মিতালী এক্সপ্রেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিতালী এক্সপ্রেস
Train Board.jpg
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
পরিষেবা ধরনআন্তর্জাতিক ট্রেন
প্রথম পরিষেবা২৭ মার্চ ২০২১; ৬ মাস আগে (2021-03-27)
বর্তমান পরিচালকভারতীয় রেলওয়ে, বাংলাদেশ রেলওয়ে
যাত্রাপথ
শুরুনিউ জলপাইগুড়ি জংশন রেলওয়ে স্টেশন
বিরতি৩ (কারিগরিগত বিরতি)
শেষঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশন
ভ্রমণ দূরত্ব৫৯৫ কিলোমিটার (৩৭০ মাইল)
যাত্রার গড় সময়১১.৩০ ঘণ্টা
পরিষেবার হারসাপ্তাহিক দুই দিন
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীএসি-প্রথম+এসি চেয়ার গাড়ি: ১০টি
আসন বিন্যাসহ্যাঁ
ঘুমানোর ব্যবস্থাহ্যাঁ
অটোরেক ব্যবস্থাআছে
খাদ্য সুবিধাহ্যাঁ
পর্যবেক্ষণ সুবিধাআছে
বিনোদন সুবিধানা
মালপত্রের সুবিধাআছে
কারিগরি
ট্র্যাক গেজব্রডগেজ ১,৬৭৬ মিলিমিটার (৫ ফুট ৬ ইঞ্চি)
পরিচালন গতিবিরতিসহ ৪৫.১৯ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা (২৮.০৮ মাইল প্রতি ঘণ্টা)
পথের মানচিত্র
কিমি
.0 নিউ জলপাইগুড়ি
৫৬.৫.0 হলদিবাড়ী
সীমান্ত
৬৬.৯.0 চিলাহাটি
১৩৪.৫.0 পার্বতীপুর
৫১১.২.0 ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট

মিতালী এক্সপ্রেস একটি আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন যাত্রীবাহী ট্রেন যা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের শিলিগুড়ি থেকে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার মধ্যে যাতায়াত করে। [১][২] এটিই তৃতীয় ট্রেন যা এই দুই দেশের মধ্যে চলাচল করে। ১৯৬৫ সালে ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধের পরে বন্ধ হয়ে যায় এই রুট। এটি চালু হয় ৫৬ বৎসর পর। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে ২০২১ সালের ২৭ শে মার্চ, এই ট্রেন সার্ভিস চালু করা হয়।[৩] ট্রেনের বগি একই থাকে তবে ইঞ্জিন পরিবর্তন হয় যাওয়া আসায়, এর ফলে যাত্রীদের সীমান্তে ট্রেন পরিবর্তন করতে হয় না। মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কেনার জন্য আগে থেকেই বৈধ ভিসা এবং পাসপোর্ট প্রয়োজন হয়। টিকিট বাংলাদেশের ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশন এবং ভারতের শিলিগুড়ির নিউ জলপাইগুড়ি রেল স্টেশনে পাওয়া যায়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২৬ মার্চ ২০২১ সালে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যৌথভাবে নিউ জলপাইগুড়ি-ঢাকা মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেন পরিষেবার সূচনা করেন।[৪] বাংলাদেশের স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর উদ্‌যাপন করতে প্রধানমন্ত্রী মোদী ঢাকায় এসেছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী (পঞ্চাশ বছর) উপলক্ষে এই ট্রেন পরিষেবার উদ্বোধন করা হয়।

নামকরণ[সম্পাদনা]

নতুন ট্রেনটির নামের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে চারটি ভিন্ন নাম প্রস্তাব করেছিলেন রেল কর্মকর্তারা। যেগুলি ছিল মিতালী, সম্প্রীতি, সুহৃদ এবং বন্ধু। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিতালী নামটি বেছে নেন।

রুট[সম্পাদনা]

মিতালী এক্সপ্রেস নিউ জলপাইগুড়ি থেকে হলদিবাড়ি হয়ে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশের চিলাহাটি, নীলফামারী, পার্বতীপুর, হিলি, নাটোর, ঈশ্বরদী আর টাঙ্গাইল হয়ে ঢাকায় এসে পৌঁছায়।[৫]

পরে ট্রেনটি বাংলাদেশের ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেল স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে, তারপর পার্বতীপুর এবং চিলাহাটিতে যেয়ে থামে। তারপর সীমান্ত অতিক্রম করে হলদিবাড়ি যায়। ঢাকা ও চিলাহাটির মধ্যে দূরত্ব ৪৫৩ কিলোমিটার এবং চিলাহাটি ও নিউ জলপাইগুড়ির মধ্যে দূরত্ব ৭১ কিলোমিটার। চিলাহাটিতে যাওয়ার পর ভারতে ভ্রমণকারী যাত্রীদের জন্য ট্রেনটিতে দুটি অতিরিক্ত কোচ যুক্ত করা হয়। তারপর ট্রেনটি বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারত যায় এবং নিউ জলপাইগুড়ি রেল স্টেশনে পৌঁছানোর আগে ট্রেনটি হলদিবাড়িতে একবার থামে।

সময় ও হার[সম্পাদনা]

উদ্বোধনের পর থেকে, দ্বি-সাপ্তাহিকভাবে চালিত এই ট্রেনটি রবিবার ও বুধবার নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে এবং সোমবার ও বৃহস্পতিবার ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে ছেড়ে যায়।

শিলিগুড়ি থেকে ঢাকা পর্যন্ত প্রায় ছয়শ’ কিলোমিটার রেলপথ পাড়ি দিতে সময় লাগে সাড়ে প্রায় ১১ ঘণ্টা। ভারতীয় সময় সকালে নিউ জলপাইগুড়ি জংশন রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে রাতে মিতালী পৌছায় ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশনে। এরপর পরদিন বাংলাদেশ সময় সকালে ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে রাতে ফের শিলিগুড়িতে পৌছায়।

নিউ জলপাইগুড়ি থেকে ঢাকা
ট্রেন নং স্টেশন আগমন প্রস্থান অঞ্চল
১৩১৩১ নিউ জলপাইগুড়ি ০৮:৪০ এনইএফআর
ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ২০:০০ বিআর
ঢাকা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি
ট্রেন নং স্টেশন আগমন প্রস্থান অঞ্চল
১৩১৩২ ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ০৭:২৫ বিআর
নিউ জলপাইগুড়ি ১৮:৪৫ এনইএফআর

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. প্রতিবেদক, জ্যেষ্ঠ; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "জলপাইগুড়ির পথে 'মিতালী এক্সপ্রেস' চালুর ঘোষণা ২৭ মার্চ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২ 
  2. "প্রধানমন্ত্রীর পছন্দ 'মিতালী এক্সপ্রেস', ভারতের সম্মতিতে হবে চূড়ান্ত"দ্য ডেইলি স্টার। ২০২১-০৩-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২ 
  3. "ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন উদ্বোধন ২৭ মার্চ"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২২ 
  4. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "ভিসা চালু হলে চলবে 'মিতালী এক্সপ্রেস'"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০২১ 
  5. "ঢাকা-শিলিগুড়ি রেল: নতুন সংযোগে ভারতীয়দের কী লাভ"বিবিসি বাংলা। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২১