মিরিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
নবী মিরিয়াম

মিরিয়াম (হিব্রু: מִרְיָם, আধুনিক Miryam টিবেরিয়ান Miryām ; see Miriam (given name)), হিব্রু বাইবেল বা বাইবেলের পুরাতন নিয়ম অনুসারে মিরিয়াম ছিলেন মুসার জ্যেষ্ঠ্য ভগিনী। তিনি মুসার চেয়ে সাত বছর এবং এ্যারনের চেয়ে চার বছরের বড়। মিরিয়াম আমরান এবং জোহেবেদের একমাত্র কন্যা। বুক অব এক্সডাসের বর্ণনা মতে তিনি একজন নবী।

বাইবেলের বর্ণনা[সম্পাদনা]

মিরিয়াম নবজাতক মুসার দিকে লক্ষ্য রাখছেন

এক্সডাস ২ এর বর্ননামতে মিরিয়ামের মাতা সদ্যজাত শিশু মুসাকে নদীর তীরে লুকিয়ে রাখতে বলেছিলেন যেন ফারাওয়ের সৈন্যরা শিশুকে খুজে না পায়। সেই সময় ফারাও শাসক সকল সদ্যজাত হিব্রু ছেলে শিশুকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিল। মিরিয়াম দেখতে পায় যে ফারাওয়ের কন্যা শিশু মুসাকে খুঁজে পেয়ে দত্তক হিসাবে গ্রহন করেছে। মিরিয়ম ফারাওয়ের কন্যাকে এই শিশুর দেখাশোনার জন্য একজন শিশুপালনকারিণী খুঁজে দেবার প্রস্তাব দেয়। মিরিয়াম পরে শিশুর জন্য তার নিজ মাতাকে ফারাওয়ের কন্যার কাছে নিয়ে আসে।(Exodus 2:1-10)

ফারাওয়ের সৈন্যবাহিনী লোহিত সাগরে ডুবে মারা যাবার পর মিরিয়াম আনন্দে গান গেয়ে নৃত্য করেছিলেন।(Exodus 15:20-21).[১]

"প্রভুর উদ্দেশ্যে গান তিনি মহান করেছে;
ঘোড়া এবং চড়নদার সমুদ্রে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে"।

১২ নম্বরে বর্ণিত আছে যে এ্যারন এবং মিরিয়াম মুসার একজন কূস নারীকে বিবাহের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিল। ঈশ্বর একটি মেঘস্তম্ভ প্রদর্শনের মাধ্যমে এই বিবাহরে প্রতি সম্মতি জানান। এরপর মিরিয়াম অসুস্থ হয়ে পরলে মুসার প্রার্থনায় সাত দিনের মধ্যে মিরিয়াম সুস্থ হয়ে ওঠে।(Numbers 12)

কোরানের বর্ণনা[সম্পাদনা]

কোরানের বর্ণনা অনুসারে, মিরিয়ামের মাতা তাকে নির্দেশ দেন মুসাকে নিয়ে নদীতে ভাসমান ঝুড়িটিকে অনুসরন করতে। ফারওয়ের সৈন্যদের হাত থেকে সদ্যজাত মুসাকে রক্ষা করার জন্য তার মা মুসাকে নদীর পানিতে ভাসিয়ে দিয়েছিল।(28:11). পরে ফারাওয়ের স্ত্রী আসিয়া মুসাকে উদ্ধার করে এবং তাকে দত্তক সন্তান হিসাবে গ্রহন করে। শিশু মুসা আসিয়ার স্তন্য পান করতে না চাইলে মিরিয়ামের পরামর্শে তার মাতাকে শিশু মুসার পালনকারিণী হিসাবে নিয়োগ দেয়া হয়।(28:12–13).

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]