লক্ষ্মীনন্দন বরা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লক্ষ্মীনন্দন বরা
জন্ম১ মার্চ,১৯৩২
পেশাসহিত্যিক, শিক্ষাবিদ
ভাষাঅসমীয়া
জাতীয়তাভারতীয়
উল্লেখযোগ্য রচনাবলিপাতাল ভৈরবী
কায়কল্প
যাকেরি নাহিকে উপাম
উল্লেখযোগ্য পুরস্কারসাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার (১৯৮৮)[১]
অসম উপত্যকা সাহিত্য বঁটা (২০০৪)
সরস্বতী সন্মান (২০০৮)

লক্ষ্মীনন্দন বরা (ইংরেজি: Lakhinandan Borah; অসমীয়া: লক্ষ্মীনন্দন বরা) একজন অসমীয়া গল্পকার, ঔপন্যাসিক ও শিক্ষাবিদ। রামধেনু যুগে গল্পকার রুপে আত্মপ্রকাশ করে পরবর্তী জীবনে তিনি উপন্যাসো রচনা করেছিলেন। অসম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রুপে অবসর গ্রহণ করা লক্ষ্মীনন্দন বরা ১৯৮৮ সনে পাতাল ভৈরবী গ্রন্থের জন্য সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার লাভ করেন। তিনি ১৯৯৫ সনে অসম সাহিত্য সভার বোকাখাত অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেছিলেন।

জন্ম ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

অসমের নগাঁও জেলার হাতিচোং অঞ্চলের কুজিদাঁহ গাঁও নামক স্থানে লক্ষ্মীনন্দন বরা জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম ফেটুরাম বরা ও মাতার নাম ফুলেশ্বরী বরা। তিনি বেবেজিয়া পণ্ডিত কনকচন্দ্র শর্মা হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক শিক্ষা গ্রহণ করে নগাঁও সরকারী উচ্চতর মাধ্যমিক বালক বিদ্যালয়ে নামভর্তি করেন। ১৯৪৮ সনে উক্ত বিদ্যালয় থেকে প্রবেশিকা পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হন। ১৯৫২ সনে কটন কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন ও ১৯৫৪ সনে কলকাতা থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৫৫ সনে তিনি শিলং-এর সেন্ট এন্থনী কলেজের প্রবক্তা রুপে প্রথম কর্মজীবনে প্রবেশ করেন। তারপর তিনি জগন্নাথ বরুয়া মহাবিদ্যালয়, নগাঁও মহাবিদ্যালয়, কটন কলেজ ইত্যাদিতে শিক্ষকতা করেন ও ১৯৫৮ সনে যোরহাটের অসম কৃষি মহাবিদ্যালয়ে যোগদান করেন। ১৯৯২ সনে তিনি অসম কৃষি মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপক রুপে অবসর গ্রহণ করেন। কিছুদিন তিনি জার্মানীর গেটেনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া বিজ্ঞানের ভিজিটিং প্রফেসার হিসেবে, ইন্দো-জার্মান গবেষণা প্রকল্পের ও অসম প্রদূষন বোর্ডের অধ্যক্ষরুপে কার্যনির্বাহ করেছিলেন। ১৯৭৯ সনে তিনি কিছুদিন কলকাতা থেকে প্রকাশিত দ্যা ইকনোমিক্স টামইমস্‌ খবরের কাগজে যোরহাটের সংবাদদাতা রুপেও কার্যনির্বাহ করেছিলেন। তদুপরি তিনি ১৯৯২ সন থেকে ১৯৯৫ সন পর্যন্ত সাপ্তাহিক রংপুর খবরের কাগজের সম্পাদক ছিলেন।

সাহিত্যিক জীবন[সম্পাদনা]

লক্ষ্মীনন্দন বরা রামধেনুতে গল্পকার রুপে আত্মপ্রকাশ করেন। তার রচনাসমূহ রামধেনু, নতুন অসমীয়া, অরুনাচল ইত্যাদিতে প্রকাশিত হত। ১৯৮৮ সনে তিনি পাতাল ভৈরবী সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার ও ২০০৪ সনে অসম উপত্যকা সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৯৬ সনে অসম সাহিত্য সভার বোকাখাত অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। বর্তমানে তিনি গরিয়সী আলোচনী পত্রিকায় সম্পাদক হিসেবে কর্মরত আছেন। গঙা চিলনীর পাখি তার প্রথম উপন্যাস। কাল বলুকাত খোঁজ তার আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ।

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

উপন্যাস

  1. গঙা চিলনীর পাখি
  2. শিখর সুরভি
  3. মেঘালী দুপর
  4. বলুকাত বিজুলী
  5. উত্তর পুরুষ
  6. বিশেষ এরাতি
  7. পতন
  8. পাতাল ভৈরবী
  9. নায়ক অধিনায়ক
  10. মৎস্যকন্যা
  11. সেহি গুণনিধি

  1. মেঘত মাদল বাজে
  2. কায়কল্প
  3. চতুরংগ
  4. কাচিয়লির কুঁয়লী
  5. মন মাটি মেঘ
  6. গৌরি রূপক
  7. নিষিদ্ধ চেতনা
  8. মাজত তৃষার নৈ
  9. মাটিত মেঘর ছাঁ
  10. দহন দুলড়ী
  11. বহ্ন ব্যাকুলতা

  1. আকাশ থমকি রয়
  2. ছাঁ জুইর পোহরত
  3. গণেশগুরি
  4. কায়কল্প
  5. আকৌ শরাইঘাট
  6. এরাবারীর লেছেরী
  7. প্রেয়সী
  8. পাখি
  9. হিয়াত তিরেবরায়

নাটক

  1. মহে গুণ গুণ করে[২]

ছোটগল্প

  1. দৃষ্টিরূপা
  2. সেই সুরে উতলা
  3. গোপন গধূলি
  4. অচিন কইনা
  5. এই রূপ এই চন্দ
  6. ব্যতিক্রম
  7. দুষ্টর কারাগার
  8. প্রেয়সী ইত্যাদি

ভ্রমণ কাহিনী

  1. জোরালগা জার্মানীত
  2. সীমার পরিধি ভাঙি

আত্মজীবনী

  1. কাল বলুকাত খোজ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাহিত্য অকাডেমি বঁটা বিজয়ী অসমীয়াসকলর তথ্য"। সাহিত্য অকাডেমি। ৭ জানুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নৱেম্বর ১৬, ২০১২  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. রূপালীপর্দা ডট কম