সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং
কেন্দ্রীয় রেলওয়ে ভবন
সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং
বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপকের কার্যালয়
বিকল্প নামসিআরবি
সাধারণ তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
অবস্থানচট্টগ্রাম
দেশবাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২২°২০′৩১″ উত্তর ৯১°৪৯′১৮″ পূর্ব / ২২.৩৪১৯৮০৪° উত্তর ৯১.৮২১৫৮৪১° পূর্ব / 22.3419804; 91.8215841স্থানাঙ্ক: ২২°২০′৩১″ উত্তর ৯১°৪৯′১৮″ পূর্ব / ২২.৩৪১৯৮০৪° উত্তর ৯১.৮২১৫৮৪১° পূর্ব / 22.3419804; 91.8215841
সম্পূর্ণ১৮৭২

সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং (সিআরবি) বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের কোতোয়ালী থানার অধীনে টাইগার পাস সংলগ্ন পাহাড়ী এলাকায় অবস্থিত। এটি বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপকের নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়। ১৮৭২ সালে সম্পূর্ণ হওয়া ভবনটি,[১] বন্দর নগরীর প্রাচীনতম ভবন। এর পূর্বদিকে, সিআরবি সড়ক জুড়ে রয়েছে রেলওয়ে হাসপাতাল যা ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়।[২] এখানে একটি ৫০ শয্যা বিশিষ্ট মেডিকেল কলেজ স্থাপনের প্রস্তাবনা ছিল এবং বর্তমানে যা ২৫০ শয্যায় উন্নীত হয়েছে।[৩] সিআরবি পার্শ্ববর্তী স্থানে রেল কর্মকর্তাদের জন্য একটি আবাসিক এলাকাও গড়ে উঠেছে। সিআরবি পাহাড়ের রয়েছে হাতির বাংলো। এছাড়াও কেন্দ্রের দিকে রয়েছে শিরীষতলা নামে একটি প্রশস্ত মাঠ, যেখানে প্রতিবছর পহেলা বৈশাখ, পহেলা ফাল্গুন ইত্যাদি ঐতিহ্যগত উৎসব আয়োজিত হয়ে থাকে।

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Areas and buildings requiring preservation and conservation" (PDF)Chittagong Development Authority। ২৬ আগস্ট ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  2. Chaudhury, Tushar Hayat (১০ এপ্রিল ২০০৫)। "Chest Disease Hospital in Ctg in bad shape"The New Age। ১৭ ডিসেম্বর ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. "Commencement of Project Development Activities for Establishing Bangladesh Railways Medical College in Chittagong"Public Private Partnership Authority। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • মাহবাবুল হক Chittagong guide: tourist, industrial, shipping & business guide (চট্টগ্রাম গাইড: পর্যটক, শিল্প, পরিবহন ও ব্যবসায়ের গাইড) বরনরেখা ১৯৮১
  • নাজিমুদ্দিন আহমদ Buildings of the British Raj in Bangladesh (বাংলাদেশে ব্রিটিশ রাজের ভবন) বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ১৯৮৬
  • Abdullah-al Mahmud (৩০ নভেম্বর ২০০৫)। "Archaeological heritage in tatters"দ্য ডেইলি স্টার 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]