সাদুল্লাপুর উপজেলা

স্থানাঙ্ক: ২৫°২৩′৫″ উত্তর ৮৯°২৮′৩″ পূর্ব / ২৫.৩৮৪৭২° উত্তর ৮৯.৪৬৭৫০° পূর্ব / 25.38472; 89.46750
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাদুল্লাপুর
উপজেলা
সাদুল্লাপুর রংপুর বিভাগ-এ অবস্থিত
সাদুল্লাপুর
সাদুল্লাপুর
সাদুল্লাপুর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
সাদুল্লাপুর
সাদুল্লাপুর
বাংলাদেশে সাদুল্লাপুর উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৫°২৩′৫″ উত্তর ৮৯°২৮′৩″ পূর্ব / ২৫.৩৮৪৭২° উত্তর ৮৯.৪৬৭৫০° পূর্ব / 25.38472; 89.46750 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগরংপুর বিভাগ
জেলাগাইবান্ধা জেলা
আসনগাইবান্ধা-৩
আয়তন
 • মোট২৩০.১২ বর্গকিমি (৮৮.৮৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (2011)[১]
 • মোট২,৬৬,০৩৫
 • জনঘনত্ব১,২০০/বর্গকিমি (৩,০০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৩৫.০৭%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৫৭১০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৫৫ ৩২ ৮২
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
আবু হোসেন সরকার তোরন, সাদুল্লাপুর, গাইবান্ধা

সাদুল্লাপুর বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের গাইবান্ধা জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

সাদুল্লাপুর উপজেলা ২৫°১৭´ উত্তর অক্ষাংশ হতে ২৫°৩০´ উত্তর অক্ষাংশের এবং ৮৯°২০´ পূর্ব দ্রাঘিমা হতে ৮৯°৩১´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যে অবস্থিত। ২২৭.৯৭ বর্গ কিমি আয়তনের এই উপজেলাটির উত্তরে সুন্দরগঞ্জমিঠাপুকুর উপজেলা, দক্ষিণে পলাশবাড়ীগাইবান্ধা সদর উপজেলা; পূর্বে গাইবান্ধা সদরসুন্দরগঞ্জ উপজেলা এবং পশ্চিমে পীরগঞ্জ উপজেলা অবস্থিত।[২] জেলা সদর হতে এটি ১১ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কথিত আছে বহুপুর্বে এই এলাকা জঙ্গলে পরিপূর্ণ ছিল । হিন্দু রাজা ও জমিদারদের একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল। এক সময় সাইদুল্লাহ নামে এক ইসলাম ধর্মীয় সাধক এই এলাকায় এসে ইসলাম ধর্ম প্রচারের কাজ শুরু করেন । তার নামানুসারে উপজেলার নাম রাখা হয় সাদুল্লাপুর।[২]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

  • গ্রাম : ১৬৮টি
  • মৌজা : ১৬৪টি
  • ইউনিয়ন : ১১টি
  • পৌরসভা : নাই[২]

উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ:

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২,৬৬,০৩৫ জন (প্রায়) [৪]

পুরুষঃ ১,৩৪,৯৭৮ জন (প্রায়)[৪]

মহিলাঃ ১,৩১,০৫৭ জন(প্রায়)[৪]

মোট ভোটার: ১,৭২,০৫৬ জন[৫]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

  • শিক্ষার হার : ৩৫.০৭% [৬]
    • পুরুষ : ৪০.০৪%
    • মহিলা : ৩০.০৮%
  • সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়: ১৯৬টি[২]
  • বে-সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়: ১০৪টি
  • জুনিয়র বিদ্যালয়: ১৩টি
  • উচ্চ বিদ্যালয়(সহশিক্ষা): ৩৩টি
  • উচ্চ বিদ্যালয়(বালিকা): ১৯টি
  • উচ্চ বিদ্যালয়(বালক): ২টি
  • এবতেদায়ী মাদ্রাসা: ৬৮টি
  • দাখিল মাদ্রাসা: ৩৮ টি
  • আলিম মাদ্রাসা: ৫টি
  • ফাজিল মাদ্রাসা: ১টি
  • কলেজ (শিক্ষা): ৬টি
  • কলেজ (বালিকা): ১টি
  • কারিগরী কলেজ(সহশিক্ষা): ২টি
  • কারিগরী কলেজ মহিলা(সহশিক্ষা): ১টি


বাজার[সম্পাদনা]

হাটবাজারের সংখ্যা: ৩৬টি[৭]

বেশ কিছু বড় ও লোকসমাগম্পুর্ণ হাট উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নিয়মিতভাবে বসে থাকে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্যঃ

  • সাদুল্লাপুর হাটবাজার
  • গোপালপুর বাজার(চকশালাইপুর মাদ্রাসাবাজার)
  • নিয়ামত নগর ( লাল বাজার )
  • গোলাম মন্ডলে রহাট
  • মহিষবান্দি বাজার
  • নলডাঙ্গা হাটবাজার
  • কান্তনগর বাজার
  • নলডাঙ্গা কাঁচারী বাজার
  • নাজবাড়ী বাজার
  • মীরপুর হাটবাজা
  • ঘেগার বাজার
  • ধাপেরহাট হাটবাজার
  • বকসীগঞ্জ বাজার
  • মহিপুর বাজার
  • পচার বাজার
  • কামারপাড়া হাটবাজার
  • ঢোল ভাঙ্গা হাটবাজার
  • খোর্দ্দকোমরপুর বাজার
  • ইদ্রাকপুর বাজার
  • মাদারহাট
  • আলিনার বাজার।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি[সম্পাদনা]

  1. আবু হোসেন সরকার - রাজনীতিবিদ;
  2. তুলসী লাহিড়ী - সঙ্গীতজ্ঞ;
  3. মুক্তিহরণ সরকার - সাহিত্যিক ও সাংবাদিক;
  4. এজাজুল ইসলাম - অভিনেতা।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

  • নলডাঙ্গা জমিদার বাড়ি, সাদুল্যাপুর
  • পীরের হাট মাজার
  • শাহজামাল চৌধুরী এর মাজার
  • জামালপুর শাহী মসজিদ, সাদুল্যাপুর
  • পেরিমাধব জমিদার বাড়ি, কামারপাড়া, সাদুল্যাপুর
  • চতরা বিল
  • খেরুয়ার দিঘী, পাতিলাকুড়া, সাদুল্যাপুর
  • পাকুড়িয়ার বিল, সাদুল্যাপুর (ভাতগ্রামে অবস্থিত, যা গাইবান্ধা জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় বিল)
  • ঘেগার বাজার মাজার, সাদুল্যাপুর

নদ নদী[সম্পাদনা]

ঘাঘট সাদুল্লাপুরের একমাত্র নদী

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

  • উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র: ১টি (৫০ শয্যা বিশিষ্ট)[২]
  • স্বাস্থ্য উপকেন্দ্র: ৬টি
  • পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র: ১০টি
  • কমিউনিটি ক্লিনিক: ১০টি

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "এক নজরে সাদুল্লাপুর"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  2. http://sadullapur.gaibandha.gov.bd
  3. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৪ 
  4. ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী
  5. বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন অফিস
  6. (২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী)
  7. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]