টাঙ্গাইল জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
টাঙ্গাইল জেলা
Tangail
জেলা
বাংলাদেশে টাঙ্গাইল জেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°০১′উত্তর ৯০°০৭′পূর্ব / ২৪.০২° উত্তর ৯০.১২° পূর্ব / 24.02; 90.12
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ ঢাকা বিভাগ
আয়তন
 • মোট ৩,৪১৪.৩৫
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট ৩৬,০৫,০৮৩[১]
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ৪৬.৮%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইট জেলা তথ্য বাতায়ন
টাঙ্গাইল জেলার উপজেলাসমূহ

টাঙ্গাইল জেলা বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলের ঢাকা বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এর জনসংখ্যা প্রায় ৩৬ লক্ষ এবং আয়তন ৩৪১৪.৩৯ বর্গ কিলোমিটার। ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দ অবধি এটি ছিল অবিভক্ত ময়মনসিংহ জেলার একটি মহকুমা । ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে টাঙ্গাইল মহুকুমাকে জেলায় উন্নীত করা হয়। এটি একটি নদী বিধৌত কৃষিপ্রধান অঞ্চল।এটা যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত এবং এর মাঝ দিয়ে লৌহজং নদী প্রবাহিত হয়েছে।


"নদীচর খাল খাল বিল গজারির বন,টাঙ্গাইলের শাড়ি তার গর্বের ধন।"

ভৌগোলিক সীমানা[সম্পাদনা]

টাংগাইল জেলা ঢাকা হতে প্রায় একশত কি মি দূরে অবস্থিত। এই জেলার পূর্বে রয়েছে ময়মনসিংহ জেলাগাজীপুর জেলা, পশ্চিমে সিরাজগঞ্জ জেলা, উত্তরে জামালপুর জেলা, দক্ষিণে ঢাকা জেলামানিকগঞ্জ জেলা। এর জনসংখ্যা প্রায় ৩৬ লাখ এবং আয়তন ৩৪১৪.৩৮ বর্গ কি.মি.।

প্রশাসনিক এলাকাসমূহ[সম্পাদনা]

নামকরণ[সম্পাদনা]

টাঙ্গাইলের নামকরণ বিষয়ে রয়েছে বহুজনশ্রুতি ও নানা মতামত। ১৭৭৮ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত রেনেল তাঁর মানচিত্রে এ সম্পূর্ণ অঞ্চলকেই আটিয়া বলে দেখিয়েছেন। ১৮৬৬ খ্রিস্টাব্দের আগে টাঙ্গাইল নামে কোনো স্বতন্ত্র স্থানের পরিচয় পাওয়া যায় না। টাঙ্গাইল নামটি পরিচিতি লাভ করে ১৫ নভেম্বর ১৮৭০ খ্রিস্টাব্দে মহকুমা সদর দপ্তর আটিয়া থেকে টাঙ্গাইলে স্থানান্তরের সময় থেকে। টাঙ্গাইলের ইতিহাস প্রণেতা খন্দকার আব্দুর রহিম সাহেবের মতে, ইংরেজ আমলে এদেশের লোকেরা উচু শব্দের পরিবর্তে ‘টান’শব্দই ব্যবহার করতে অভ্যস্ত ছিল বেশি। এখনো টাঙ্গাইল অঞ্চলে ‘টান’শব্দের প্রচলন আছে। এই টানের সাথে আইল শব্দটি যুক্ত হয়ে হয়েছিল টান আইল। আর সেই টান আইলটি রূপান্তরিত হয়েছে টাঙ্গাইলে।

পত্রিকাসমূহ[সম্পাদনা]

  • টাঙ্গাইল বার্তা২৪.কম
  • দৈনিক পূর্বাকাশ
  • দৈনিক মজলুমের কন্ঠ
  • দৈনিক কালের স্রোত
  • সাপ্তাহিক প্রযুক্তি
  • দৈনিক মফস্বল
  • দৈনিক লোককথা
  • দৈনিক দেশ কথা
  • সাপ্তাহিক লৌহজং
  • দৈনিক প্রগতির আলো
  • সাপ্তাহিক মৌবাজার
  • সাপ্তাহিক মূলস্রোত

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

বিশিষ্ঠ ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

আবদুল হামিদ খান ভাসানী
শামসুল হক
প্রতুল চন্দ্র সরকার

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

আরও অনেক নামকরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে এই জেলায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে জেলা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগৃহীত ২৬ জুন, ২০১৪ 

আনুষঙ্গিক নিবন্ধ[সম্পাদনা]