ঢাকা–চট্টগ্রাম উচ্চগতির রেলপথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ঢাকা–চট্টগ্রাম উচ্চগতির রেলপথ
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
অন্য নামঢাকা–চট্টগ্রাম উচ্চগতির রেল
স্থিতিপ্রস্তাবিত
মালিকবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইন নম্বর
অঞ্চল বাংলাদেশ
বিরতিস্থল
পরিষেবা
ধরনউচ্চগতির রেল
পরিচালকবাংলাদেশ রেলওয়ে
দৈনিক যাত্রীসংখ্যা৫০,০০০ (২০২২)
ইতিহাস
উদ্বোধনের পরিকল্পনা২০২২; ০ বছর আগে (2022)
কারিগরি তথ্য
রেলপথের দৈর্ঘ্য২৩০ কিলোমিটার (১৪০ মাইল)
বিদ্যুতায়ন25 kV AC, 50 Hz, overhead catenary
চালন গতি২০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা (১২০ মাইল প্রতি ঘণ্টা)

ঢাকা–চট্টগ্রাম উচ্চগতির রেলপথ একটি প্রস্তাবিত হাই স্পিড রেল লাইন, যা বাংলাদেশের বন্দরনগরী চট্টগ্রামকে রাজধানী শহর ঢাকার সাথে সংযোগ স্থাপন করবে। এটি বাংলাদেশের প্রথম উচ্চগতির রেল লাইন হবে। [১] প্রকল্পটি নির্মানে ৳৫০ হাজার কোটি টাকা ($১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) ব্যয় করা হবে। [২]

যদি এই পরিষেবাটি চালানো হয় তবে বর্তমান ৫-৭ ঘণ্টা রেল যাত্রাটি এক থেকে দেড় ঘণ্টা বা দুই ঘণ্টা পর্যন্ত হবে। [৩] এই উচ্চগতির ট্রেন প্রতি ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটারের সর্বাধিক গতিতে চালানো হবে নির্মিত রেলপথে। বাংলাদেশের বর্তমান আন্তঃনগর ট্রেনের গতি প্রতি ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার।

৩১ মে ২০১৮ সালে, বাংলাদেশ রেলওয়ে চীন রেলওয়ে ডিজাইনার করপোরেশন এবং মজুমদার এন্টারপ্রাইজেসের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত করেছে। [৪] প্রস্তাবিত উচ্চগতির রেলপথের নকশা এবং সম্ভাব্যতা যাচাই করতে এই চুক্তিটি করা হয়েছে। এই চুক্তি অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ১০২.১০ কোটি টাকায় সম্ভাব্যতা যাচাই এবং নকশার কাজ সম্পন্ন হবে।[২][৫] বাংলাদেশ সরকার এই খরচ বহন করবে। পরিকল্পনা অনুসারে, এই উচ্চগতির রেল লাইনটি টঙ্গী-ভৈরবের পরিবর্তে নারায়ণগঞ্জে হয়ে যাবে। [২][৬]

বর্তমান ঢাকা-চট্টগ্রাম ট্রেন লাইনের দৈর্ঘ্য ৩২০ কিলোমিটার। যাইহোক, প্রস্তাবিত ঢাকা-চট্টগ্রাম উচ্চ গতির রেল লাইনের দৈর্ঘ্য ২৩০ কিলোমিটার। [২][৭] ঢাকা-কুমিল্লা/লাকসাম-চট্টগ্রাম রেল পথের থেকে নতুন রেলপথের দৈর্ঘ্য প্রায় ৯১ কিলোমিটারে কমে যাবে। [৩]

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে উচ্চ গতির ট্রেন চালু হওয়ার পর দুই ঘণ্টার মধ্যে ৫০ হাজারেরও বেশি যাত্রী প্রতিদিন জাতীয় রাজধানী ঢাকা ও বন্দর শহর চট্টগ্রামের মধ্যে চলাচল করতে পারবে। [৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আসছে ঢাকা-চট্টগ্রাম হাই-স্পিড ট্রেন, পৌঁছানো যাবে ২ ঘণ্টায়!"। bangla.dhakatribune.com। ২১ জুলাই ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "High-speed train planned for Dhaka-Chittagong route"। www.dhakatribune.com। ২০ জুলাই ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  3. "দেড় ঘণ্টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সমীক্ষার চুক্তি সই" 
  4. "Bangladesh to test high-speed rail feasibility on key route" 
  5. "Contract signed for feasibility study of high speed train"। www.thedailystar.net। ৫ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  6. "Dhaka-Chittagong high-speed rail link likely by 2022" 
  7. "Dhaka-Ctg bullet train on the cards"। www.thedailystar.net। ১ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  8. "Dhaka-Chittagong high speed trains to ferry 50,000 passengers daily"। www.newagebd.net। ১৭ জুলাই ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]