পীরগঞ্জ উপজেলা, রংপুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মো:আতাউর রহমান প্রধান (লিখন) যোগাযোগ-০১৭১৭৫৭৮০৮৫(বাসিন্দা)

পীরগঞ্জ বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের রংপুর জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা। [বর্তমানে এটি পৌরসভা]।

অবস্থান[সম্পাদনা]

রংপুর জেলা হতে ৪৫ কি:মি: দক্ষিণ দিকে অবস্থিত। পীরগঞ্জ আয়তন ও জনসংখ্যার দিক থেকে রংপুর জেলার দ্বিতীয় বৃহত্তম উপজেলা। ভৌগলিক অবস্থান ২৫°২৪′৫৫″ উত্তর ৮৯°১৯′০০″ পূর্ব / ২৫.৪১৫২৭৭৭৮° উত্তর ৮৯.৩১৬৬৬৬৬৭° পূর্ব / 25.41527778; 89.31666667 ২৫°১৮’ হতে ২৫°৩১’ উত্তরঅক্ষাংশ এবং ৮৯°০৮’ হতে ৮৯°২৫’ পূর্বদ্রাঘিমাংশ। পীরগঞ্জ উপজেলার উত্তরে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলা, দক্ষিণে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা, পূর্বে গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলা[১]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

পীরগঞ্জ উপজেলাটি ১টি পৌরসভা, ১৫টি ইউনিয়ন, ৩০৮টি মৌজা ও ৩৩১টি গ্রামের সমন্বয়ে গঠিত।[২]

ভাষা ও সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

পীরগঞ্জ উপজেলায় আদিকাল থেকেই উল্লেখযোগ্যসংখ্যক আদিবাসী বসবাস করে আসছে এবং ভাষা ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে এই আদিবাসীরা সবসময় একটি স্বতন্ত্র পরিচয় বহন করে এসেছে। ঢাঁক, ঢোল, কাসর, তোরংগ, বাঁশী এ এলাকার বেশ জনপ্রিয় বাদ্যযন্ত্র।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২,৪৩,৫৩৫ জন( ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী) পুরুষঃ ১,২২,৫৫৩[৩], মহিলাঃ ১,২০,৯৮২[৩], আদিবাসীর সংখ্যা : ৩,৬১৪ জন (সাঁওতাল-৩,১২৫, মাহালী-২১৬, মুশহর-২০৩, কর্মকার-৭০)[৩]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার : ৮৪.৮% [৪]

বিবিধ[সম্পাদনা]

হাট-বাজার

এখানে ৩০টি হাট ও বাজার রয়েছে; এগুলোর মধ্যে আব্দুল্যাপুর হাট, কলোনি বাজার, কাউয়াপুকুর বাজার, কাদিরাবাদ হাট, কুমেদপুর বাজার, খালাশপীর হাট-বাজার, খেজমতপুর গণিরহাট, গুর্জিপাড়া হাট-বাজার, চতরা হাট-বাজার, ছোট উমরপুর বাজার, জামতলা হাট, জাহাঙ্গীরাবাদ হাট, পীরগঞ্জ বাজার, পীরেরহাট, বটেরহাট, বালুয়াহাট, ভেন্ডাবাড়ী হাট-বাজার, মন্ডলের বাজার, শানের হাট-বাজার, মাদারগঞ্জ হাট-বাজার, মাদারহাট, রসুলপুর বাজার, রায়পুর বাজার, কদমতলা বাজার উল্লেখযোগ্য।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

  • হাতী বান্ধা মাজার শরীফ
  • বামনীর বিল
  • আনন্দ নগর
  • নীল দরিয়া
  • হাতিবান্ধা মসজিদ
  • কাটাদুয়ার দরগাহ
  • দরিয়ার দরগা
  • সাধক কবি হেয়াত মামুদ মাজার
  • রায়পুর জমিদার বাড়ী
  • কবিলপুর জমিদারের কাচা
  • জেলা পরিষদ ডাক বাংলা
  • খালাশপীর মসজিদ
  • ড. ওয়াজেদ মিয়া সেতু
  • প্রচীন জামে মসজিদ মকিমপুর
  • মাগুড়া কয়লা খনি[৫]
  • শাহ ইসমাইল গাজীর দরগাহ

মুক্তিযুদ্ধ[সম্পাদনা]

মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে পীরগঞ্জ ৬নং সেক্টরের অধীনে ছিল। পীরগঞ্জ স্বাধীন হয় ১৯৭১ সালের ৭ই ডিসেম্বর। যুদ্ধকালীন সময়ে পাকিস্তানিদের পরাজিত করে মিত্রবাহিনী লালদিঘী নামক স্থানে রংপুর- বগুড়া মহাসড়ক বিচ্ছিন্ন করে দেয়। পাকিস্তানি বাহিনী থানায় গোলাবর্ষণ করে এবং থানার অবকাঠামো বিধ্বস্ত করে। ১৭ই এপ্রিল, ১৯৭১ সালে মাদারগঞ্জ, মীরপুর এবং আংরার ব্রীজে প্রতিরোধ যুদ্ধ হয় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর সাথে। আগুনে পুড়ে দেয় মাদারগঞ্জ, আংরার ব্রীজ সংলগ্ন উজিরপুরের জেলেপাড়া এবং টুকুরিয়ার সুজারকুটি গ্রাম।

সংবাদপত্র[সম্পাদনা]

  1. কাগুজে পত্রিকার মধ্যে ‘বজ্রকথা’ পীরগঞ্জ উপজেলার প্রথম পত্রিকা। যা সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে এখনো প্রকাশিত হয়ে আসছে।
  2. পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর (Pirganj24) পীরগঞ্জের সর্বপ্রথম এবং সর্বাধিক পঠিত অনলাইন পত্রিকা। যা ২০১৪ সালের এপ্রিল থেকে প্রকাশিত হয়ে আসছে।
  3. সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে ‘সমকালীন বার্তা’ পীরগঞ্জবাসীকে খবরের যোগান দিচ্ছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভৌগলিক পরিচিতি"rangpur.gov.bd [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "Home - Pirganj"pirganj.com 
  3. ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী
  4. (২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী)
  5. "দর্শনীয় স্থান"rangpur.gov.bd [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]