বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন

স্থানাঙ্ক: ২৩°৩১.৫′ উত্তর ৯০°৫৩.৫′ পূর্ব / ২৩.৫২৫০° উত্তর ৯০.৮৯১৭° পূর্ব / 23.5250; 90.8917
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাবুটিপাড়া
ইউনিয়ন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg ২১নং বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ
বাবুটিপাড়া চট্টগ্রাম বিভাগ-এ অবস্থিত
বাবুটিপাড়া
বাবুটিপাড়া
বাবুটিপাড়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বাবুটিপাড়া
বাবুটিপাড়া
বাংলাদেশে বাবুটিপাড়া ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩১.৫′ উত্তর ৯০°৫৩.৫′ পূর্ব / ২৩.৫২৫০° উত্তর ৯০.৮৯১৭° পূর্ব / 23.5250; 90.8917
দেশবাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাকুমিল্লা জেলা
উপজেলামুরাদনগর উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৫৪০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

বাবুটিপাড়া বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার অন্তর্গত মুরাদনগর উপজেলার একটি ইউনিয়ন

আয়তন ১৪ কিলোমিটার[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা ২৩ হাজার[সম্পাদনা]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন পূর্বে ২১নং পাহাড়পুর দক্ষিণ ইউনিয়ন নামে পরিচিত ছিল।এই গ্রামের নামকরন নিয়ে অনেক কথা শুনা যায়। পাকিস্তান শাসনামলে এই গ্রামে প্রচুর হিন্দু সম্প্রদায় বাস করতেন। তাদের মধ্যে জাহাপুরের বাবুরা অন্যতম। তখনকার সময় এই গ্রামের বেশির ভাগ এলাকা জুড়ে গাছ-গাছালি আর বন-বাদরে ভরা ছিল। সেই থেকে এই গ্রামের নাম হয় বাবডি আরা । এরপর বাবুরা চলে গেলে আস্তে আস্তে তা পরিনত হয় মুসলিম সম্প্রদায়ের এক মহল্লায় । যেখানে হিন্দু সম্প্রদায় ছাড়া আর কোন মানুষ ছিলনা আজ সেখানে একটি পরিবার ও নেই । পরে তা সংস্কার করে বাবুটিপাড়া হিসেবে নতুন নামে সৃষ্টি করে। এই পরিষদটি ৩৩ শতাংশ জায়গার উপর অবস্থিত। স্থাপিত ১৯৯২ খ্রি: । জমিদাতা বাবুটিপাড়া গ্রামেরই সন্তান জনাব মো: আকামত আলী ।

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

মুরাদনগর উপজেলার সর্ব-দক্ষিণে বাবুটিপাড়া ইউনিয়নের অবস্থান। এ ইউনিয়নের উত্তরে পাহাড়পুর ইউনিয়ন, পূর্বে দেবিদ্বার উপজেলার রাজামেহার ইউনিয়নভানী ইউনিয়ন, দক্ষিণে চান্দিনা উপজেলার বাতাঘাসী ইউনিয়ন এবং পশ্চিমে দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউনিয়ন অবস্থিত।

প্রশাসনিক কাঠামো[সম্পাদনা]

বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন মুরাদনগর উপজেলার আওতাধীন ২১নং ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম মুরাদনগর থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৫১নং নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লা-৩ এর অংশ।

শিক্ষা ব্যবস্থা বাবুটিপাড়া ইউনিয়নের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য মসজিদের প্রাতকালীন মক্তব, মাদ্রাসা ও মন্দির।এসব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান থেকে এলাকাবাসী ধর্মীয় জ্ঞানচর্চা করে থাকে। এছাড়াও রয়েছে বেশকিছু কিন্টারগার্ডেন, প্রাইমারি স্কুল, মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজ।[সম্পাদনা]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

  • জি.বি.ডি. আমির হামজা উচ্চ বিদ্যালয়
  • দৈয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়


যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

খাল ও নদী[সম্পাদনা]

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]