মসজিদে কুবা

স্থানাঙ্ক: ২৪°২৬′২১″ উত্তর ৩৯°৩৭′০২″ পূর্ব / ২৪.৪৩৯১৭° উত্তর ৩৯.৬১৭২২° পূর্ব / 24.43917; 39.61722
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মসজিদে কুবা
মসজিদে কুবা
মসজিদে কুবা (২০১৩ সালে)
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
প্রদেশমদিনা প্রদেশ
অঞ্চলহেজাজ
অবস্থান
অবস্থানমদিনা, সৌদি আরব
দেশসৌদি আরব
মসজিদে কুবা সৌদি আরব-এ অবস্থিত
মসজিদে কুবা
সৌদি আরবে মসজিদটির অবস্থান
স্থানাঙ্ক২৪°২৬′২১″ উত্তর ৩৯°৩৭′০২″ পূর্ব / ২৪.৪৩৯১৭° উত্তর ৩৯.৬১৭২২° পূর্ব / 24.43917; 39.61722
স্থাপত্য
ধরনমসজিদ
সম্পূর্ণ হয়৬২২
বিনির্দেশ
গম্বুজসমূহ
মিনার
ওয়েবসাইট
www.qubamosque.com

মসজিদে কুবা বা কুবা মসজিদ (আরবি: مسجد قباء) সৌদি আরবের মদিনায় অবস্থিত। এটি ইসলামের প্রথম মসজিদহিজরতের পর মুহাম্মদ সাল্লেলাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এই মসজিদের ভিত্তি স্থাপন করেন। এখানে তিনি বেশ কিছুদিন অবস্থান করেছিলেন।

ফজিলত ও মর্যাদার দিক থেকে মসজিদে কুবার অবস্থান ৪র্থ। মক্কার মসজিদে হারাম, মদিনার মসজিদে নববী এবং জেরুসালেমের মসজিদে আকসার পরই মসজিদে কুবার স্থান।[১][২][৩][৪]

অবস্থান[সম্পাদনা]

কুবা মসজিদ সৌদি আরবের মদিনা শহরের নিকটবর্তী কুবা গ্রামে অবস্থিত। মক্কা শহর থেকে প্রায় ৩২০ কিলোমিটার উত্তরে মসজিদটি অবস্থিত।[১]

মসজিদে নববীর দক্ষিণ-পশ্চিম কোণ বরাবর প্রায় ৩.২৫ কিলোমিটার দূরে এই মসজিদ অবস্থিত।[২][৪][৫]

নামকরণ[সম্পাদনা]

পূর্বে মসজিদের আশেপাশেকুবা নামে একটি বিখ্যাত কূপ ছিল। তৎকালীন সময়ে এই কূপকে কেন্দ্র করে একটি জনবসতি গড়ে উঠে, সেই জনবসতি কুবা মহল্লা নামে পরিচিত হয়। কালের পরিক্রমায় এইসূত্রে মসজিদে কুবা নামকরণ হয়।[১][৪][৫]

উল্লেখ[সম্পাদনা]

কুরআন মাজীদে[সম্পাদনা]

ধারণা করা হয়, সূরা তওবার ১০৮ নং আয়াতে বলা মসজিদটি মূলত কুবা মসজিদ।

আপনি কখনো সেখানে দাড়াবেন না, তবে যে মসজিদের ভিত্তি রাখা হয়েছে তাকওয়ার উপর প্রথম দিন থেকে, সেটিই আপনার দাঁড়াবার যোগ্য স্থান। সেখানে রয়েছে এমন লোক, যারা পবিত্রতাকে ভালবাসে। আর আল্লাহ পবিত্র লোকদের ভালবাসেন।

— আল কুরআন, সূরা ৯ (আত-তওবা), আয়াত ১০৮[৬]

হাদিসে[সম্পাদনা]

কুবা মসজিদ বিষয়ে নয়টি "সহিহ আল-বুখারি" হাদিস, তেরোটি "সহীহ মুসলিম", দুটো "সুনানে আবু দাউদ" হাদিস, ছয়টি মালিক ইবনে আনাস হাদিসে এসেছে।

মুহাম্মদ (সঃ) বারবার অই মসজিদে যেতেন এবং এ মসজিদের বিশেষ গুরুত্বের কথাও বিভিন্ন হাদিসে এসেছে।

উসাইদ ইবনু যুহাইর আল-আনসারী (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ

তিনি নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর সাহাবা ছিলেন। তিনি (রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)) বলেন, কুবার মসজিদে নামায আদায় করলে ‘উমরা করার সমান নেকী পাওয়া যায়।

সহীহ্‌। ইবনু মাজাহ-(১৪১১)।[৭]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. টেকনোবাজ|, ইসলাম ও জীবন। "ইসলামের সর্বপ্রথম মসজিদ কোনটি এবং তা কখন নির্মাণ করা হয়"technobaj.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-১৬ 
  2. jagonews24.com। "পবিত্র মদিনা শরিফের প্রথম মসজিদ কুবা"jagonews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-১৬ 
  3. "মসজিদে কুবায় দু'রাকাত নামাজে এক ওমরার সওয়াব"banglanews24.com। ২০২২-০৮-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-১৬ 
  4. "মসজিদে কুবা : ইতিহাসের প্রথম মসজিদ"Daily Manobkantha। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-১৬ 
  5. নিউজ, সময়। "মহানবীর হাতে তৈরি দুনিয়ার প্রথম মসজিদের সত্য কাহিনি | ধর্ম"Somoy News। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-১৬ 
  6. কুরআন ৯:১০৮
  7. "কুবার মসজিদে নামায আদায় করা - জামে' আত-তিরমিজি"iHadis। ২ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Muhammad: The Messenger of Islam by Hajjah Amina Adil (p. 286)
  • The Naqshbandi Sufi Tradition Guidebook of Daily Practices and Devotions by Hisham Kabbani (p. 301)
  • Happold: The Confidence to Build by Derek Walker and Bill Addis (p. 81)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]