ইশরাত মঞ্জিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১৯৫২-এর আগে তোলা ইশরাত মঞ্জিলের ছবি।

ইশরাত মঞ্জিল ঢাকার নবাব পরিবারের অন্যতম রাজকীয় আবাস। ঢাকার নবাবদের স্থানান্তরের জন্য প্রাসাদটি ব্যবহৃত হতো।[১] এই আকর্ষণীয় দ্বিতল ভবনটির অবস্থান ছিল ঢাকার শাহবাগে[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সর্বভারতীয় শিক্ষা সম্মেলন[সম্পাদনা]

১৯০৬ ঢাকার সর্বভারতীয় শিক্ষা সম্মেলন, যা থেকে মুসলিম লীগ গঠনের উদ্যোগ গৃহীত হয় (৩০ ডিসেম্বর ১৯০৬)।

১৯০৬ সালে সর্বভারতীয় শিক্ষা সম্মেলন আয়োজনের জন্য ইশরাত মঞ্জিল বিখ্যাত। ঢাকার নবাব স্যার খাজা সলিমুল্লাহ আহুত এই সম্মেলনে উপমহাদেশের প্রথম মুসলিম রাজনৈতিক দল নিখিল ভারত মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গৃহীত হয়। ১৯০৫ সালের বঙ্গভঙ্গের বিরুদ্ধে জাতীয় কংগ্রসের অবস্থানের প্রেক্ষিতে ভারতীয় মুসলিমদের সংগঠন হিসেবে মুসলিম লীগ গঠিত হয় এবং পাকিস্তান প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা রাখে।

ইশরাত মঞ্জিল প্রাসাদের দরবার হলে আহুত সর্বভারতীয় মুসলিম নেতাদের উপস্থিতিতে সর্বভারতীয় মুসলিম সঙ্ঘের আদলে নতুন মুসলিম রাজনৈতিক দলের নামকরণ নিয়ে বৈঠক হয়। এর মধ্যে খাজা সলিমুল্লাহ বাহাদুর ও হাকিম আজমল খান প্রস্তাবিত "নিখিল ভারত মুসলিম লীগ" নামটি গৃহীত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

১৯১২ সালে ভাইসরয় চার্লস হার্ডিঞ্জের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদল নবাব খাজা সলিমুল্লাহর সাথে ইশরাত মঞ্জিলে বৈঠক করেন। বৈঠকে স্যার সলিমুল্লাহ পূর্ববঙ্গে মুসলিম জনগোষ্ঠীর জন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি করেন, যা ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বাস্তবায়িত হয়।

বর্তমান অবস্থা[সম্পাদনা]

বর্তমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের উত্তর-পূর্ব প্রান্তের মধুর ক্যান্টিন ইশরাত মঞ্জিল বাগানবাড়ির জলসাঘর হিসেবে ব্যবহৃত হতো। জলসাঘরের মেঝে ও আশেপাশের এলাকা মার্বেল পাথরে আচ্ছাদিত ছিল। ভবনটি নবাব পরিবার স্কেটিং করতে ব্যবহার করত। এ কারণে এটি "স্কেটিং প্যাভিলিয়ন" নামেও পরিচিত ছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৪′০৫″ উত্তর ৯০°২৩′৩৮″ পূর্ব / ২৩.৭৩৪৬° উত্তর ৯০.৩৯৩৮° পূর্ব / 23.7346; 90.3938