হিরণ্য চন্দ্র ভূঞা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডঃ হিরণ্য চন্দ্ৰ ভূঞা
জন্ম১৯০৫ সাল
নগাওঁ জেলার রাহা, অসম, ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
কর্মক্ষেত্রবিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠানগুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়

ডঃ হিরণ্য চন্দ্ৰ ভূঞা কটন কলেজ এর প্ৰাক্তন অধ্যক্ষ তথা গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয় এর তৃতীয় উপাচাৰ্য ৷ অসমে বিজ্ঞানকে জনপ্ৰিয় করে তোলার ক্ষেত্ৰে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখা অসমীয়া বিজ্ঞানীদের মধ্যে তিনি অন্যতম৷[১]

প্ৰারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯০৫ সালে নগাওঁ জেলার রাহার ওচরের কঁহার গ্রামে ডঃ হিরণ্য চন্দ্ৰ ভূঞার জন্ম হয়৷ তার পিতা নগাওঁ জেলার একজন প্ৰখ্যাত বিজ্ঞান শিক্ষক গোপাল ভূঞা৷ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হওয়া মেট্ৰিক পরীক্ষায় আসামের ভিতরে প্ৰথম স্থান লাভ করেছিলেন৷ কলকাতার প্রেসিডেন্সী কলেজ থেকে বিএসসি পরীক্ষাতে পদাৰ্থ বিজ্ঞানে প্ৰথম শ্ৰেণীসহ উত্তীৰ্ণ হন৷ ১৯২৯ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্ৰথম শ্ৰেণীসহ এম এস সি লাভ করেন৷

কৰ্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯২৯ সালে তিনি কটন কলেজ এর পদাৰ্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপকরুপে যোগদান করেন ৷ ১৯৪৭ সাল পর্যন্ত শিক্ষাদান করে অবশেষে গবেষণার জন্য যুক্তরাজ্যের ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয় এ যোগ দান করেন ৷ সেখানে প্ৰখ্যাত পদাৰ্থবিদ তথা গণিতজ্ঞ ডঃ এন মটর তত্বাবধানে গবেষণা করে পি এইচ ডি লাভ করেন ৷

১৯৫১ সালে ডঃ হিরণ্য চন্দ্ৰ ভূঞা কটন কলেজের অধ্যক্ষ পদে অধিষ্ঠিত হন ৷ ১৯৫৫ সালে অসমের শিক্ষাধিকার রুপে তিনি শিলং এ যোগদান করেন ৷ তার পরবর্তী সময়ে অসম সরকারের শিক্ষা সচিব, লোকসেবা কমিটির সদস্য এবং অধ্যক্ষ পদে কাৰ্যনিৰ্বাহ করেন৷ ১৯৬০ সালে গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচাৰ্য হন ৷ ১৯৬৪ সাল থেকে ১৯৬৬ সাল পর্যন্ত তিনি অসম বিজ্ঞান সমিতির সভাপতি হিসেবেও কাৰ্যনিৰ্বাহী ছিলেন ৷ [২]

অবদান[সম্পাদনা]

সারা জীবনজুড়ে তিনি অসমে বিজ্ঞান চৰ্চার এক অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে অবদান রেখেছেন ৷[১][৩]

তথ্যসুত্ৰ[সম্পাদনা]