মহীচন্দ্র মিরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মহীচন্দ্র মিরি
জন্ম১৯০৩
মৃত্যু১৯৩৯
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাবন সংরক্ষক, শিক্ষাবিদ
পরিচিতির কারণঅসমের বন্যকর্মী
সন্তানউৎপল মিরি, মৃণাল মিরি

মহীচন্দ্র মিরি (ইংরেজি: Mahi Chandra Miri;অসমীয়া: মহীচন্দ্র মিরি) অসমের প্রথম মুখ্য বন সংরক্ষক। তিনি অসমের বন্য জীব-জন্তু সংরক্ষন করার সংকল্প নিয়েছিলেন। কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানের এক খর্গ বিশিষ্ট গণ্ডারের বিষয়ে তিনিই প্রথম বিশ্বকে অবগত করান। কথিত আছে যে তিনি কাজিরাঙা অরণ্যের টিলায় বসে বাইনোকুলার ও বন্দুক হাতে নিয়ে বন পর্যবেক্ষন করিতেন। তার পত্নী ছিলেন প্রসিদ্ধ শিক্ষাবিদ ইন্দিরা মিরি ও তার সন্তান উৎপল মিরি ও মৃণাল মিরি।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

১৯২৭ সনে গুয়াহাটির কটন কলেজ থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯২৯ সনে মহীচন্দ্র মিরি ও মাধব ভট্টাচার্যকে ইম্পিরিয়েল ফরেষ্ট সার্ভিসের জন্য নির্বাচন করা হয় ও রেংগুনের ফরেষ্ট কলেজে প্রশিক্ষনের জন্য পাঠানো হয়। সন্মানীয় ইম্পিরিয়েল ফরেষ্ট সার্ভিসের জন্য নির্বাচিত করা তারাই প্রথম অসমীয়া ব্যক্তি।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

রেংগুনের ফরেষ্ট প্রশিক্ষন সমাপ্ত হওয়ার পর ১৯৩১ সনে তাকে গুয়াহাটিতে এক্সট্রা এসিসটেন্ট কনজারভেটর অফ ফরেষ্ট রুপে নিযুক্ত করা হয়। ১৯৩৪ সনে তাকে গোলাঘাট হেডকোয়াটারে স্থিত সেই সময়ের "Kaziranga game sanctuary"-এ বদলি করা হয়।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৩২ সনে মহীচন্দ্র মিরি সোণাধর সেনাপতির জৈষ্ঠ কন্যা ইন্দিরাকে বিবাহ করেন।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

যোরহাটে কর্মরত অবস্থায় কালাজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুমুখে পতিত হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]