বীরগঞ্জ উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বীরগঞ্জ
উপজেলা
বীরগঞ্জ বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বীরগঞ্জ
বীরগঞ্জ
বাংলাদেশে বীরগঞ্জ উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৫°৫৯′ উত্তর ৮৮°৩৩′ পূর্ব / ২৫.৯৮৩° উত্তর ৮৮.৫৫০° পূর্ব / 25.983; 88.550স্থানাঙ্ক: ২৫°৫৯′ উত্তর ৮৮°৩৩′ পূর্ব / ২৫.৯৮৩° উত্তর ৮৮.৫৫০° পূর্ব / 25.983; 88.550 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগরংপুর বিভাগ
জেলাদিনাজপুর জেলা
বীরগঞ্জ উপজেলা১৮৭৩
দিনাজপুর-১জাতীয় সংসদ-৬
সরকার
 • বর্তমান এমপিমনোরঞ্জন শীল গোপাল (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ)
আয়তন
 • মোট৪১৩ কিমি (১৫৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৩,১৭,২৫৩
 • জনঘনত্ব৭৭০/কিমি (২০০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৮৮.১০%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৫২২০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

বীরগঞ্জ উপজেলা বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার অন্তর্গত একটি প্রশাসনিক এলাকা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

বীরগঞ্জ উপজেলাটি দিনাজপুর জেলা এবং ঠাকুরগাঁও জেলার মাঝামাঝি স্থানে অবস্থিত। দিনাজপুর জেলা সদর হতে এর দূরত্ব ২৮ কি: মি:। এর উত্তরে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা, পুর্বদিকে খানসামা উপজেলা, দক্ষিনে কাহারোল উপজেলা ও পশ্চিমে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা[১]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

ইউনিয়নসমূহ
  1. শিবরামপুর ইউনিয়ন
  2. পলাশবাড়ী ইউনিয়ন
  3. শতগ্রাম ইউনিয়ন
  4. পাল্টাপুর ইউনিয়ন
  5. সুজালপুর ইউনিয়ন
  6. নিজপাড়া ইউনিয়ন
  7. মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন
  8. ভোগনগর ইউনিয়ন
  9. সাতোর ইউনিয়ন
  10. মোহনপুর ইউনিয়ন
  11. মরিচা ইউনিয়ন
  12. গোলাপগঞ্জ ইউনিয়ন (প্রস্তাবিত) [২]

প্রশাসনিক তথ্য[সম্পাদনা]

*সংসদ সদস্য  : মনোরঞ্জন শীল গোপাল
  • উপজেলা চেয়ারম্যান: আমিনুল ইসলাম
  • মেয়র : মোশাররফ হোসেন বাবুল

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৭৯৩ সালে ঘোড়াঘাট অবিভক্ত দিনাজপুর জেলার থানা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হলে় [৩] বীরগঞ্জ থানা ১৮৭৩ সনে দিনাজপুর এবং ঠাকুরগাঁও জেলার মাঝামাঝি স্থানে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৩ সালে এটিকে উপজেলায় উন্নত করা হয়। ইহা দিনাজপুর জেলা হতে ২৮ কি: মি: দূরে একটি খাদ্য উদ্বৃত্ত উপজেলা। ১১টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভার সমন্বয়ে গঠিত। অত্র উপজেলায় ২,৬৯,৮৯৩ (আদম শুমারী ২০০১) জন লোক বসবাস করে। এর আয়তন ৪১৩ বর্গ কি: মি:। অত্র উপজেলার মধ্য দিয়ে ঢেপা ও করতোয়া নামীয় ২টি নদী প্রবাহিত হয়েছে। মুসলমান, হিন্দু, খ্রিষ্টান, সাওতাল উপজাতীসহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের লোক এই উপজেলায় বাস করে।প্রত্যেকের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিদ্যমান। মাথাপিছু জমির পরিমাণ ০.৩১ একর। ভুট্টা, ধান, গম, পাট, আলু, সরিষা, শাক-সবজ্বি ও ফলমূল ইত্যাদি এই উপজেলার প্রধান ফসল। চাউলের মিল ছাড়া অন্যান্য শিল্প কারখানা গড়ে উঠেছে। [৪]

দিনাজপুর জেলার উত্তরে দিনাজপুর-পঞ্চগড় মহাসড়ক সংলগ্ন বীরগঞ্জ উপজেলা ১১(এগার)টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত একটি বড় উপজেলা। এ উপজেলা সদরের ০৫নং সুজালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ০৪টি মৌজার আংশিক এলাকা আয়তনে ৬.৩০বর্গ কি.মি. ; ১৫জুন,২০০২খ্রিঃ তারিখে বীরগঞ্জ পৌরসভা স্থাপিত হয় ।[৫]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ব্যাংক ও বীমা[সম্পাদনা]

  • সরকারী ব্যাংকঃ সোনালী, রূপালী, জনতা, অগ্রণী
  • বিশেষায়িত : রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

বেসরকারী ব্যাংক : ইসলামী ব্যাংক, পূবালীসহ অন্যান্য

  • বীমা : জীবন বীমাসহ বহু বীমা প্রতিষ্ঠান বিদ্যমান।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষার দিক দিয়ে এই উপজেলাকে শিক্ষা নগরী বলা হয়। এখানকার সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সফলতার সঙ্গে জেলা সদরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য - বীরগঞ্জ পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, বীরগঞ্জ

গোলাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়,গোলাপগঞ্জ,বীরগঞ্জ

বীরগঞ্জ সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বীরগঞ্জ

বীরগঞ্জ সরকারী কলেজ, বীরগঞ্জ

বীরগঞ্জ মহিলা কলেজ, বীরগঞ্জ

ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন ,বীরগঞ্জ

ডে-লাইট ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, বীরগঞ্জ

মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বীরগঞ্জ নওপাড়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ। মাহানপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

ধান, গম, পাটসহ সকল ফসল উৎপাদিত হয়। এছাড়া এখানে বহু চালকল বিদ্যমান। যা সারাদেশে চাল সরবরাহ করে। এছাড়া বিভিন্ন কারখানা ও কুটির শিল্প গড়ে উঠেছে।

স্বাস্থ্যসেবা[সম্পাদনা]

উপজেলা সদরের চাকাইতে ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অবস্থিত। কম সংখ্যক জনবল নিয়েও এটি অত্র এলাকার বিশালগোষ্ঠীকে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও পৌর শহরে ব্যাঙের ছাতার মতন অসংখ্য ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছে। গ্রাম পর্যায়ে রয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র এবং হাসপাতাল।

পর্যটন[সম্পাদনা]

  • বীরগঞ্জ জাতীয় উদ্যান এই উপজেলায় অবস্থিত একটি জাতীয় উদ্যান। ২০১১ সালের ২৪ ডিসেম্বর এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৬৮.৫৬ হেক্টর জমি নিয়ে এই জাতীয় উদ্যানটি গঠিত।[৬]
  • সিংড়া জাতীয় উদ্যান উত্তরবঙ্গের এই উপজেলায় অবস্থিত বাংলাদেশের একটি সংরক্ষিত বনাঞ্চল।[৭]
  • স্লুইচ গেট
  • বিজয় চত্বর
  • জয়ন্তীয়া ঘাট
  • উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লাইব্রেরী (দেশের প্রথম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পাঠাগার)

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • নাট্যকার মিজানুর রহমান

সামাজিক সংগঠন[সম্পাদনা]

BSF{Bangladesh Student Federation}

বীরগঞ্জ সমিতি, ঢাকা

Student association of Birganj, Dhaka

Pilotian-2k17

Birganj Public Library

স্বপ্নঘুড়ি(এসএসসি ব্যাচ-২০০৭,বীরগঞ্জ )

আকর ( এসএসসি ব্যাচ-২০১৬, বীরগঞ্জ পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় )

সহযোগিতা - sohojogita

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বীরগঞ্জ বাংলাদেশের অন্যতম একটি উপজেলা। সুশিক্ষা, বিনোদন, আন্দোলন, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সবকিছুতেই বীরগঞ্জ উপজেলা অগ্র ভূমিকা পালন করে আসছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে বীরগঞ্জ"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "ইউনিয়নসমূহ"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  3. ধনঞ্জয় রায়, দিনাজপুর জেলার ইতিহাস, কে পি বাগচী অ্যান্ড কোম্পানি কলকাতা, প্রথম প্রকাশ ২০০৬, পৃষ্ঠা ২১১
  4. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। "এক নজরে বীরগঞ্জ"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২৩ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৬ 
  5. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। "এক নজরে বীরগঞ্জ পৌরসভা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২৩ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৬ 
  6. "Protected Areas of Bangladesh"। Bangladesh Forest Department। ১৭ আগস্ট ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৬, ২০১৩ 
  7. দৈনিক যুগের কথায় প্রকাশিত প্রতিবেদন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]