মন্ত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ঔম শব্দটিকে একটি মন্ত্র হিসেবে ধরা হয় বেদান্তে
তিব্বতে, অনেক বৌদ্ধধর্মাবলম্বী ধ্যান হিসেবে পাথরে মন্ত্র লিখেন

মন্ত্র (/ˈmæntrə, ˈmɑːn-, ˈmʌn-/;[১] সংস্কৃত: मन्त्र) বলতে বোঝায় একটি ঐশ্বরীক বাচনভঙ্গী, ভক্তিমূলক শব্দ, বা শব্দাংশ, বাক্য, ধ্বনি বা শব্দের দল। যাতে বিশ্বাস করা হয় ঐশ্বরিক ও মনস্তাত্ত্বিক এবং আধ্যাত্মিক শক্তি রয়েছে[২][৩]। মন্ত্রের হয়ত কোন বাক্যরীতি বা আক্ষরিক অর্থ নেই; মন্ত্রের আধ্যাত্মিক মূল্য বোঝা যায় যখন এটি শোনা, দেখা বা মনের গভীরে ধারন করা হয়।[২][৪]

প্রথম দিকের মন্ত্রগুলো তৈরী করা হয়েছিল বেদের সময় ভারতীয় হিন্দুদের দ্বারা এবং এগুলো প্রায় ৩০০০ বছর পুরনো[৫]। এখন বিভিন্ন হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন্য এবং শিখ ধর্মের স্কুল গুলোতে এগুলো দেখা যায়[৩][৬]। একই ধরনের ইশ্বরের স্তবস্তুতি, গুনকীর্ত্তন, ভক্তিমূলক সঙ্গীত রচনা এবং ধারনা দেখা যায় খৃষ্ট ধর্ম[২], তাওইজম এবং জোরোআস্ট্রিয়ানিজমসহ[৭] অন্যান্য জায়গায়।

তথ্য সূত্র[সম্পাদনা]

  1. "mantra". Random House Webster's Unabridged Dictionary.
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; jgtim নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. Feuerstein, G. (2003), The Deeper Dimension of Yoga. Shambala Publications, Boston, MA
  4. James Lochtefeld, The Illustrated Encyclopedia of Hinduism, Volume 2, আইএসবিএন ০-৮২৩৯-২২৮৭-১, pages 422-423
  5. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; staal নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  6. Nesbitt, Eleanor M. (2005), Sikhism: a very short introduction, Oxford University Press, আইএসবিএন ৯৭৮-০-১৯-২৮০৬০১-৭
  7. Boyce, M. (2001), Zoroastrians: their religious beliefs and practices, Psychology Press