বিষয়বস্তুতে চলুন

"বাআল" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যা?
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যা?)
[[File:Baal Ugarit Louvre AO17330.jpg|thumb|right|বাআলের ব্রোঞ্জ মূর্তি, খ্রিস্টীয় দ্বাদশ-চতুর্দশ শতক, রাস শর্মা (প্রাচীন উগারিট) অঞ্চলে প্রাপ্ত]]
{{প্রাক-ইসলামী দেবতাসমূহ}}
'''বাআল''' (([[হিব্রু]] בַּעַל) উত্তর-পশ্চিমের সেমিটিক ইশ্বর এবং শব্দটির অর্থ পভু।<ref>Serge Lancel, ''Carthage, a History'', p. 194.</ref> লেভান্ত এবং এশিয়া মাইনরের বিস্তৃত এলাকায় শহরসমূহের রক্ষক দেবতাদেরকে বাআল নামে সম্বোধন করা হত। বাআল উপাসকগণ বাআলাইত নামে পরিচিত ছিলো।
 
 
 
কিছু লিপি থেকে জানা যায় প্রাচীন আরব দেবতা [[হাদাদ]]কে বাআল নামে সম্বোধন করা হত। হাদাদ ছিলেন বজ্রপাত, উর্বতা, কৃষি এবং স্বর্গের দেবতা। কিন্তু সেই সময়ে শুধু মাত্র ধর্মযাজকগণ তার পবিত্র নাম উচ্চারণের অনুমতি পেতেন। সেজন্য জনসাধারণ তাকে বাআল নামে সম্বোধন করত।
 
==আল কোরআনে==
কুরআন মাজীদের বিভিন্ন স্থানে বাআল শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে। যেমনঃ সূরা বাকারার ২২৮, সূরা নিসার ১২৭, সূরা হূদের ৭২ এবং সূরা নূরের ৩১ আয়াতসমূহ।
 
সুরা সাফফাতের ১২৫ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে হযরত ইলিয়াস (আঃ) [ইলিজাহ] কে তার লোকদেরকে বাআল এর পূজা পরিত্যাগ করে সত্যিকারের সৃষ্টিকর্তার উপাসনা করার উপদেশ দিয়েছেন। ''তোমরা কি বাআলকে ডাকো এবং পরিত্যাগ করো শ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম স্রষ্টা আল্লাহকে''-আয়াত ১২৫, সুরা সাফফাত, আল কোরআন <ref>আয়াত ১২৫, সুরা সাফফাত, আল কোরআন। </ref>
 
==ইহুদি ধর্মে==
১,৮৬,১২৭টি

সম্পাদনা