বীজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
বাদামি শণ বীজ।
নানান রকম শীমের বীজ।

নিষেকোত্তর রূপান্তরিত ও পরিস্ফুটিত ডিম্বকই বীজ। কিছু কিছু উদ্ভিদে একে কার্নেল বলা হয়। বীজ বীজ আবরণী দ্বারা আবৃত থাকে এবং সাধারণত এতে পরিস্ফূটনরত ভ্রূণের জন্যে সঞ্চিত খাদ্য থাকে। বীজ আবৃতবীজীনগ্নবীজী উদ্ভিদে পরিপক্ব ডিম্বকের সফল নিষেক ও মাতৃগাছের অভ্যন্তরে কিছু পরিবর্ধনের ফসল। বীজ তৈরির মাধ্যমে বীজের মাধ্যমে বংশবিস্তার হওয়া উদ্ভিদের প্রজনন সম্পন্ন হয় (যা ফুল সৃষ্টি ও পরাগায়নের মাধ্যমে শুরু হয়), যেখানে জাইগোট থেকে ভ্রূনের সৃষ্টি হয় এবং ডিম্বাণুর বহিরাবরণ থেকে বীজত্বক সৃষ্টি হয়।

বীজ সপুষ্পক উদ্ভিদের সংখ্যাবৃদ্ধি ও বিস্তারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, বিশেষ করে আদিমতর মসফার্ণের সাপেক্ষে, যারা বীজের মাধ্যমে সংখ্যাবৃদ্ধি করে না। এ ব্যাপারটিকেই সবীজ উদ্ভিদের (আবৃতবীজীনগ্নবীজী উভয়ই) উষ্ণ ও শীতল - দু ধরণের আবহাওয়াতেই বনভূমি থেকে শুরু করে তৃণভূমি পর্যন্ত সর্বত্রই প্রাধান্য বিস্তার করার কারণ মনে করা হয়।

বীজ শব্দটি যা কিছু বপন করা হয় তা বোঝাতেও ব্যবহার করা হয়, যেমন আলুর বীজ, সূর্যমুখীর বীজ ইত্যাদি। সূর্যমুখী এবং ভুট্টার ক্ষেত্রে বপন করা হয় খোসায় আবৃত বীজ, আর আলুর ক্ষেত্রে বপন করা হয় টিউবার।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]