অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস
ඇන්ජෙලෝ මැතිව්ස්
Angelo Mathews.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম অ্যাঞ্জেলো ডেভিস ম্যাথিউস
জন্ম (১৯৮৭-০৬-০২) ২ জুন ১৯৮৭ (বয়স ৩০)
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ডাকনাম কালুয়া, অ্যাঞ্জি
উচ্চতা ৬ ফুট ০ ইঞ্চি (১.৮৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকা অল-রাউন্ডার, অধিনায়ক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১১২)
৪ জুলাই ২০০৯ বনাম পাকিস্তান
শেষ টেস্ট ১২ জানুয়ারি ২০১৭ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৩৭)
৩১ ডিসেম্বর ২০০৮ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ ওডিআই ৩১ আগস্ট ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই শার্ট নং ৬৯
শেষ টি২০আই ২২ জানুয়ারি ২০১৭ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
২০১০ কলকাতা নাইট রাইডার্স
২০১২-২০১৩ সাহারা পুনে ওয়ারিয়র্স
২০১২-বর্তমান নাগেনাহিরা নাগাস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই টি২০আই এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৬৫ ১৮০ ৬৮ ৮৫
রানের সংখ্যা ৪,৪৭০ ৪,৪৯২ ১,০৪৭ ৬,২৪০
ব্যাটিং গড় ৪৬.০৮ ৪০.১০ ২৯.০৮ ৫৪.২৬
১০০/৫০ ৭/২৬ ১/৩২ -/৫ ১৪/৩৩
সর্বোচ্চ রান ১৬০ ১৩৯* ৮১* ২৭০
বল করেছে ৩,৮২৮ ৪,৮৯৭ ৯১৯ ৫,৩৭৫
উইকেট ৩৩ ১১১ ৩৬ ৫৬
বোলিং গড় ৫২.৬৬ ৩৪.০৪ ২৮.৬৯ ৪৫.১৬
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ৪/৪৪ ৬/২০ ৩/১৬ ৫/৪৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪৯/– ৪৩/– ২৩/– ৫২/–
উৎস: ইএসপিএন ক্রিকইনফো, ২২ জানুয়ারি ২০১৭

অ্যাঞ্জেলো ডেভিস ম্যাথিউস (সিংহলি: ඇන්ජෙලෝ මැතිව්ස්, তামিল: அஞ்செலோ மாத்தியூஸ்; জন্ম: ২ জুন, ১৯৮৭) কলম্বোয় জন্মগ্রহণকারী শ্রীলঙ্কার প্রথিতযশা ক্রিকেটার। বর্তমানে তিনি শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্টএকদিনের আন্তর্জাতিক খেলায় অধিনায়ক হিসেবে আসীন রয়েছেন। এরপূর্বে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকেও অধিনায়কত্ব করেছেন তিনি।[১] ২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলেরও অধিনায়ক ছিলেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস[২] বিখ্যাত বোলার চামিন্দা ভাসের ন্যায় তিনিও আনুষ্ঠানিক শিক্ষাগ্রহণ করেন কলম্বোর সেন্ট জোসেফ'স কলেজ থেকে। জাফনার তামিল পিতা ও সিংহলীজ মাতার সন্তানরূপে কলম্বোয় জন্মগ্রহণ করেন।

ক্রীড়া জীবন[সম্পাদনা]

ম্যাথিউস নভেম্বর, ২০০৮ সালে জিম্বাবুয়ে দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষিক্ত হন। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে কলকাতা নাইট রাইডার্সের পক্ষ হয়ে খেলেন। চতুর্থ মৌসুমে তিনি $৯৫০,০০০ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে সাহারা পুনে ওয়ারিয়র্স দলের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হন। ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আঘাতপ্রাপ্তি ঘটায় আট সপ্তাহের জন্য আইপিএলে অনুপস্থিত ছিলেন।

অধিনায়কত্ব[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের পর কুমার সাঙ্গাকারাকে অধিনায়কের পদ থেকে অব্যাহতি নেন। এরপর থেকেই শ্রীলঙ্কার পরবর্তী অধিনায়করূপে বিশ্বব্যাপী সফর করতে থাকেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস।[৩] সুন্দর নেতৃত্বের গুণাবলী সাঙ্গাকারার কাছ থেকে ম্যাথিউস পাচ্ছিলেন। সাঙ্গাকারাও তার পদত্যাগের পর তাঁকে অধিনায়কত্বের তালিম দিচ্ছিলেন। তিলকরত্নে দিলশানকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেয়া হয়। তাকে অবাক করে নির্বাচকমণ্ডলী থিলিনা কাদম্বিকে সহ-অধিনায়ক হিসেবে মনোনীত করা হয়। অথচ, কাদম্বি স্বল্পকালীন সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কা দলে খেলছেন কিংবা শ্রীলঙ্কার পক্ষ হয়ে ২০১১ সালে ইংল্যান্ড সফরে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটটুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক দলের সহ-অধিনায়কত্ব করেছেন।[৪] কিন্তু দিলীপ মেন্ডিসের নেতৃত্বাধীন নির্বাচিত কর্তৃপক্ষ কাদম্বি’র ব্যাটিংয়ের দুরবস্থায় তাকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন সহ-অধিনায়ক হিসেবে ম্যাথিউসের নাম প্রস্তাব করে।[৫] জুলাই, ২০১১ সালের শেষদিকে ম্যাথিউস দিলশানের সহ-অধিনায়ক হন।[৬] দিলশানকে অব্যাহতি দিলেও তিনি স্ব-পদে বহাল থেকে জানুয়ারি, ২০১২ সালে মাহেলা জয়াবর্ধনের পাশে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।[৭]

আন্তর্জাতিক শতকসমূহ[সম্পাদনা]

টেস্ট শতকসমূহ[সম্পাদনা]

ক্র.নং রান প্রতিপক্ষ অবস্থান ইনিংস টেস্ট মাঠ দেশ/বিদেশ তারিখ ফলাফল তথ্যসূত্র
&10000000000001051000000 ১০৫*  অস্ট্রেলিয়া ৩/৩ সিংহলীজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ড (এসএসসি), কলম্বো দেশে 02011-০৯-16১৬ সেপ্টেম্বর ২০১১ ড্র [৮]
&10000000000001571000000 ১৫৭*  পাকিস্তান ১/৩ জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়াম, আবুধাবি বিদেশে 02014-০১-03৩ জানুয়ারি ২০১৪ ড্র [৯]
&10000000000001020000000 ১০২  ইংল্যান্ড ১/২ লর্ড’স, লন্ডন বিদেশে 02014-০৬-15১৫ জুন ২০১৪ ড্র [১০]
&10000000000001600000000 ১৬০  ইংল্যান্ড ২/২ হেডিংলি, লিডস বিদেশে 02014-০৬-23২৩ জুন ২০১৪ জয় [১১]

ওডিআই শতক(সমূহ)[সম্পাদনা]

ক্র.নং রান প্রতিপক্ষ অবস্থান মাঠ দেশ/বিদেশ/নিরপেক্ষ তারিখ ফলাফল তথ্যসূত্র
&10000000000001390000000 ১৩৯*  ভারত জেএসসিএ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, রাঁচি বিদেশ ১৬ নভেম্বর ২০১৪ পরাজয় [১২]

আন্তর্জাতিকে ৫-উইকেট প্রাপ্তি[সম্পাদনা]

ওডিআইয়ে ৫-উইকেট[সম্পাদনা]

# পরিসংখ্যান খেলা প্রতিপক্ষ মাঠ শহর দেশ সাল
৬/২০ ১২  ভারত আর. প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম কলম্বো শ্রীলঙ্কা ২০০৯

পুরস্কার[সম্পাদনা]

একদিনের আন্তর্জাতিক পুরস্কার[সম্পাদনা]

ম্যান অব দ্যা ম্যাচ পুরস্কার[সম্পাদনা]

ক্রমিক নম্বর প্রতিপক্ষ মাঠ তারিখ ম্যাচে অবদান
জিম্বাবুয়ে শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর ১২ জানুয়ারি ২০০৯ ৫২* (৯৬ বল: ১x৪, ২x৬); ৬-০-১৯-১
ভারত আর. প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম, কলম্বো ১২ সেপ্টেম্বর ২০০৯ ১৯ (৩৭ বল: ১x৪); ৬-০-২০-৬
অস্ট্রেলিয়া মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ৩ নভেম্বর ২০১০ ব্যাট করেননি; ৭৭* (৮৪ বল: ৮x৪, ১x৬);
পাকিস্তান আর. প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম, কলম্বো ১৮ জুন ২০১২ ১০-০-৪১-০; ৮০* (৭৬ বল: ৪x৪, ২x৬);
ভারত জেএসসিএ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম কমপ্লেক্স, রাঁচি ১৬ নভেম্বর ২০১৪ ৭–১–৩৩–২; ১৩৯* (১৪১ বল: ৬x৪, ১০x৬);

টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক পুরস্কার[সম্পাদনা]

ম্যান অব দ্য ম্যাচ পুরস্কার[সম্পাদনা]

ক্রমিক নম্বর প্রতিপক্ষ মাঠ তারিখ ম্যাচে অবদান
ভারত বিউসেজাউর স্টেডিয়াম, গ্রস ইসলেট ১১ মে ২০১০ ৩-০-২৯-০; ৪৬ (৩৭ বল: ৩x৪, ২x৬);
নেদারল্যান্ডস জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম ২৪ মার্চ ২০১৪ ৪-০-১৬-৩;
ওয়েস্ট ইন্ডিজ শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা ৩ এপ্রিল ২০১৪ ১-০-৪-০; ৪০ (২৩ বল: ৩x৪, ২x৬);

সম্মাননা[সম্পাদনা]

নভেম্বর, ২০১০ সালে শ্রীলঙ্কার 'লিভিং ম্যাগাজিনের' পক্ষ থেকে বর্ষসেরা ব্যক্তিত্ব নির্বাচিত হন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস।[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mathews takes over as Sri Lanka's T20 captain" (ইংরেজি ভাষায়)। Wisden India। ২৪ অক্টোবর ২০১২। 
  2. Gunaratne, Rochelle Palipane (১ সেপ্টেম্বর ২০০৯)। "Angelo Mathews – A phenomenal inspiration!" (PDF)। The Island (ইংরেজি ভাষায়)। সংগৃহীত ৩০ মার্চ ২০১৩ 
  3. "Sri Lanka appoint new captain, Sangakkara not retained as Test skipper" (ইংরেজি ভাষায়)। Island Cricket। সংগৃহীত ১৮ এপ্রিল ২০১১ 
  4. "Fit-again Angelo Mathews overlooked for vice-captaincy" (ইংরেজি ভাষায়)। Island Cricket। ৩০ জুন ২০১১-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত ৯ জুলাই ২০১১ 
  5. "Vice captain Kandamby dropped, Karunaratne to debut" (ইংরেজি ভাষায়)। Island Cricket। সংগৃহীত ৯ জুলাই ২০১১ 
  6. "Angelo Mathews named vice-captain : Malinga out of T-20s"The Island (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ জুলাই ২০১১। সংগৃহীত ৬ জানুয়ারি ২০১২ 
  7. "Jayawardene new SL captain"Sport24 (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ জানুয়ারি ২০১২। সংগৃহীত ২৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  8. "Australia tour of Sri Lanka, 2011, 3rd Test: Sri Lanka v Bangladesh at Colombo (SSC), Mar 16-20, 2013"ESPNcricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগৃহীত ৮ জানুয়ারি ২০১৪ 
  9. "Sri Lanka tour of United Arab Emirates, 2013/14, 1st Test: Sri Lanka v Pakistan at Abu Dhabi, 31 Dec 2013- 4 Jan 2014"ESPNcricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগৃহীত ৮ জানুয়ারি ২০১৪ 
  10. "Sri Lanka tour of England and Ireland, 1st Investec Test: England v Sri Lanka at Lord's, Jun 12–16, 2014"ESPNcricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগৃহীত ১৫ জুন ২০১৪ 
  11. "Sri Lanka tour of England and Ireland, 2nd Investec Test: England v Sri Lanka at Leeds, Jun 20–24, 2014"ESPNcricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগৃহীত ২৩ জুন ২০১৪ 
  12. http://www.espncricinfo.com/india-v-sri-lanka-2014-15/engine/match/792297.html
  13. "Angelo Mathews - Personality of the Year for Living magazine" (ইংরেজি ভাষায়)। Island Cricket। ১৩ নভেম্বর ২০১০-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত ১ ডিসেম্বর ২০১০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
মাহেলা জয়াবর্ধনে
শ্রীলঙ্কান জাতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক (টেস্ট ও ওডিআই)
২০১৩-বর্তমান
উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি