মহীচন্দ্র মিরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মহীচন্দ্র মিরি
জন্ম১৯০৩
মৃত্যু১৯৩৯
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাবন সংরক্ষক, শিক্ষাবিদ
যে জন্য পরিচিতঅসমের বন্যকর্মী
সন্তানউৎপল মিরি, মৃণাল মিরি

মহীচন্দ্র মিরি (ইংরেজি: Mahi Chandra Miri;অসমীয়া: মহীচন্দ্র মিরি) অসমের প্রথম মুখ্য বন সংরক্ষক। তিনি অসমের বন্য জীব-জন্তু সংরক্ষন করার সংকল্প নিয়েছিলেন। কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানের এক খর্গ বিশিষ্ট গণ্ডারের বিষয়ে তিনিই প্রথম বিশ্বকে অবগত করান। কথিত আছে যে তিনি কাজিরাঙা অরণ্যের টিলায় বসে বাইনোকুলার ও বন্দুক হাতে নিয়ে বন পর্যবেক্ষন করিতেন। তাঁর পত্নী ছিলেন প্রসিদ্ধ শিক্ষাবিদ ইন্দিরা মিরি ও তাঁর সন্তান উৎপল মিরি ও মৃণাল মিরি।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

১৯২৭ সনে গুয়াহাটির কটন কলেজ থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯২৯ সনে মহীচন্দ্র মিরি ও মাধব ভট্টাচার্যকে ইম্পিরিয়েল ফরেষ্ট সার্ভিসের জন্য নির্বাচন করা হয় ও রেংগুনের ফরেষ্ট কলেজে প্রশিক্ষনের জন্য পাঠানো হয়। সন্মানীয় ইম্পিরিয়েল ফরেষ্ট সার্ভিসের জন্য নির্বাচিত করা তারাই প্রথম অসমীয়া ব্যক্তি।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

রেংগুনের ফরেষ্ট প্রশিক্ষন সমাপ্ত হওয়ার পর ১৯৩১ সনে তাঁকে গুয়াহাটিতে এক্সট্রা এসিসটেন্ট কনজারভেটর অফ ফরেষ্ট রুপে নিযুক্ত করা হয়। ১৯৩৪ সনে তাঁকে গোলাঘাট হেডকোয়াটারে স্থিত সেই সময়ের "Kaziranga game sanctuary"-এ বদলি করা হয়।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৩২ সনে মহীচন্দ্র মিরি সোণাধর সেনাপতির জৈষ্ঠ কন্যা ইন্দিরাকে বিবাহ করেন।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

যোরহাটে কর্মরত অবস্থায় কালাজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুমুখে পতিত হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]