রবিচন্দ্রন অশ্বিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
রবিচন্দ্রন অশ্বিন
Ravi Ashwin.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম রবিচন্দ্রন অশ্বিন
জন্ম (১৯৮৬-০৯-১৭) ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ৩১)
চেন্নাই, তামিলনাড়ু, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি অফ স্পিন
ভূমিকা অল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৭১)
৬ নভেম্বর ২০১১ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ টেস্ট ৬ জানুয়ারি ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৮৫)
৫ জুন ২০১০ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই ১০ মার্চ ২০১৫ বনাম আয়ারল্যান্ড
ওডিআই শার্ট নং ৯৯
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৩০)
১২ জুন ২০১০ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ টি২০আই ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
২০০৬/০৭-বর্তমান তামিলনাড়ু
২০১০-বর্তমান চেন্নাই সুপার কিংস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই টি২০আই এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪৪ ১০২ ৪৫ ৭৯
রানের সংখ্যা ১৮১৬ ৬৫৮ ১১২ ২৯৮৬
ব্যাটিং গড় ৩৪.৯২ ১৬.৪৫ ২৮.০০ ৩৫.১২
১০০/৫০ ৪/১১ ০/১ ০/০ ৬/১৭
সর্বোচ্চ রান ১২৪ ৬৫ ৩১* ১২৪
বল করেছে ১২৭৩২ ৫৫৭১ ১০০২ ২১২২৬
উইকেট ২৪৮ ১৪২ ৫২ ৩৮২
বোলিং গড় ২৪.৯৬ ৩১.৭৩ ২২.১৯ ২৬.০৭
ইনিংসে ৫ উইকেট ২৪ ৩৫
ম্যাচে ১০ উইকেট ১০
সেরা বোলিং ৭/৫৯ ৪/২৫ ৪/৮ ৭/৫৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৮ ৩০ ৩৩
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, ১০ অক্টোবর ২০১৬

রবিচন্দ্রন অশ্বিন (এই শব্দ সম্পর্কে উচ্চারণ ; তামিল: ரவிச்சந்திரன் அசுவின்; জন্ম: ১৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৬) ভারতে জন্মগ্রহণকারী ক্রিকেটার। ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও ডানহাতি অফ-ব্রেক বোলার হিসেবে ভারতীয় দলে খেলে থাকেন। সবচেয়ে অল্প সময়ে টেস্ট ক্রিকেটে ৫০ উইকেট লাভকারী ভারতীয় বোলার তিনি।[১] আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস এবং তামিলনাড়ু রাজ্য দলের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেন। বর্তমান সময়ে শ্রীলঙ্কার অজন্তা মেন্ডিসের পাশাপাশি ক্যারম বল নিক্ষেপে তার নামও উচ্চারিত হয়ে থাকে।[২]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

হিন্দু ব্রাহ্মণ পরিবারে রবিচন্দ্রন অশ্বিন জন্মগ্রহণ করেন।[৩] চেন্নাইয়ের পশ্চিম মাম্বালামে বসবাস করেন।[৩] পদ্মা শেষাদ্রী বালা ভবনসেন্ট বেদে'জ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়ণ করেন। এসএসএন কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে তথ্য প্রযুক্তিতে বি.টেক স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। দাদা নামে ডাক নামে পরিচিত ছিলেন।

১৩ নভেম্বর, ২০১১ তারিখে অশ্বিন তার শৈশবের বান্ধবী পৃথ্বী নারায়াণনকে বিয়ে করেন।[৪] অশ্বিনের বাবা রবিচন্দ্রন তামিলনাড়ু দলের পক্ষ হয়ে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফাস্ট বোলারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন।[৫]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

৬ জুন, ২০১০ তারিখে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে অশ্বিনের। তিনি ৩৮ রান করলেও তার দল হেরে যায়।[৬]

নভেম্বর, ২০১১ সালে অশ্বিন টেস্ট ক্রিকেটে অভিষিক্ত হন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শচীন তেন্ডুলকরের নেতৃত্বাধীন দলে একই সাথে উমেশ যাদবেরও অভিষেক ঘটেছিল। খেলায় প্রথম ইনিংসেউইকেট এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট দখল করেছিলেন।[৭] সিরিজের তৃতীয় টেস্টে অভিষেক সেঞ্চুরি করেন যা ভারতকে ড্র করতে সহায়তা করেছিল। পুরো সিরিজে বলের পাশাপাশি ব্যাটিংয়েও সমান দেখিয়েছেন। ফলশ্রুতিতে ম্যান অব দ্য সিরিজের 'দিলীপ সারদেশাই পুরস্কার' ও পাঁচ লক্ষ ভারতীয় রূপি লাভ করেন তিনি।[৮]

১০-১৪ জুন, ২০১৫ তারিখে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সফরে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বৃষ্টিবিঘ্নিত একমাত্র টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে তিনি ৫/৮৭ লাভ করেন। নিজ দেশের বাইরে এটি তার সেরা বোলিং পরিসংখ্যান। নিজ দেশের বাইরে তিনি কখনো পাঁচ-উইকেট পাননি। দেশের মাটিতে নয়বার পাঁচ-উইকেট পেয়েছেন।[৯]

ক্রিকেট বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে ৪ জানুয়ারি, ২০১৫ তারিখে বিসিসিআই কর্তৃপক্ষ ভারত দলের ১৫-সদস্যের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করে।[১০] দলে তিনিও অন্যতম সদস্যরূপে মনোনীত হন। ১০ মার্চ, ২০১৫ তারিখে হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে অনুষ্ঠিত গ্রুপ পর্বের পঞ্চম খেলায় আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৮ রানের বিনিময়ে গুরুত্বপূর্ণ ২ উইকেট দখল করেন। পরবর্তীতে শিখর ধাওয়ানের মনোজ্ঞ শতরানে দল ৮ উইকেটের সহজ পায় ও খেলার ফলাফলে ভারত বি গ্রুপে শীর্ষস্থান দখল করে।[১১] পাশাপাশি বিশ্বকাপে ধারাবাহিকভাবে ৯ম জয় পায়।[১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Records / Test matches / Bowling records / Fastest to 50 wickets
  2. "Ashwin Profile"। ESPN Cricinfo। সংগৃহীত ৭ এপ্রিল ২০১১ 
  3. Mid-Day (28 April 2011) - Interview with R.Ashwin's parents
  4. Ravichandran Ashwin to marry Sunday
  5. "Ashwin’s off-beat story: Failed opening batsman to India’s spin hope"। Indian Express। ২০১০-০৪-১৫। সংগৃহীত ২০১২-১২-১৪ 
  6. "Ashwin ODI debut"। ESPN Cricinfo। সংগৃহীত ৭ এপ্রিল ২০১১ 
  7. "1st Test: India v West Indies at Delhi, Nov 6-9, 2011"espncricinfo। সংগৃহীত ২০১১-১২-১৩ 
  8. Dilip Sardesai award for R Ashwin
  9. Jeswant, Bishen। "Rainy draws and sparkling debuts, Bangladesh v India, only Test, Fatullah, 5th day"Cricinfo। সংগৃহীত জুন ১৪, ২০১৫ 
  10. "INDIA ANNOUNCES FINAL 15 MAN SQUAD FOR ICC CRICKET WORLD CUP 2015"। ৬ জানুয়ারি ২০১৫। সংগৃহীত ৬ জানুয়ারি ২০১৫ 
  11. "Cricket World Cup 2015: Ireland dealt qualification blow by India"। BBC Sport। ১০ মার্চ ২০১৫। সংগৃহীত ১০ মার্চ ২০১৫ 
  12. "Ashwin, Dhawan make it nine in a row"ESPNcricinfo (ESPN Sports Media)। ৬ মার্চ ২০১৫। সংগৃহীত ১০ মার্চ ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]