রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী
রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী.jpg
গঠিত১৯৭৬; ৪৪ বছর আগে (1976)
সদরদপ্তরঢাকা, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
বাংলাদেশ
সদস্য
২০০০
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা
ওয়েবসাইটhttps://www.dos.gov.bd

রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনী (সংক্ষেপে: আরএনবি) বাংলাদেশ রেলওয়ের অধীনে একটি বিশেষ সুরক্ষা বাহিনী যা রেলপথ এবং ট্রেনগুলিকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য দায়বদ্ধ। এটি রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মালিকানাধীন। [১] মোঃ ফাত্তাহ ভূঁইয়া রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনীর প্রধান কমান্ড্যান্ট।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনী ১৯৭৬ সালে "রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনী অধ্যাদেশের" মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়।[৩] ২০১৬ সালে, ১৯৭৬ সালের রেলপথের নিরপত্তা বাহিনী অধ্যাদেশ বাতিল করা হয় এবং ২০১৬ সালের একটি হালনাগাদকৃত অধ্যাদেশ দিয়ে প্রতিস্থাপন করা হয়।[৪][৫]

২০১৩ সালের হিসাবে, রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনীতে প্রায় দুই হাজার সদস্য রয়েছে। এটি বাংলাদেশের রেল ব্যবস্থার সুরক্ষা এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করতে রেলওয়ে পুলিশের সাথে কাজ করছে।[৬][৭] ২০১৯ সালে, রেলওয়ে নিরপত্তা বাহিনীর ১১তম ব্যাচ স্নাতক হয়ে পাবনা জেলার পাকশিতে তাদের উত্তীর্ণ প্যারেড সম্পন্ন করেছে।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Steps taken to overhaul railways: Minister"The Financial Express (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  2. "High speed train soon: Sujan"bangladeshpost.net (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  3. "The Railway Nirapatta Bahini Ordinance, 1976"bdlaws.minlaw.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  4. "রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী আইন, ২০১৬"bdlaws.minlaw.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  5. "Railway Nirapatta Bahini Bill passed"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  6. "Railway seeks BGB help for security"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১ ডিসেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  7. "Illegal structures on rly land demolished"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ জুন ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০ 
  8. Bappi, Emroz Khondker। "Railway Minister: All irregularities in rail service will be resolved"। Dhaka Tribune। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২০