ছেংগারচর পৌরসভা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ছেংগারচর
পৌরসভা
ছেংগারচর পৌরসভা
ছেংগারচর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
ছেংগারচর
ছেংগারচর
বাংলাদেশে ছেংগারচর পৌরসভার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°২৫′ উত্তর ৯০°৩৮′ পূর্ব / ২৩.৪১৭° উত্তর ৯০.৬৩৩° পূর্ব / 23.417; 90.633স্থানাঙ্ক: ২৩°২৫′ উত্তর ৯০°৩৮′ পূর্ব / ২৩.৪১৭° উত্তর ৯০.৬৩৩° পূর্ব / 23.417; 90.633
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাচাঁদপুর জেলা
উপজেলামতলব উত্তর উপজেলা
প্রতিষ্ঠাকাল৫ এপ্রিল ১৯৯৮
সরকার
 • পৌর মেয়র (ভারপ্রাপ্ত)আব্দুল মান্নান বেপারী
আয়তন
 • মোট৩৫.৩৫ বর্গকিমি (১৩.৬৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৭৪,৫৬৫
 • জনঘনত্ব২,১০০/বর্গকিমি (৫,৫০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৬৯%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৬৪৩ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

ছেংগারচর পৌরসভা বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার অন্তর্গত একটি পৌরসভা[১]

আয়তন[সম্পাদনা]

ছেংগারচর পৌরসভার আয়তন ৩৫.৩৫ বর্গ কিলোমিটার (৮,৭৩৪ একর)।[২]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী ছেংগারচর পৌরসভার মোট জনসংখ্যা ৩৬,৬৯১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৮,০৯৩ জন এবং মহিলা ১৮,৫৯৮ জন। মোট পরিবার ৭,৮৮৪টি।[২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

মতলব উত্তর উপজেলার উত্তর-পশ্চিমাংশে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড এর মেঘনা–ধনাগোদা প্রকল্পের অভ্যন্তরে ছেংগারচর পৌরসভার অবস্থান। এটি চাঁদপুর জেলা শহর হতে ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এ পৌরসভার উত্তরে ষাটনল ইউনিয়ন; পশ্চিমে ষাটনল ইউনিয়নকলাকান্দা ইউনিয়ন; দক্ষিণে মোহনপুর ইউনিয়ন, গজরা ইউনিয়নফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়ন এবং পূর্বে গজরা ইউনিয়ন, দুর্গাপুর ইউনিয়নসাদুল্লাপুর ইউনিয়ন অবস্থিত।

প্রতিষ্ঠাকাল[সম্পাদনা]

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সরকার বিভাগ কর্তৃক এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ১৯৯৮ সালের ৫ এপ্রিল ছেংগারচর পৌরসভা হিসেবে যাত্রা শুরু করে।[৩] এ পৌরসভার প্রথম পৌর প্রশাসক নিযুক্ত হন মতলব উত্তর উপজেলার তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। তৎকালীন মতলব উপজেলাধীন ছেংগারচর ইউনিয়নের সম্পূর্ণ অংশ নিয়েই ছেংগারচর পৌরসভার প্রশাসনিক এলাকা বিস্তৃত। তৎকালীন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রাণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বর্তমান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এমপি এ পৌরসভাটি প্রতিষ্ঠা করেন। ২০১১ সালের ৭ আগস্ট এ পৌরসভাটি শ্রেণী থেকে শ্রেণীতে উন্নীত হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় বিভাগ কর্তৃক ২০১৭ সালের ১১ জানুয়ারী অপর এক প্রজ্ঞাপনে এ পৌরসভা কে শ্রেণীতে উন্নীত করা হয়। [৪]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

ছেংগারচর পৌরসভায় ৯টি ওয়ার্ড রয়েছে।[২] এ পৌরসভার প্রশাসনিক কার্যক্রম মতলব উত্তর থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৬১নং নির্বাচনী এলাকা চাঁদপুর-২ এর অংশ।

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী ছেংগারচর পৌরসভার সাক্ষরতার হার ৫৯.২% এবং বর্তমানে সাক্ষরতার হার ৬৯%।[২] এ পৌরসভায় ১টি সরকারি কলেজ, ২টি স্কুল এন্ড কলেজ, ১টি সরকারি সহ মোট ৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এছাড়া ব্যক্তিগত উদ্যোগে কিছু কিন্ডারগার্টেন রয়েছে।

কলেজ
মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • ছেংগারচর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়
  • ওটারচর উচ্চবিদ্যালয়
  • ঝিনাইয়া উচ্চবিদ্যালয়
  • রুহিতারপাড় ডি এম উচ্চ বিদ্যালয়
প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • নবাব নগর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়
  • আদুরভিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • ওটারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • ছেংগারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • জীবগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • ঠাকুরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • তালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • ব্যাসদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • রুহিতারপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • আহম্মদিয়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়(এমএম কান্দি)
  • উত্তর ছেংগারচর মডেল স্কুল
  • পাচগাছিয়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়
  1. ছেংগারচর পৌরসভা
  2. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. মতলব পৌরসভা: দলীয় মনোনয়নের অপেক্ষা, বিডি নিউজ টোয়েন্টিফোর, ২৭ নভেম্বর ২০১৫ ইং, সংগ্রহের তারিখ 2017-02-26  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  4. ছেংগারচর পৌরসভা প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত, দৈনিক আজকের কালের চিত্র, ১২ জানুয়ারী ২০১৭ ইং, ২০১৭-০১-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ 2017-01-12  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

মূলত কৃষি, ব্যবসা এবং বৈদেশিক রেমিটেন্স থেকে এ পৌরসভার অর্থনীতি নির্ভরশীল।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

  • প্রথম - পৌর-চেয়ারম্যান আমেনা বেগম
  • দ্বিতীয়- পৌর-চেয়ারম্যান আমেনা বেগম
  • তৃতীয়- পৌর-মেয়র বিল্লাল হোসেন সরকার
  • চতুর্থ- পৌর-ভারপ্রাপ্ত মেয়র-হাজী মো:রুহুল আমিন মোল্লা
  • পঞ্চম-পৌর-মেয়র-মোহাম্মদ রফিকুল আলম জর্জ
  • ষষ্ঠ- পৌর-ভারপ্রাপ্ত মেয়র-আব্দুল মান্নান বেপারী

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]