থিলিনা কাদম্বি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
থিলিনা কাদম্বি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসাহান হিউয়া থিলিনা কাদম্বি
জন্ম (1982-06-04) ৪ জুন ১৯৮২ (বয়স ৩৬)
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি লেগ ব্রেক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১২২)
২৭ এপ্রিল ২০০৪ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ ওডিআই২৪ জুন ২০১০ বনাম ভারত
ওডিআই শার্ট নং২৫
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৮-বর্তমানবাসনাহিরা নর্থ
২০০৭-বর্তমানসিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব
২০০১-২০০৭ব্লুমফিল্ড
২০১০-বর্তমানঢাকা বিভাগ
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৩৩ ১০৮ ১৫৭ ২৯
রানের সংখ্যা ৮১৪ ৫,৬৫৮ ৩,৬৮১ ৪৭০
ব্যাটিং গড় ৩২.৫৬ ৩৬.৯৮ ৩১.৭৩ ১৮.৮০
১০০/৫০ ০/৫ ১২/২৪ ২/২৪ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৯৩* ২০২ ১২৮* ৪৭*
বল করেছে ১৬৮ ১,৮১৫ ৯৮১ ৯৩
উইকেট ৩৬ ২৭
বোলিং গড় ৮২.০০ ৩৭.৬৬ ৩১.৯২ ২০.২০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ২/৩৭ ৪/৩৬ ৪/৬৮ ৩/২১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/– ৬২/– ৪১/– ১৩/–
উৎস: CricketArchive, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১১

সাহান হিউয়া থিলিনা কাদম্বি (জন্ম: ৪ জুন, ১৯৮২) কলম্বোয় জন্মগ্রহণকারী শ্রীলঙ্কার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। থিলিনা কাদম্বি মূলতঃ মাঝারি সারির ব্যাটসম্যান। বামহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে লেগ ব্রেক বোলিং করে থাকেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে বাসনাহিরা নর্থ ও সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাবের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

শৈশবেই তিনি তার ক্রিকেটশৈলী প্রদর্শন করে সকলের নজর কাড়েন। ১৯৯৮ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলেন। এছাড়াও শ্রীলঙ্কা এ ক্রিকেট দলের পক্ষে দশটি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন।

২০০৪ সালে জিম্বাবুয়ে এ দলের বিপক্ষে ৫২ রান তোলেন। দুই ছক্কা ও ১০ চারে গড়া এ ইনিংসটির পুরোটিই ছিল প্রথমবারের মতো প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে পঞ্চাশোর্ধ্ব রান।[১]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২৭ এপ্রিল, ২০০৪ তারিখে জিম্বাবুয়ে সফরে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। ছয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে চার বল মোকাবেলা করে এমলুলেকি এনকালা’র হাতে শূন্য রানে আউট হন। পরবর্তী তিন খেলায় তিনি সর্বমোট ২৩ রান তোলেন। তাসত্বেও ২০০৪ সালের এশিয়া কাপে খেলার জন্য মনোনীত হন ও তার দল শিরোপা জয় করে। কিন্তু খেলার মান নিম্নমূখী হওয়ায় ২০০৪ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তার পরিবর্তে দিলহারা ফার্নান্দোকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

২০০৮ সালে জিম্বাবুয়ে সফরে অন্তর্ভুক্ত হন ও গুরুত্বপূর্ণ ৪০ রান করে দলের জয়ে ভূমিকা রাখেন। এ সিরিজের পরপরই ২০০৯ সালে পাকিস্তান সফরে যান। করাচিতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় ওডিআইয়ে ৫৯ রান তুলে শ্রীলঙ্কার সিরিজ জয় নিশ্চিত করেন। একই বছরে রানাসিংহে প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে অপরাজিত ৯৩* রান করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Sri Lankans in Zimbabwe, 2003–04" in Wisden Cricketers' Almanack 2005. Alton: John Wisden & Co. Ltd, p1221.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]