নবাব আলী হায়দার খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নবাব

আলী হায়দার খান
জন্ম১১ ফেব্রুয়ারি ১৯০০
মৃত্যু৩০ জুন ১৯৬৩
বাসস্থানপৃত্থিমপাশা জমিদার বাড়ি
জাতীয়তাব্রিটিশ ভারত, (বাঙালি, সিলেটি) - বর্তমান বাংলাদেশ
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত
পেশারাজনীতিবিদ ও মন্ত্রী
কার্যকাল৫৮
যুগসিলেট, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমান বাংলাদেশ)
আদি নিবাসকুলাউড়া উপজেলা, মৌলভীবাজার
পূর্বসূরীনবাব আলী আমজাদ খান
উত্তরসূরীনবাব আলী আসগার খান
রাজনৈতিক দলনিখিল ভারত মুসলিম লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীমুর্শিদজাদি হোসেন আরা বেগম
সন্তাননবাব আলী সাফদার খান, সায়েদা তুন্নেসা বেগম, নবাব আলী সারওয়ার খান
পিতা-মাতা
আত্মীয়নবাব সাইফ আলি মির্জা (শ্বশুর), নবাব আলী আসগর খান (ভাই), নবাব আলী আব্বাছ খান (নাতি)
পরিবারপৃত্থিমপাশা জমিদার পরিবার

নবাব আলী হায়দার খান (জন্ম: ১৯০০- মৃত্যু: ২০ জুন ১৯৬৩) ব্রিটিশ ভারতের একজন বাঙালি নাবিক ছিলেন। ভারতবর্ষে ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা ও রাজনীতিবিদ ছিলেন।[১][২][৩]

জীবনী[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ ভারতে আসাম প্রদেশের সিলেটের পৃত্থিমপাশা জমিদার বাড়িতে ১৯০০ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯১৬ সালে তিনি মুর্শিদাবাদের নবাব সাইফ আলি মির্জার বড় ময়ে মুর্শিদজাদি হোসেন আরা বেগমকে বিয়ে করেন। তাদের তিন সন্তান ছিল - নবাব আলী সাফদার খান, সৈয়দুনেসা বেগম ও নবাব আলী সরওয়ার খান। নবাব আলী হায়দার খান ছিলেন নিখিল ভারত মুসলিম লীগের একজন প্রভাবশালী নেতা। বৃটিশ ভারতে আসাম প্রাদেশি সরকারে আসাম বাংলার বিখ্যাত রাজনীতিবিদ স্যার সৈয়দ সাদ উল্লাহর মন্ত্রীসভায় কৃষি মন্ত্রী ছিলেন। ১৯৪২ থেকে ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত আসামের গোপীনাথ বরদলৈর মন্ত্রীসভার বিদ্যুৎ ও পানি উন্নয়ন মন্ত্রী ছিলেন।

১৯৪৫ সালে তিনি নিখিল ভারত মুসলিম লীগের আসামের প্রধান নেতা ও জোটের নেতা ছিলেন। তার স্থরের নেতাদের মধ্যে ছিলেন ভারতের পঞ্চম রাষ্ট্রপতি ফখরুদ্দিন আলি আহমেদগোপীনাথ বরদলৈর মতো নেতারা। আসামের মুখ্যমন্ত্রী গোপীনাথ বরদলৈ নবাব আলী হায়দার খানকে প্রধান অবলম্বন মনে করতেন।[৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Lest we forget"archive.thedailystar.net। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-০২ 
  2. "Nawab Ali Haider Khan News and Updates from The Economic Times"The Economic Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-১৮ 
  3. "The Daily Star Web Edition Vol. 5 Num 56"archive.thedailystar.net। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-১৮ 
  4. কুড়ি শতিকার কুড়িজন বিশিষ্ট অসমীয়া, সম্পাদক-ড: প্রণতি শর্মা, অনিল শর্মা; জার্নাল এম্প’রিয়াম, ১৯৯৯

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]