কপিল দেব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কপিল দেব
Kapil Dev at Equation sports auction.jpg
কপিল দেব
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকপিল দেব রামলাল নিখঞ্জ
জন্ম (1959-01-06) ৬ জানুয়ারি ১৯৫৯ (বয়স ৬০)
চণ্ডীগড়, পাঞ্জাব, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার, অধিনায়ক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৪২)
১৬ অক্টোবর ১৯৭৮ বনাম পাকিস্তান
শেষ টেস্ট১৯ মার্চ ১৯৯৪ বনাম নিউজিল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২৫)
১ অক্টোবর ১৯৭৮ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই১৭ অক্টোবর ১৯৯৪ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৭৫-১৯৯২হরিয়াণা
১৯৮৪-১৯৮৫ওরচেস্টারশায়ার
১৯৮১-১৯৮৩নর্দাম্পটনশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৩১ ২২৫ ২৭৫ ৩০৯
রানের সংখ্যা ৫২৪৮ ৩৭৮৩ ১১৩৫৬ ৫৪৬১
ব্যাটিং গড় ৩১.০৫ ২৩.৭৯ ৩২.৯১ ২৪.৫৯
১০০/৫০ ৮/২৭ ১/১৪ ১৮/৫৬ ২/২৩
সর্বোচ্চ রান ১৬৩ ১৭৫* ১৯৩ ১৭৫*
বল করেছে ২৭৭৪০ ১১২০২ ৪৮৮৫৩ ১৪৯৪৭
উইকেট ৪৩৪ ২৫৩ ৮৩৫ ৩৩৫
বোলিং গড় ২৯.৬৪ ২৭.৪৫ ২৭.০৯ ২৭.৩৪
ইনিংসে ৫ উইকেট ২৩ ৩৯
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৯/৮৩ ৫/৪৩ ৯/৮৩ ৫/৪৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬৪/– ৭১/– ১৯২/– ৯৯/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

কপিল দেব রামলাল নিখঞ্জ (এই শব্দ সম্পর্কেpronunciation ; জন্ম: ৬ জানুয়ারি, ১৯৫৯) একজন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেট খেলোয়াড় ও কোচ।[১] তিনি ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের পক্ষে ১৩১টি টেস্ট ম্যাচ ও ২২৫টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। এছাড়া তিনি জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেন। তার অধিনায়কত্বে ভারত ১৯৮৩ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয় করে। তিনি ১৯৯৯ সালের অক্টোবর থেকে আগস্ট ২০০০ সালের মধ্যে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট কোচ ছিলেন। ১৯৯৪ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করেছিলেন সেই সময় টেস্ট ক্রিকেটে সর্বাধিক উইকেট নেওয়ার রেকর্ডটি তারই ছিল, যা ২০০০ সালে কোর্টনি ওয়ালশের রেকর্ডটি চূর্ণ করেছিলেন। সেই সময় তিনি ছিলেন টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেট ভারতের সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়া ক্রিকেট খেলোয়াড়। তিনি ২০০ ওয়ানডে উইকেট শিকার করা প্রথম ক্রিকেট খেলোয়াড় এবং ক্রিকেটের ইতিহাসে তিনিই একমাত্র খেলোয়াড়, যিনি ৪০০ টিরও বেশি উইকেট (৪৩৪ উইকেট) নিয়েছেন এবং টেস্টে ৫ হাজারেরও বেশি রান করেছেন।[২] ২০০২ সালে উইজডেন কর্তৃক ‘শতাব্দীর সেরা ভারতীয় ক্রিকেটারে’ মনোনীত হন।[৩] ২০১০ সালের ১১ ই মার্চ, তাঁকে আইসিসি ক্রিকেট "হল অফ ফেমে" অন্তর্ভুক্ত করে।[৪] গ্যারি সোবার্স, রিচার্ড হ্যাডলি এবং ইমরান খানের সাথে তাকেও ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা অল-রাউন্ডার বলা হয়। বর্তমানে তিনি একজন ধারাভাষ্যকার।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৮০ সালে, কপিল বিবাহ করেন রোমি ভাটিয়াকে এবং ১৯৯৬ সালের ১৬ জানুয়ারী তাঁদের একটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয় তাঁরা তাঁর নাম রাখে অমিতা দেব।[৫] ১৯৯৪ সালে, কপিল গল্ফ খেলা শুরু করেন [৬] এবং ২০০০ সালে লরিয়াস ফাউন্ডেশনের একমাত্র এশীয় প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হন। প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কাউন্সিলের অন্য দুই ক্রিকেটার ছিলেন ইয়ান বোথাম এবং ভিভ রিচার্ডস। পরে, ২০০০ সালে, স্টিভ ওয়া একাডেমির সদস্য হন। পরে কপিলকে লেখক রুপে আমরা পাই, তিনি তিনটি আত্মজীবনীমূলক রচনা লিখেছেন। ১৯৮৫ প্রকাশ পায় তাঁর লেখা, "বাই গডস ডিক্রি", ১৯৮৭ সালে "ক্রিকেট মাই স্টাইল" এবং ২০০৪ সালে "স্ট্রেট ফ্রম দ্য হার্ট" তাঁর তিন নম্বর আত্মজীবনী হিসাবে প্রকাশ পেয়েছিল। [৭] ৩১ জানুয়ারী, ২০১৪ সালে, ভারতের বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ, অফিসার্স ক্লাব, নয়াদিল্লিতে, দিল্লি ইউরোলজিকাল সোসাইটির আয়োজিত একটি ইভেন্টে তাঁর অঙ্গ দান করবার অঙ্গীকার করেছিলেন[৮][৯][১০] পরবর্তীকালে, তিনি অভিনয় জগতে আসেন, তাঁকে "দিল্লাগি... য়ে দিল্লাগি", 'ইকবাল', "চেইন খুলি কি মাইন খুলি" এবং "মুঝসে শাদি করোগি" ছবিতে ছোট ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যায়। [১১]

কৃতিত্ব[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

বছর সম্মান প্রবর্তক
২০০৮ লেফট্যানেন্ট কর্ণেল ভারতীয় প্রদেশিক সেনা

সেডন পার্ক এ অবসর[সম্পাদনা]

১৯৯৪ সালে এই মাঠে কপিল ক্রিকেট জীবনে অবসর নেন।

শীঘ্রই আসছে[সম্পাদনা]

লর্ডসে ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি হিন্দি চলচ্চিত্রে তৈরি করছেন বলিউড পরিচালক কবির খান প্রযোজনা করেছেন অনুরাগ কাশ্যপ। এই ছবিতে কপিলের চরিত্রে অভিনয় করেছেন রণবীর সিং[১৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kapil Dev – Player Webpage"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০০৭ 
  2. "Wisden Cricketer of the Century – Kapil Dev: The Master of All Crafts – Yahoo Cricket India"Yahoo Cricket India। ১৭ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. "This is my finest hour: Kapil Dev"The Sportstar Vol. 25 No. 31। ৮ মার্চ ২০০২। ১৪ মে ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  4. "Kapil Dev inducted into Hall of Fame"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০১০ 
  5. "Kapil Dev Nikhanj – His Profile"The Tribune। India। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০০৭ 
  6. "Kapil Dev leads India to title"The Hindu। India। ৫ সেপ্টেম্বর ২০০৪। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০০৬ 
  7. "Kapil Dev's autobiography released"The Hindu। India। ৬ জানুয়ারি ২০০৪। ২৮ নভেম্বর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০০৬ 
  8. http://sports.ndtv.com/cricket/news/220350-kapil-dev-bishan-singh-bedi-pledge-to-donate-organs ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে Kapil Dev, Bishan Singh Bedi pledge to donate organs
  9. http://topnews.in/sports/kapil-dev-bishan-singh-bedi-pledge-donate-organs-243176 Kapil Dev, Bishan Singh Bedi pledge to donate organs
  10. http://sports.in.msn.com/cricket/kapil-dev-bishan-singh-bedi-pledge-to-donate-organs ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৫ জুলাই ২০১৪ তারিখে Kapil Dev, Bishan Singh Bedi pledge to donate organs
  11. "Saluting the human spirit"The Hindu Business Line। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৫। ৬ আগস্ট ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০০৭ 
  12. "Kapil Dev-CRICKETER OF THE YEAR-1983"Wisden Almanack। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০০৭ 
  13. "Padma Awards" (PDF)। Ministry of Home Affairs, Government of India। ২০১৫। ১৫ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২১, ২০১৫ 
  14. Deepshikha Ghosh (১৪ ডিসেম্বর ২০১৩)। "If you don't dream, you'll never reach anywhere: Kapil Dev"NDTV.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১৫ 
  15. "Kapil Dev to be honoured with CK Nayudu Lifetime Award – Firstpost"। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  16. "Ranveer Singh to Play Kapil Dev in Kabir Khan's Next On 1983 World Cup"News18। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৯-২৬ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
অংশুমান গায়কোয়াড়
ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ
অক্টোবর, ১৯৯৯ - সেপ্টেম্বর, ২০০০
উত্তরসূরী
অংশুমান গায়কোয়াড়
পূর্বসূরী
সুনীল গাভাস্কার
ভারত জাতীয় টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৮২-৮৩ থেকে ১৯৮৩-৮৪
উত্তরসূরী
সুনীল গাভাস্কার
পূর্বসূরী
সুনীল গাভাস্কার
ভারত জাতীয় টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৮৪-৮৫ থেকে ১৯৮৬-৮৭
উত্তরসূরী
দিলীপ বেঙ্গসরকার
পূর্বসূরী
ডেরেক পার্কার
নেলসন ক্রিকেট ক্লাব
পেশাদার

১৯৮১
উত্তরসূরী
নীল র‌্যাডফোর্ড
রেকর্ড
পূর্বসূরী
রিচার্ড হ্যাডলি
বিশ্বরেকর্ড - টেস্ট ক্রিকেটে সর্বাধিক উইকেটলাভকারী
১৩১ টেস্টে ৪৩৪ উইকেট (২৯.৬৪)
রেকর্ড ধারণ: ৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৪ থেকে ২৭ মার্চ, ২০০০
উত্তরসূরী
কোর্টনি ওয়ালশ