ফারভিজ মাহারুফ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফারভিজ মাহারুফ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমোহাম্মদ ফারভিজ মাহারুফ
জন্ম (1984-09-07) ৭ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪ (বয়স ৩৪)
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ডাকনামফারা,[১] দ্য রুফ[২]
উচ্চতা৬ ফুট ৩ ইঞ্চি (১.৯১ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৯৮)
৬ মে ২০০৪ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ টেস্ট৭ জুন ২০১১ বনাম ইংল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১২১)
২৫ এপ্রিল ২০০৪ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ ওডিআই৮ মার্চ ২০১২ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৩/০৪-২০০৬/০৭ব্লুমফিল্ড ক্রিকেট ও অ্যাথলেটিক ক্লাব
২০০৭/০৮-বর্তমাননন্দেস্ক্রিপ্টস ক্রিকেট ক্লাব
২০০৭/০৮-বর্তমানওয়েয়াম্বা
২০০৭/০৮-২০০৯/১০দিল্লি ডেয়ারডেভিলস
২০১১ল্যাঙ্কাশায়ার
২০১৩বরিশাল বার্নার্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি লিস্ট এ
ম্যাচ সংখ্যা ২২ ১০১ ৬৫ ১৭৬
রানের সংখ্যা ৫৫৬ ১,০১৯ ২,১১৩ ২,৩৭২
ব্যাটিং গড় ১৮.৫৩ ১৯.৯৮ ২৫.৪৫ ২৩.০২
১০০/৫০ ০/৩ ০/২ ৪/৭ ০/৯
সর্বোচ্চ রান ৭২ ৬৯* ১১৮ ৭০*
বল করেছে ২,৯৪০ ৪,২৯২ ৭,২৭৭ ৭,৩৬৫
উইকেট ২৫ ১৩০ ১২২ ২০৯
বোলিং গড় ৬৫.২৪ ২৬.৪৫ ৩৩.৮১ ২৮.২২
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৪/৫২ ৬/১৪ ৭/৭৩ ৬/১৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৭/– ২৪/– ৩৯/– ৪১/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ১৩ মার্চ ২০১২

মোহাম্মদ ফারভিজ মাহারুফ (জন্ম: ৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৪) কলম্বোয় জন্মগ্রহণকারী শ্রীলঙ্কার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের দায়িত্ব পালন করছেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্লুমফিল্ড, নন্দেস্ক্রিপ্টস, ওয়েয়াম্বা, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, ল্যাঙ্কাশায়ারবরিশাল বার্নার্সের প্রতিনিধিত্ব করেছেন ফারভিজ মাহারুফ

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

৮ বছর বয়স থেকে ক্রিকেট খেলতে শুরু করেন। পাশাপাশি ফুটবল খেলায়ও অংশ নিতেন তিনি। ২০০৪ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের পক্ষে অধিনায়কত্ব করেন। ওয়েসলি কলেজে অধ্যয়ন করেন তিনি। ঐ সময়ে উইকেট-কিপার কাম ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন। অনূর্ধ্ব-১৩ বছরের ক্রিকেট থেকে নিয়মিতভাবে বোলিং করতে শুরু করেন। এক খেলায় দলের পাঁচজন খেলোয়াড় সর্দিতে আক্রান্ত হলে মাহারুফকে বোলিংয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয়। খেলায় তিনি হ্যাট্রিকসহ ছয় উইকেট পান।[৩] এরফলে ফাস্ট বোলিংয়ের দিকে ঝুঁকে পড়েন তিনি। বিদ্যালয়ে থাকাকালীন নিজস্ব সেরা ২৪৩ ও সেরা বোলিং ৮/২০ লাভ করেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক ঘটে।[৪] এপ্রিল-মে মাসে জিম্বাবুয়ে সফরে ৫ ওডিআই ও ২ টেস্ট সিরিজে খেলার জন্য জিম্বাবুয়ে সফরে দলের সদস্য হন। সিরিজের তৃতীয় ওডিআইয়ে মাহারুফসহ দুইজন খেলোয়াড়ের ওডিআই অভিষেক হয়। ঐ খেলায় তিনজন নিয়মিত খেলোয়াড় বিশ্রামে ছিলেন। খেলায় তিনি তিন উইকেট পান ও জিম্বাবুয়ে দল ওডিআইয়ের ইতিহাসে নিজেদের সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ ৩৫ করে রেকর্ড গড়ে।[৫] পরবর্তী দুই খেলায় তিনি আরও দুই উইকেট পান। এরফলে ১৬.৬০ গড়ে ৫ উইকেট নেন তিনি।[৬] একই সফরে মাহারুফের টেস্ট অভিষেক ঘটে।

এরপর থেকেই নিয়মিতভাবে একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নিচ্ছেন। জুলাই-আগস্ট, ২০০৫ সালে শ্রীলঙ্কা, ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নিয়ে তিন-জাতির ইন্ডিয়ান অয়েল কাপ আয়োজন করে। কিন্তু প্রতিযোগিতা শুরুর পূর্বে স্বাগতিক দলের সর্বাপেক্ষা বয়োজ্যেষ্ঠ সিম বোলার চামিন্দা ভাস আহত হলে মাহারুফ দিলহারা লোকুহেত্তিগে’র সাথে বোলিং উদ্বোধনে নেতৃত্ব দেন।[৭] ওডিআইয়ের ইতিহাসে সর্বাপেক্ষা মিতব্যয়ী বোলিং পরিসংখ্যানের নজির গড়েন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিনি নির্ধারিত ১০ ওভার বোলিং করে মাত্র ৯ রান দেন।[৮] এরফলে তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পান।

২০১০ সালের এশিয়া কাপের ৬ষ্ঠ খেলায় তিনি স্মরণীয় সাফল্য পান। ২২ জুন, ২০১০ তারিখে ডাম্বুলার রাঙ্গিরি ডাম্বুলা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় ভারতের বিপক্ষে হ্যাট্রিক করেন তিনি। রবীন্দ্র জাদেজাকে এলবিডব্লিউ, প্রবীন কুমারকে বোল্ড ও জহির খানকে কুমার সাঙ্গাকারা’র কটে পরিণত করে এ কৃতিত্ব লাভ করেন তিনি।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Farveez Maharoof player profile, Cricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-০৮ 
  2. Ostick, Chris (৫ জুলাই ২০১১), "Lancashire's Sri Lankan star Farveez Maharoof tells Chris Ostick he has enjoyed life at the club so much he wants to return", Manchester Evening News, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-০৮ 
  3. Gollapudi, Nagraj (৯ আগস্ট ২০০৫), 'Be positive, back yourself, and hope for the best', Cricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  4. First Test: Zimbabwe v Sri Lanka, 2005, The Widen Almanac, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  5. Zimbabwe hit new lows as Vaas takes 300, Cricinfo, ২৫ এপ্রিল ২০০৪, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  6. Records / Sri Lanka in Zimbabwe ODI Series, 2004 / Most wickets, Cricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  7. Austin, Charlie (২ আগস্ট ২০০৫), Maharoof a willing replacement for Vaas, Cricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  8. Records / One-Day Internationals / Bowling records / Best economy rate in an innings, Cricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৪ 
  9. "6th match: 2010 Asia Cup, Jun 22, 2010"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুন ২০১০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]