেবীভাগবত পুরাণ, ভগবতী পুরাণ, চণ্ডী পুরাণ (বা চণ্ডিকা পুরাণ) ও সতী পুরাণ[১]

শৈব উপপুরাণ[সম্পাদনা]

শৈব উপপুরাণগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল শিব পুরাণ, সৌর পুরাণ, শিবধর্ম পুরাণ, শিবধর্মোত্তর পুরাণ, শিবরহস্য পুরাণ, একাম্র পুরাণ, পরাশর পুরাণ, বশিষ্ঠলৈঙ্গ পুরাণ বিখ্যাদ পুরাণ[১]

শিবধর্ম পুরাণ-এ শুধুমাত্র ধর্মীয় ক্রিয়াকাণ্ডের উল্লেখ আছে। এটি একটি ধর্মশাস্ত্র হিসেবে উল্লিখিত হয়েছে।[২]

সৌর উপপুরাণ[সম্পাদনা]

সাম্ব পুরাণ হল একমাত্র সৌর উপপুরাণ।[১]

গাণপত্য উপপুরাণ[সম্পাদনা]

মুদগল পুরাণগণেশ পুরাণ হল দুটি গাণপত্য উপপুরাণ।[১]

অসাম্প্রদায়িক পুরাণ[সম্পাদনা]

ভবিষ্যোত্তর পুরাণ, কপিল পুরাণবৃহদ্ধর্ম পুরাণ কোনো বিশেষ ধর্মীয় সম্প্রদায়ের সঙ্গে যুক্ত নয়।[১]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Hazra, R.C. (1962, reprint 2003). The Upapuranas in S. Radhakrishnan (ed.) The Cultural Heritage of India, Vol.II, Kolkata:The Ramakrishna Mission Institute of Culture, আইএসবিএন ৮১-৮৫৮৪৩-০৩-১, pp.271-286
  2. Rocher, Ludo (১৯৮৬)। "The Purāṇas"। in Jan Gonda (ed.)। A History of Indian Literature। Vol.II, Epics and Sanskrit religious literature, Fasc.3। Wiesbaden: Otto Harrassowitz Verlag। পৃ: ২২৮। আইএসবিএন 3-447-02522-0