২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশরাশিয়া
তারিখসমূহ১২ মার্চ ২০১৫ – ১৪ নভেম্বর ২০১৭
দলসমূহ২১০ (৬টি কনফেডারেশন থেকে)
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে৮৭২
গোল সংখ্যা২৪৫৪ (ম্যাচ প্রতি ২.৮১টি)
উপস্থিতি১,৮৭,২০,৬৯১ (ম্যাচ প্রতি ২১,৪৬৯ জন)
শীর্ষ গোলদাতাপোল্যান্ড রবের্ত লেওয়ানদস্কি
সৌদি আরব মোহাম্মদ আল-সাহলাউই
সংযুক্ত আরব আমিরাত আহমেদ খলিল
(প্রত্যেকে ১৬ গোল করে)

২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব ছিল রাশিয়ায় আয়োজিত ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য যোগ্য দল নির্ধারণী বাছাইপর্ব। এই বাছাইপর্বে ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের ৩২টি দলের মধ্যে ৩১টি দল খেলার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে। বাকি ১টি দল ছিল রাশিয়া, যারা স্বাগতিক হিসেবে পূর্বেই ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। বাকি ২১০টি ফিফার অন্তর্ভুক্ত দল বাছাইপর্বের এই প্রতিযোগিতায় খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে, এবং ফিফার ইতিহাসে এইবারই প্রথমবারের মতো ফিফার সকল দল বাছাইপর্বের প্রাথমিক পর্যায়ে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল,[১] কিন্তু জিম্বাবুয়ে এবং ইন্দোনেশিয়া তাদের প্রথম খেলার পূর্বেই বাতিল হয়ে গিয়েছিল।[২][৩] ভুটান, দক্ষিণ সুদান, জিব্রাল্টার এবং কসোভো এই বারের বাছাইপর্বে তাদের অভিষেক করেছিল।[৪][৫][৬][৭][৮] ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ওমানের বিরুদ্ধে এক হোম ম্যাচে দর্শকদের দ্বারা সৃষ্ট সমস্যার জন্য মায়ানমারের সকল খেলার নিষিদ্ধ করা হয়। অতঃপর মায়ানমার এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিল করে, যার ফলে তারা তাদের সকল হোম ম্যাচ দেশের বাইরে খেলার অনুমতি পায়।[৯]

যদিও ২০১৫ সালের ২৫ জুলাই সেন্ট পিটার্সবার্গের স্ট্রেলনাতে মূল বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছিল,[১০][১১] তার পূর্বেই বাছাইপর্বের বেশ কয়েকটি খেলা সম্পন্ন হয়ে গিয়েছিল।[১২] ২০১৫ সালের ১২ মার্চ এএফসির বাছাইপর্বের খেলার মাধ্যমে এই আসরের বাছাইপর্বের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছিল,[১৩] উক্ত খেলায় পূর্ব তিমুর খেলোয়াড় চিকুইটো দো কারমো বাছাইপর্বের প্রথম গোল করেন। মূল ড্রয়ের পূর্বে কনকাকাফের খেলা-ও অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরিচ্ছেদসমূহ

উত্তীর্ণ দল[সম্পাদনা]

  দলগুলো বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ
  দলগুলো বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ হতে ব্যর্থ হয়েছে
  দলগুলো একটিও খেলা সম্পন্ন করার পূর্বেই ফিফা কর্তৃক এই প্রতিযোগিতায় খেলা হতে বহিষ্কৃত হয়েছে
  দেশগুলো ফিফার সদস্য নয়
দল অংশগ্রহণ নিশ্চিত
করার মাধ্যম
অংশগ্রহণ নিশ্চিত
করার তারিখ
চূড়ান্ত পর্বে
উপস্থিতি
সর্বশেষ
উপস্থিতি
ধারাবাহিক
চূড়ান্ত পর্বে
উপস্থিতি
পূর্ববর্তী
সেরা সাফল্য
 রাশিয়া স্বাগতিক ২ ডিসেম্বর ২০১০ ১১তম ২০১৪ ৪র্থ স্থান (১৯৬৬)
 ব্রাজিল কনমেবল রাউন্ড রবিন বিজয়ী ২৮ মার্চ ২০১৭ ২১তম ২০১৪ ২১ বিজয়ী (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৭০, ১৯৯৪, ২০০২)
 ইরান এএফসি তৃতীয় পর্ব গ্রুপ এ বিজয়ী ১২ জুন ২০১৭ ৫ম ২০১৪ গ্রুপ পর্ব (১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০৬, ২০১৪)
 জাপান এএফসি তৃতীয় পর্ব গ্রুপ বি বিজয়ী ৩১ আগস্ট ২০১৭ ৬ষ্ঠ ২০১৪ রাউন্ড অফ ১৬ (২০০২, ২০১০)
 মেক্সিকো কনকাকাফ পঞ্চম পর্ব বিজয়ী ১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১৬তম ২০১৪ কোয়াটার-ফাইনাল (১৯৭০, ১৯৮৬)
 বেলজিয়াম উয়েফা গ্রুপ এইচ বিজয়ী ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১৩তম ২০১৪ ৪র্থ স্থান (১৯৮৬)
 দক্ষিণ কোরিয়া এএফসি তৃতীয় পর্ব গ্রুপ এ রানার-আপ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১০ম ২০১৪ ৪র্থ স্থান (২০০২)
 সৌদি আরব এএফসি তৃতীয় পর্ব গ্রুপ বি রানার-আপ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ৫ম ২০০৬ রাউন্ড অফ ১৬ (১৯৯৪)
 জার্মানি উয়েফা গ্রুপ সি বিজয়ী ৫ অক্টোবর ২০১৭ ১৯তম ২০১৪ ১৭ বিজয়ী (১৯৫৪, ১৯৭৪, ১৯৯০, ২০১৪)
 ইংল্যান্ড উয়েফা গ্রুপ এফ বিজয়ী ৫ অক্টোবর ২০১৭ ১৫তম ২০১৪ বিজয়ী (১৯৬৬)
 স্পেন উয়েফা গ্রুপ জি বিজয়ী ৬ অক্টোবর ২০১৭ ১৫তম ২০১৪ ১১ বিজয়ী (২০১০)
 নাইজেরিয়া ক্যাফ তৃতীয় পর্ব গ্রুপ বি বিজয়ী ৭ অক্টোবর ২০১৭ ৬ষ্ঠ ২০১৪ রাউন্ড অফ ১৬ (১৯৯৪, ১৯৯৮, ২০১৪)
 কোস্টা রিকা কনকাকাফ পঞ্চম পর্ব রানার-আপ ৭ অক্টোবর ২০১৭ ৫ম ২০১৪ কোয়াটার-ফাইনাল (২০১৪)
 পোল্যান্ড উয়েফা গ্রুপ ই বিজয়ী ৮ অক্টোবর ২০১৭ ৮ম ২০০৬ ৩য় স্থান (১৯৭৪, ১৯৮২)
 মিশর ক্যাফ তৃতীয় পর্ব গ্রুপ ই বিজয়ী ৮ অক্টোবর ২০১৭ ৩য় ১৯৯০ প্রথম পর্ব (১৯৩৪), গ্রুপ পর্ব (১৯৯০)
 আইসল্যান্ড উয়েফা গ্রুপ ই বিজয়ী ৯ অক্টোবর ২০১৭ ১ম
 সার্বিয়া উয়েফা গ্রুপ ডি বিজয়ী ৯ অক্টোবর ২০১৭ ১২তম ২০১০ ৪র্থ স্থান (১৯৩০, ১৯৬২)
 পর্তুগাল উয়েফা গ্রুপ বি বিজয়ী ১০ অক্টোবর ২০১৭ ৭ম ২০১৪ ৩য় স্থান (১৯৬৬)
 ফ্রান্স উয়েফা গ্রুপ এ বিজয়ী ১০ অক্টোবর ২০১৭ ১৫তম ২০১৪ বিজয়ী (১৯৯৮)
 উরুগুয়ে কনমেবল রাউন্ড রবিন রানার-আপ ১০ অক্টোবর ২০১৭ ১৩তম ২০১৪ বিজয়ী (১৯৩০, ১৯৫০)
 আর্জেন্টিনা কনমেবল রাউন্ড রবিন ৩য় স্থান ১০ অক্টোবর ২০১৭ ১৭তম ২০১৪ ১২ বিজয়ী (১৯৭৮, ১৯৮৬)
 কলম্বিয়া কনমেবল রাউন্ড রবিন ৪র্থ স্থান ১০ অক্টোবর ২০১৭ ৬ষ্ঠ ২০১৪ কোয়াটার-ফাইনাল (২০১৪)
 পানামা কনকাকাফ পঞ্চম পর্ব ৩য় স্থান ১০ অক্টোবর ২০১৭ ১ম
 সেনেগাল ক্যাফ তৃতীয় পর্ব গ্রুপ ডি বিজয়ী ১০ নভেম্বর ২০১৭ ২য় ২০০২ কোয়াটার-ফাইনাল (২০০২)
 মরক্কো ক্যাফ তৃতীয় পর্ব গ্রুপ সি বিজয়ী ১১ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ১৯৯৮ রাউন্ড অফ ১৬ (১৯৮৬)
 তিউনিসিয়া ক্যাফ তৃতীয় পর্ব গ্রুপ এ বিজয়ী ১১ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ২০০৬ গ্রুপ পর্ব (১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০২, ২০০৬)
  সুইজারল্যান্ড উয়েফা দ্বিতীয় পর্ব বিজয়ী ১২ নভেম্বর ২০১৭ ১১তম ২০১৪ কোয়াটার-ফাইনাল (১৯৩৪, ১৯৩৮, ১৯৫৪)
 ক্রোয়েশিয়া উয়েফা দ্বিতীয় পর্ব বিজয়ী ১২ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ২০১৪ ৩য় স্থান (১৯৯৮)
 সুইডেন উয়েফা দ্বিতীয় পর্ব বিজয়ী ১৩ নভেম্বর ২০১৭ ১২তম ২০০৬ রানার-আপ (১৯৫৮)
 ডেনমার্ক উয়েফা দ্বিতীয় পর্ব বিজয়ী ১৪ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ২০১০ কোয়াটার-ফাইনাল (১৯৯৮)
 অস্ট্রেলিয়া কনকাকাফ বনাম এএফসি প্লে-অফ বিজয়ী ১৫ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ২০১৪ রাউন্ড অফ ১৬ (২০০৬)
 পেরু ওএফসি বনাম কনমেবল প্লে-অফ বিজয়ী ১৫ নভেম্বর ২০১৭ ৫ম ১৯৮২ কোয়াটার-ফাইনাল (১৯৭০), দ্বিতীয় পর্ব (১৯৭৮)
নোট

বাছাই প্রক্রিয়া[সম্পাদনা]

এই বাছাইপর্বের শেষে চূড়ান্ত পর্বে সর্বমোট ৩২টি অংশগ্রহণ করেছে। ২০১৫ সালের ৩০ শে জুন তারিখে সুইজারল্যান্ডের জুরিখে প্রতিটি কনফেডারেশনের জন্য ফিফা্র এক নির্বাহী কমিটির দ্বারা অনুষ্ঠিত ফিফা কংগ্রেসের পর আলোচনার আয়োজন করা হয়েছিল, কিন্তু এর পূর্বে ২০১৫ সালের মার্চ মাসেই বাছাইপর্বের খেলা শুরু হয়েছিল।[১৪] ২০১৪ সালের মতো একইভাবে বরাদ্দের মাধ্যমে ২০১৮ এবং ২০২২ সালের টুর্নামেন্টের জন্য আয়োজন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছিল।[১৫]

সম্প্রসারণের প্রস্তাব[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের অক্টোবরে উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনি প্রস্তাব করেন যে, ২০১৮ সালে থেকে ফিফা বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলা দলের সংখ্যা ৩২ থেকে ৪০-এ উন্নীত করা উচিত। তিনি আর বলেন যে, খেলার বিন্যাস একই থাকে, কিন্তু প্রতি গ্রুপে ৪ দলের পরিবর্তে ৫ দল থাকবে।[১৬] অতঃপর ফিফার প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারের এক সাক্ষাৎকারে বলেন যে, ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকার দলগুলো বেশি স্থান অধিকারী, পক্ষান্তরে আফ্রিকা এবং এশিয়ার দলগুলো বেশ কম স্থান পেয়ে থাকে। তাই আফ্রিকা এবং এশিয়ার দলগুলোও বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে অধিক স্থান লাভ করার যোগ্যতা রাখে।[১৭] তবে ফিফার সাধারণ সম্পাদক জেরোম ভ্যালকি বলেন যে, ২০১৮ সালে এই সম্প্রসারণের কোন সম্ভাবনা নেই, অন্যদিকে রাশিয়ার ক্রীড়া মন্ত্রী ভিটালি মুটকো বলেন যে, "আমাদের দেশে ৩২টি দলের অংশগ্রহণের ওপর ভিত্তি করে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে"।[১৮][১৯] অতঃপর শেষ পর্যন্ত ২০১৭ সালের ১০ জানুয়ারীতে আয়োজিত এক ফিফা কাউন্সিলে সকলের সম্মতিতে ভোটের মাধ্যমে নির্ধারিত হয় যে, ২০২৬ সাল হতে ফিফা বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ৪৮টি দল অংশগ্রহণ করবে।[২০]

বাছাইপর্বের সারাংশ[সম্পাদনা]

এই বাছাইপর্বে ফিফার সকল সদস্য প্রবেশ করলেও সকলকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ দেওয়া হয়নি। ২০১৫ সালে ১২ মার্চে, জিম্বাবুয়ে জাতীয় ফুটবল দলকে এই প্রতিযোগিতা থেকে বহিষ্কার করা হয়, কারণ তাদের প্রাক্তন কোচ হোসে ক্লাউডিনেই একটি বিভক্তি ফি পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়েছিল এবং ২০১৫ সালের ৩০ মার্চ তারিখে ফিফা কর্তৃক তাদের ফুটবল সংস্থাকে স্থগিত করায় ইন্দোনেশিয়া জাতীয় ফুটবল দলকেও এই প্রতিযোগিতা থেকে বাদ দেওয়া হয়।[৩] কুয়েত জাতীয় ফুটবল দলও তাদের একাধিক খেলা থেকে একই রকমভাবে স্থগিতাদেশ প্রাপ্ত হয়েছিল যখন বাছাইপর্বে তাদের খেলা চলমান অবস্থায় ছিল,[২১] যার ফলে তারা এই প্রতিযোগিতা থেকে বাদ পড়ে যায়। ২০১৭ সালের ৩ মার্চ তারিখে ব্রাজিল প্যারাগুয়েকে ৩-০ গোলে পরাজিত করে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জনকারী প্রথম দলে পরিণত হয়।[২২] প্রথম দল হিসেবে ব্রাজিল উত্তীর্ণ হওয়ার ২৩৩ দিন পর ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর তারিখে পেরু ৩২তম এবং চূড়ান্ত দল বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করে, তারা ওএফসি–কনমেবল প্লে-অফে নিউজিল্যান্ডকে ২–০ গোলে পরাজিত করে এই যোগ্যতা অর্জন করে।[২৩]


World Map FIFA2.svg
কনফেডারেশন চূড়ান্ত পর্বে প্রাপ্য স্থান শুরুতে দল বাদ পরা দল উত্তীর্ণ দল বাছাইপর্ব শুরুর তারিখ বাছাইপর্ব শেষের তারিখ
এএফসি ৪.৫ ৪৬ ৪১ ১২ মার্চ ২০১৫ ১৫ নভেম্বর ২০১৭
ক্যাফ ৫৪ ৪৯ ৭ অক্টোবর ২০১৫ ১৪ নভেম্বর ২০১৭
কনকাকাফ ৩.৫ ৩৫ ৩২ ২২ মার্চ ২০১৫ ১৫ নভেম্বর ২০১৭
কনমেবল ৪.৫ ১০ ৮ অক্টোবর ২০১৫ ১৫ নভেম্বর ২০১৭
ওএফসি ০.৫ ১১ ১১ ৩১ আগস্ট ২০১৫ ১৫ নভেম্বর ২০১৭
উয়েফা ১৩+১ ৫৪+১ ৪১ ১৩+১ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১৫ নভেম্বর ২০১৭
সর্বমোট ৩১+১ ২১০+১ ১৭৯ ৩১+১ ১২ মার্চ ২০১৫ ১৫ নভেম্বর ২০১৭

নোট ১: এএফসি, কনকাকাফ, কনমেবল এবং ওএফসি থেকে একটি দল করে ২০১৭ সালের ১০–১৫ নভেম্বরে অনুষ্ঠিত আন্ত-কনফেডারেশন প্লে-অফে খেলেছে। একটি খেলা কনকাকাফ বনাম এএফসি এবং অন্যটি ওএফসি বনাম কনমেবল-এর দলের মধ্যে সংগঠিত হয়েছে।

নোট ২: উয়েফার সর্বমোট দলের সাথে "+১" হয়েছে; কারণ রাশিয়া এই আসরের স্বাগতিক দল।

পদ্ধতি[সম্পাদনা]

এই বাছাইপর্বের প্রতিযোগিতার পদ্ধতি প্রতিটি কনফেডারেশনের উপর নির্ভর করে (নিচে দেখুন)। প্রতিটি পর্বের খেলা নিম্নলিখিত পদ্ধতি অনুসারে হতে হবে:[২৪]

  • লীগ পদ্ধতি, যেখানে দুই দলের বেশি দল মিলে গ্রুপ গঠন করে যেখানে তারা রাউন্ড-রবিন প্রতিযোগিতার মাধ্যমে হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলে থাকে, অথবা ফিফার সাংগঠনিক কমিটির অনুমতি ব্যতিরেকে দল গঠন করে, অথবা অংশগ্রহণকারী দলগুলো এক বা একক নিরপেক্ষ অঞ্চলে খেলার আয়োজন করে থাকে।
  • নকআউট পদ্ধতি, যেখানে দুই দল দুই লেগে ম্যাচের মাধ্যমে হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলে থাকে।

টাইব্রেকার[সম্পাদনা]

লীগ পদ্ধতিতে, প্রত্যেক গ্রুপে প্রতি দলের র‍্যাঙ্কিং অথবা অবস্থান নিম্নে বর্ণিত নিয়ম অনুসারে হয়ে থাকে (ধারা ২০.৬ এবং ২০.৭):[২৪]

  1. পয়েন্ট (জয়ের জন্য ৩ পয়েন্ট, ড্রয়ের জন্য ১ পয়েন্ট এবং হারের জন্য ০ পয়েন্ট)
  2. সামগ্রিক গোল পার্থক্য
  3. সামগ্রিক স্বপক্ষে গোল
  4. একই পয়েন্টে থাকা দলের খেলার পয়েন্ট
  5. একই পয়েন্টে থাকা দলের গোল পার্থক্য
  6. একই পয়েন্টে থাকা দলের করা সর্বমোট গোল
  7. একই পয়েন্টে থাকা দলের করা অ্যাওয়ে গোল (হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে লীগ পদ্ধতিতে যদি একই পয়েন্টে ২টি দল থাকে)
  8. ফেয়ার প্লে পয়েন্ট
    • প্রথম হলুদ কার্ড: বিয়োগ ১ পয়েন্ট
    • পরোক্ষভাবে প্রাপ্ত লাল কার্ড (দ্বিতীয় হলুদ কার্ড): বিয়োগ ৩ পয়েন্ট
    • প্রত্যক্ষভাবে প্রাপ্ত লাল কার্ড: বিয়োগ ৪ পয়েন্ট
    • হলুদ কার্ড এবং প্রত্যক্ষভাবে প্রাপ্ত লাল কার্ড: বিয়োগ ৫ পয়েন্ট
  9. এছাড়াও ফিফা আয়োজক কমিটির দ্বারা নির্ধারিত আরো অনেক নিয়ম

যেসব ক্ষেত্রে বিভিন্ন দলের মধ্যে একই পয়েন্টে থাকা দলগুলোর মধ্যে পরবর্তী পর্বে এগিয়ে যাওয়ার জন্য দল নির্ধারণ করা হয়, সেসকল ক্ষেত্রে কনফেডারেশন কর্তৃক নির্ধারিত মানদণ্ড প্রয়োগ করা হয় এবং একই সাথে সেখানে ফিফার অনুমোদন প্রয়োজন হয় (ধারা ২০.৮)।[২৪]

নকআউট পদ্ধতিতে, দুই লেগে যে দল সামগ্রিক স্কোরে সর্বাধিক গোল করে সেই দলটি পরবর্তী পর্বে অগ্রসর হয়ে থাকে। যদি খেলার শেষ পর্যায়ে সামগ্রিক স্কোর সমান থাকে তখন অ্যাওয়ে গোল নিয়ম প্রয়োগ করা হয়, যেমন জেই দল দুই লেগের খেলায় সর্বাধিক অ্যাওয়ে গোল করে সেই দল পরবর্তী পর্বে অগ্রসর হয়। যদি দুই দলের অ্যাওয়ে গোল সমান থাকে তখন ৩০ মিনিটের অতিরিক্ত সময় খেলা হয়ে থাকে, যেখানে উভয় অর্ধে ১৫ মিনিট করে খেলা হয়। অতিরিক্ত সময়ের পর পুনরায় অ্যাওয়ে গোল নিয়ম প্রয়োগ করা হয়, যেমন, যদি অতিরিক্ত সময়ে উভয় দল গোল করে এবং পরিশেষে উভয় দলের সামগ্রিক স্কোর একই থাকে, তখন সফরকারী দল অধিক অ্যাওয়ে গোল থাকায় পরবর্তী পর্যায়ে খেলার জন্য উন্নীত হয়। যদি অতিরিক্ত সময়ে কোন দলই গোল করতে না পারে তবে পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে উক্ত সমতার নির্ধারণ হয়ে থাকে (ধারা ২০.৯)।[২৪]

কনফেডারেশনের বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

এএফসি[সম্পাদনা]

২০১৪ সালে ১৬ এপ্রিলে এএফসি নির্বাহী কমিটির বৈঠকটি ফিফা বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের প্রারম্ভিক অবস্থা এবং এএফসি এশিয়ান কাপের প্রাথমিক অবস্থানের প্রস্তাব অনুমোদন করে, যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে যে ২০১৯ এএফসি এশিয়ান কাপ হতে ২৪টি দল অংশগ্রহণ করা শুরু করবে:[২৫]

  • প্রথম পর্ব: সর্বমোট ১২টি দল (যে সকল দলের অবস্থান ৩৫–৪৬) দুই লেগের হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে খেলায় অংশগ্রহণ করেছে। এই পর্বে বিজয়ী ৬টি দল দ্বিতীয় পর্বে খেলার জন্য অগ্রসর হয়েছে।
  • দ্বিতীয় পর্ব: সর্বমোট ৪০টি দল (যে সকল দলের অবস্থান ১–৩৪ এবং প্রথম পর্বে বিজয়ী ৬ দল) ৮টি গ্রুপে বিভক্ত থাকবে যেখানে তারা রাউন্ড-রবিন প্রতিযোগিতার মাধ্যমে হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলায় অংশগ্রহণ করেছে। ৮টি গ্রুপের বিজয়ী দল এবং ৪ গ্রুপ সেরা রানার-আপ ফিফা বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের তৃতীয় পর্বে এবং ২০১৯ এএফসি এশিয়ান কাপে খেলার জন্য অগ্রসর হয়েছে।
  • তৃতীয় পর্ব: সর্বমোট ১২টি দল (পূর্বে ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ১০টি দল ছিল) এই পর্বে দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে রাউন্ড-রবিন প্রতিযোগিতার মাধ্যমে হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলায় অংশগ্রহণ করেছে। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার জন্য অগ্রসর হয়েছে, এবং দুটি দলের ৩য় স্থান অধিকারী দল চতুর্থ পর্বের জন্য অগ্রসর হয়েছে।
  • চতুর্থ পর্ব: তৃতীয় পর্বের দুই গ্রুপের ৩য় স্থান অধিকারী দুই দল দুই লেগের হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে খেলায় অংশগ্রহণ করেছে। এই পর্বের বিজয়ী দল আন্তঃ-কনফেডারেশন প্লে-অফে খেলার জন্য অগ্রসর হয়েছে, যেখানে উক্ত দল কনকাকাফে ৪র্থ স্থান অধিকারী দলের বিরুদ্ধে খেলেছে।

সর্বমোট ২৪টি দল এই বারের দ্বিতীয় পর্বের খেলা হতে বাদ পড়েছে, যারা ২০১৯ এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের তৃতীয় পর্বে (যা এই আসরের বাছাইপর্বের তৃতীয় পর্ব থেকে সম্পূর্ণ আলাদা) অংশগ্রহণ করবে। সেখানে তারা ৪টি দল করে ৬টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে খেলায় অংশগ্রহণ করবে। উক্ত প্রতিযোগিতার তৃতীয় পর্বে অংশগ্রহণকারী ২৪টি দলের মধ্য হতে ১টি দল বাদ পড়বে, এবং শীর্ষ ৮টি দল ২০১৯ এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ করবে যেখানে বাদ পড়া ১২টি দল দ্বিতীয় পর্বে প্রতিযোগিতা করবে।[২৬]

চূড়ান্ত অবস্থান (তৃতীয় পর্ব)[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের ১২ এপ্রিলে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের ম্যান্ডারিন ওরিয়েন্টাল হোটেলে তৃতীয় পর্বের জন্য ড্র অনুষ্ঠিত হয়।[২৭]

গ্রুপ এ

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ইরান ১০ ১০ +৮ ২২ ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ ১–০ ২–২ ২–০ ১–০ ২–০
 দক্ষিণ কোরিয়া ১০ ১১ ১০ +১ ১৫ ০–০ ১–০ ২–১ ৩–২ ৩–২
 সিরিয়া ১০ +১ ১৩ চতুর্থ পর্বের জন্য অগ্রসর ০–০ ০–০ ১–০ ২–২ ৩–১
 উজবেকিস্তান ১০ −১ ১৩ ০–১ ০–০ ১–০ ২–০ ১–০
 গণচীন ১০ ১০ −২ ১২ ০–০ ১–০ ০–১ ১–০ ০–০
 কাতার ১০ ১৫ −৭ ০–১ ৩–২ ১–০ ০–১ ১–২
উৎস: ফিফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: বাছাইপর্বের টাইব্রেকার

গ্রুপ বি

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 জাপান ১০ ১৭ +১০ ২০ ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ ২–১ ২–০ ১–২ ২–১ ৪–০
 সৌদি আরব ১০ ১৭ ১০ +৭ ১৯ ১–০ ২–২ ৩–০ ১–০ ১–০
 অস্ট্রেলিয়া ১০ ১৬ ১১ +৫ ১৯ চতুর্থ পর্বের জন্য অগ্রসর ১–১ ৩–২ ২–০ ২–০ ২–১
 সংযুক্ত আরব আমিরাত ১০ ১০ ১৩ −৩ ১৩ ০–২ ২–১ ০–১ ২–০ ৩–১
 ইরাক ১০ ১১ ১২ −১ ১১ ১–১ ১–২ ১–১ ১–০ ৪–০
 থাইল্যান্ড ১০ ২৪ −১৮ ০–২ ০–৩ ২–২ ১–১ ১–২
উৎস: ফিফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: বাছাইপর্বের টাইব্রেকার

৫ম স্থানের জন্য প্লে-অফ (চতুর্থ পর্ব)[সম্পাদনা]

তৃতীয় পর্বের প্রতিটি গ্রুপ থেকে ৩য় স্থান অধিকারী দলগুলো একে অপরের বিপক্ষে দুই লেগের হোম-এন্ড-অ্যাওয়ে খেলায় বিজয়ী দল আন্তঃ-কনফেডারেশন প্লে-অফে অংশগ্রহণ করেছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
সিরিয়া  ২–৩  অস্ট্রেলিয়া ১–১ ১–২ (অ.স.প.)

ক্যাফ[সম্পাদনা]

The CAF Executive Committee approved the format for the qualifiers of the 2018 FIFA World Cup on 14 January 2015.[২৮] However, on 9 July 2015 FIFA officially announced that only three rounds would be played instead of four.[২৯]

  • First round: A total of 26 teams (teams ranked 28–53) played home-and-away over two legs. The 13 winners advanced to the second round.
  • Second round: A total of 40 teams (teams ranked 1–27 and 13 first round winners) played home-and-away over two legs. The 20 winners advanced to the third round.
  • Third round: The 20 teams which had advanced from the second round were divided into five groups of four teams to play home-and-away round-robin matches. The winners of each group qualified for the 2018 FIFA World Cup.

Zimbabwe, even though they entered the competition, were expelled on 12 March 2015 for their failure to pay former coach José Claudinei a severance fee.[২] Therefore, only 53 African teams were involved in the draw.

চূড়ান্ত অবস্থান (তৃতীয় পর্ব)[সম্পাদনা]

The draw for the third round was held on 24 June 2016 at the CAF headquarters in Cairo, Egypt.[৩০]

Group A টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CAF Third Round Group A table

Group B টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CAF Third Round Group B table

Group C টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CAF Third Round Group C table

Group D টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CAF Third Round Group D table

Group E টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CAF Third Round Group E table

কনকাকাফ[সম্পাদনা]

An amendment to the qualification process for this tournament had been suggested,[৩১] which would see the first three rounds played as knockout rounds, with both the fourth round and the final round (referred to as 'The Hex') played as group stages. The first round would be played during the FIFA international dates of 23–31 March 2015.[৩২] CONCACAF announced the full details on 12 January 2015:[৩৩][৩৪]

  • First round: A total of 14 teams (teams ranked 22–35) played home-and-away over two legs. The seven winners advanced to the second round.
  • Second round: A total of 20 teams (teams ranked 9–21 and seven first round winners) played home-and-away over two legs. The ten winners advanced to the third round.
  • Third round: A total of 12 teams (teams ranked 7–8 and ten second round winners) played home-and-away over two legs. The six winners advanced to the fourth round.
  • Fourth round: A total of 12 teams (teams ranked 1–6 and six third round winners) were divided into three groups of four teams to play home-and-away round-robin matches. The top two teams of each group advanced to the fifth round.
  • Fifth round: The six teams which advanced from the fourth round played home-and-away round-robin matches in one single group. The top three teams qualified for the 2018 FIFA World Cup, and the fourth-placed team advanced to the inter-confederation play-offs, playing the winners of the Asian Football Confederation play-off.

চূড়ান্ত অবস্থান (পঞ্চম পর্ব)[সম্পাদনা]

The draw for the fifth round (to decide the fixtures) was held on 8 July 2016 at the CONCACAF headquarters in Miami Beach, United States.[৩৫] টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – CONCACAF Fifth Round table

কনমেবল[সম্পাদনা]

The qualification structure was the same as the previous five editions. The ten teams played in a league of home-and-away round-robin matches. The top four teams qualified for the 2018 FIFA World Cup, and the fifth-placed team advanced to the inter-confederation play-offs, playing the winners of the Oceania Football Confederation qualifying competition.

Unlike previous qualifying tournaments where the fixtures were pre-determined, the fixtures were decided by a draw held on 25 July 2015, at the Konstantinovsky Palace in Strelna, Saint Petersburg, Russia.[৩৬]

চূড়ান্ত অবস্থান[সম্পাদনা]

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ব্রাজিল ১৮ ১২ ৪১ ১১ +৩০ ৪১ ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ ২–২ ৩–০ ২–১ ৩–০ ৩–০ ৩–০ ২–০ ৫–০ ৩–১
 উরুগুয়ে ১৮ ৩২ ২০ +১২ ৩১ ১–৪ ০–০ ৩–০ ১–০ ৩–০ ৪–০ ২–১ ৪–২ ৩–০
 আর্জেন্টিনা ১৮ ১৯ ১৬ +৩ ২৮ ১–১ ১–০ ৩–০ ০–০ ১–০ ০–১ ০–২ ২–০ ১–১
 কলম্বিয়া ১৮ ২১ ১৯ +২ ২৭ ১–১ ২–২ ০–১ ২–০ ০–০ ১–২ ৩–১ ১–০ ২–০
 পেরু ১৮ ২৭ ২৬ +১ ২৬ আন্ত-কনফেডারেশন প্লে-অফের জন্য অগ্রসর ০–২ ২–১ ২–২ ১–১ ৩–৪ ১–০ ২–১ ২–১ ২–২
 চিলি ১৮ ২৬ ২৭ −১ ২৬ ২–০ ৩–১ ১–২ ১–১ ২–১ ০–৩ ২–১ ৩–০[ক] ৩–১
 প্যারাগুয়ে ১৮ ১৯ ২৫ −৬ ২৪ ২–২ ১–২ ০–০ ০–১ ১–৪ ২–১ ২–১ ২–১ ০–১
 ইকুয়েডর ১৮ ১০ ২৬ ২৯ −৩ ২০ ০–৩ ২–১ ১–৩ ০–২ ১–২ ৩–০ ২–২ ২–০ ৩–০
 বলিভিয়া ১৮ ১২ ১৬ ৩৮ −২২ ১৪ ০–০ ০–২ ২–০ ২–৩ ০–৩[খ] ১–০ ১–০ ২–২ ৪–২
১০  ভেনেজুয়েলা ১৮ ১০ ১৯ ৩৫ −১৬ ১২ ০–২ ০–০ ২–২ ০–০ ২–২ ১–৪ ০–১ ১–৩ ৫–০
উৎস: ফিফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: বাছাইপর্ব টাইব্রেকার
টীকা:
  1. বলিভিয়া তাদের দলে একজন অযোগ্য খেলোয়াড়, নেলসন ক্যাবরেরাকে খেলানোর ফলস্বরূপ ফিফা চিলিকে ৩–০ গোলে জয় পুরস্কৃত করে। মূলত বলিভিয়া চিলির সাথে ০–০ গোলে ড্র করেছিল। নেলসন ক্যাবরেরা পূর্বে প্যারাগুয়ের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন এবং যোগ্যতা নিয়ম পূরণ করেননি।[৩৭]
  2. বলিভিয়া তাদের দলে একজন অযোগ্য খেলোয়াড়, নেলসন ক্যাবরেরাকে খেলানোর ফলস্বরূপ ফিফা পেরুকে ০–৩ গোলে জয় পুরস্কৃত করে। মূলত বলিভিয়া পেরুকে ২–০ গোলে হারিয়েছিল। নেলসন ক্যাবরেরা পূর্বে প্যারাগুয়ের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন এবং যোগ্যতা নিয়ম পূরণ করেননি।[৩৭]

ওএফসি[সম্পাদনা]

The qualification structure was as follows:[২৯][৩৮]

The OFC had considered different proposals of the qualifying tournament.[৩৯] A previous proposal adopted by the OFC in October 2014 would have the eight teams divided into two groups of four teams to play home-and-away round-robin matches in the second round, followed by the top two teams of each group advancing to the third round to play in a single group of home-and-away round-robin matches to decide the winners of the 2016 OFC Nations Cup which would qualify to the 2017 FIFA Confederations Cup and advance to the inter-confederation play-offs.[৪০] However, it was later reported in April 2015 that the OFC had reversed its decision, and the 2016 OFC Nations Cup was played as a one-off tournament similar to the 2012 OFC Nations Cup.[৪১]

চূড়ান্ত অবস্থান (তৃতীয় পর্ব)[সম্পাদনা]

The draw for the third round was held on 8 July 2016 at the OFC headquarters in Auckland, New Zealand.[৪২]

Group A টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – OFC Third Round Group A table

Group B টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – OFC Third Round Group B table

Final
The draw for the final (which decided the order of legs) was held on 15 June 2017 at the OFC headquarters in Auckland, New Zealand.[৪৩] The winners of the final advanced to inter-confederation play-offs. 2018 FIFA World Cup qualification – OFC Third Round

উয়েফা[সম্পাদনা]

Russia qualified automatically as hosts. The qualifying format for the remaining FIFA-affiliated UEFA teams was confirmed by the UEFA Executive Committee meeting on 22–23 March 2015 in Vienna.[৪৪][৪৫]

  • First round (group stage): The 52 UEFA teams affiliated with FIFA at the time of the draw were divided into nine groups (seven groups of six teams and two groups of five teams) to play home-and-away round-robin matches. The winners of each group qualified for the 2018 FIFA World Cup, and the eight best runners-up advanced to the second round (play-offs). With the admission of Gibraltar and Kosovo as FIFA members in May 2016, both national teams were eligible to make their debuts in World Cup qualifying.[৬] With initially two groups in the first round having only five teams, Kosovo was assigned to Group I as it was decided that Bosnia and Herzegovina and Serbia should not play against Kosovo for security reasons, and Gibraltar was then added to Group H,[৭][৮] so that each of the nine groups then had six teams.
  • Second round (play-offs): The eight best runners-up from the first round played one other team over two legs, home and away. The four winners qualified for the 2018 FIFA World Cup.

চূড়ান্ত অবস্থান (প্রথম পর্ব)[সম্পাদনা]

The draw for the first round was held on 25 July 2015, at the Konstantinovsky Palace in Strelna, Saint Petersburg, Russia.[২৯]

টেমপ্লেট:Legend4 টেমপ্লেট:Legend4

Group A Group B Group C
টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group A table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group B table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group C table
Group D Group E Group F
টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group D table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group E table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group F table
Group G Group H Group I
টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group G table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group H table টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Group I table
Ranking of runners-up

In deciding the eight best runners-up, the matches against the sixth-placed team in each group were discarded.[৪৬] টেমপ্লেট:2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Runners-up table

প্লে-অফ (দ্বিতীয় পর্ব)[সম্পাদনা]

The draw for the second round (play-offs) was held on 17 October 2017 at the FIFA headquarters in Zürich, Switzerland.[৪৭] The winners of each tie qualified for the World Cup. 2018 FIFA World Cup qualification – UEFA Second Round

আন্তঃ-কনফেডারেশন প্লে-অফ[সম্পাদনা]

There were two inter-confederation playoffs to determine the final two qualification spots for the finals. The first legs were played on 10 and 11 November 2017, and the second legs were played on 15 November 2017.[৪৮][৪৯]

The matchups were decided at the preliminary draw which was held on 25 July 2015, at the Konstantinovsky Palace in Strelna, Saint Petersburg, Russia.[২৯]

কনকাকাফ বনাম এএফসি[সম্পাদনা]

2018 FIFA World Cup qualification (inter-confederation play-offs)

ওএফসি বনাম কনমেবল[সম্পাদনা]

2018 FIFA World Cup qualification (inter-confederation play-offs)

সর্বোচ্চ গোলদাতা[সম্পাদনা]

16 goals
15 goals
11 goals
10 goals
9 goals
8 goals

For each confederation and inter-confederation play-offs, see sections in each article:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Road to Russia with new milestone"। FIFA.com। ১৫ জানুয়ারি ২০১৫। 
  2. "Zimbabwe expelled from the preliminary competition of the 2018 FIFA World Cup Russia"। FIFA.com। ১২ মার্চ ২০১৫। 
  3. "Impact of Football Association of Indonesia suspension"। AFC। ৩ জুন ২০১৫। 
  4. "Modest Bhutan begin World Cup adventure"। FIFA.com। ১১ মার্চ ২০১৫। ১৩ মার্চ ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "South Sudan's World Cup debut ended early by rain"। bbc.co.uk। ৭ অক্টোবর ২০১৫। 
  6. "FIFA Congress drives football forward, first female secretary general appointed"। FIFA.com। ১৩ মে ২০১৬। 
  7. "Kosovo to play in Group I in European Qualifiers"uefa.org। Union of European Football Associations (UEFA)। ৯ জুন ২০১৬। 
  8. "Kosovo and Gibraltar assigned to 2018 FIFA World Cup qualifying groups"FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association (FIFA)। ৯ জুন ২০১৬। 
  9. "Myanmar appeal partially upheld"। FIFA। ৭ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১১ 
  10. "Organising Committee for the FIFA World Cup extends its responsibilities to cover 2018 and 2022"। FIFA.com। ১৯ মার্চ ২০১৩। 
  11. "Konstantinovsky Palace to stage Preliminary Draw of the 2018 FIFA World Cup"। FIFA.com। ১০ অক্টোবর ২০১৪। 
  12. "Ethics: Executive Committee unanimously supports recommendation to publish report on 2018/2022 FIFA World Cup™ bidding process"। FIFA.com। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪। 
  13. "Long road to Russia begins in Dili"। FIFA.com। ১১ মার্চ ২০১৫। 
  14. "2022 FIFA World Cup to be played in November/December"। FIFA.com। ২০ মার্চ ২০১৫। 
  15. "Current allocation of FIFA World Cup™ confederation slots maintained"। FIFA.com। ৩০ মে ২০১৫। 
  16. "UEFA chief Platini calls for 40 team World Cup"। Reuters। ২৮ অক্টোবর ২০১৩। 
  17. "Blatter wants more Africa slots for World Cup"। Confederation of African Football। ২৬ অক্টোবর ২০১৩। 
  18. "Michel Platini's World Cup expansion plan unlikely – Fifa"। BBC Sport। ২৯ অক্টোবর ২০১৩। 
  19. "2018 World Cup expansion 'unlikely', says Valcke"। Soccerway। ২৯ অক্টোবর ২০১৩। 
  20. "Unanimous decision expands FIFA World Cup™ to 48 teams from 2026"FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association। ১০ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০১৭ 
  21. "Suspension of the Kuwait Football Association"। FIFA.com। ১৬ অক্টোবর ২০১৫। 
  22. "Brazil qualify for 2018 World Cup after Coutinho and Neymar down Paraguay"The Guardian। ২৯ মার্চ ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৭ 
  23. "Peru beat New Zealand 2-0 to secure final place"BBC Sport। ১৬ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৭ 
  24. "Regulations – 2018 FIFA World Cup Russia" (PDF)। FIFA.com। 
  25. "ExCo approves expanded AFC Asian Cup finals"। AFC। ১৬ এপ্রিল ২০১৪। 
  26. "World Cup draw looms large in Asia"। FIFA.com। ১৩ এপ্রিল ২০১৫। Completing the tournament's qualifying contenders will be the next 16 highest ranked teams, with the remaining 12 sides battling it out in play-off matches to claim the last eight spots. 
  27. "2018 FIFA World Cup: Asian Qualifying Round 3 line up complete"। Asian Football Confederation। ৩০ মার্চ ২০১৬। 
  28. "FORMAT OF 2017 AFCON QUALIFIERS AND 2018 WORLD CUP"। CAFonline.com। ২২ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৫ 
  29. "Preliminary Draw procedures outlined"। fifa.com। ৯ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  30. "June draw for third round of African Zone qualifiers"। FIFA.com। ২০ নভেম্বর ২০১৫। 
  31. "Concacaf estrenará formato de eliminatoria; sigue el Hexagonal" [New format for Concacaf qualification - Hexagonal retained] (Spanish ভাষায়)। ESPN Mexico। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  32. "Canada begins 2018 World Cup qualification in June"Sportsnet। ১৯ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  33. "CONCACAF to Hold Preliminary FIFA World Cup Qualifying Draw in Miami on January 15"। CONCACAF। ১২ জানুয়ারি ২০১৫। ২১ জানুয়ারি ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  34. "USMNT to start 2018 World Cup qualifying in November of 2015"। Sports Illustrated। ১২ জানুয়ারি ২০১৫। 
  35. "Official Draw Scheduled for the Final Round of CONCACAF Qualifying for FIFA World Cup Russia 2018"। CONCACAF.com। ১ জুলাই ২০১৬। ২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  36. "A unanimous decision: A draw will determine the classifications for the World Cup and CONMEBOL Tournaments"। CONMEBOL.com। ২৩ জানুয়ারি ২০১৫। 
  37. "Bolivia sanctioned for fielding ineligible player"FIFA.com। ১ নভেম্বর ২০১৬। 
  38. "Preliminary competition format outlined"। Oceania Football Confederation। ১০ জুলাই ২০১৫। 
  39. "OFC Executive Committee decisions"। OFC। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৪ 
  40. "OFC Executive Committee outcomes"। Oceania Football Confederation। ২০ অক্টোবর ২০১৪। ৫ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  41. "Football: Heat goes on NZ after switch"। New Zealand Herald। ১২ এপ্রিল ২০১৫। 
  42. "Stage 3 draw complete"। Oceania Football Confederation। ১৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  43. "New Zealand at home first in OFC play-off"FIFA। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুন ২০১৭ 
  44. "Executive Committee date in Vienna"। UEFA.org। ২১ মার্চ ২০১৫। 
  45. "New distribution concept for club competitions approved"। UEFA.org। ২৩ মার্চ ২০১৫। 
  46. "Focus switches to World Cup qualifying"। UEFA.com। ২২ আগস্ট ২০১৬। 
  47. "FIFA World Cup European play-off draw to take place on 17 October"। FIFA.com। ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭। 
  48. "Dates set for Socceroos-Honduras World Cup qualifier"SBS the World Game। ১৫ অক্টোবর ২০১৭। 
  49. "All Whites to play first leg against Peru on Saturday afternoon"nzherald.co.nzThe New Zealand Herald। ১৫ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:FIFA World Cup qualification