আলী ইবনে আবু তালিব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(আলী ইবন আবী তালিব থেকে পুনর্নির্দেশিত)
আলি ইবনে আবু তালিব
আলির সমাধি এই মসজিদে অবস্থিত
বিশ্বস্ত দলপতি
(আমির আল মুমিনিন)
রাজত্বকাল ৬৫৬–৬৬১[১]
পূর্ণ নাম আলি ইবনে আবু তালিব
উপাধি হাসানের পিতা (আরবি : আবু আল-হাসান)
ধূলিকণা/মাটির পিতা (আরবি : আবু তুরাব)
Murtadha ("একজন যিনি নির্বাচিত এবং সন্তুষ্ট")
আল্লাহর সিংহ (আরবি : আসাদ-ullah)
সিংহ (আরবি : হায়দার)[১]
প্রথম আলি
জন্ম (৫৯৮-১০-২৩)অক্টোবর ২৩, ৫৯৮,[২](৫৯৯-০৩-১৭)মার্চ ১৭, ৫৯৯ or (৬০০-০৩-১৭)মার্চ ১৭, ৬০০[১]
মক্কা[১]
মৃত্যু জানুয়ারি ২৮, ৬৬১(৬৬১-০১-২৮) (৬২ বছর)[৩][৪]
কুফা[১]
Buried ইমাম আলি মসজিদ, নাজাফ, ইরাক
পূর্বসূরী Uthman Ibn Affan (as Sunni Islam Caliph); Muhammad (as Shi'a Imam)
উত্তরসূরী হাসান[৫]
Wives ফাতিমা[১]
Fatima bint Hizam al-Qilabiyya ("Ummu l-Banin")
Offspring হাসান
Husayn
Zaynab
(See:[[Descendants of Ali ibn Abd Munāf]])
পিতা Abd Munāf ibn ‘Abd al-Muttalib
মাতা Fatima bint Asad

আলি ইবনে আবু তালিব (/ˈɑːli, ɑːˈl/;[৬]আরবি: علي بن أبي طالب‎; ৬০০৬৬১) ইসলামের চতুর্থ ও শেষ খলিফা। তিনি ছিলেন আবু তালিবের পুত্র। তার মাতার নাম ফাতিমা বিনতে আসাদ । আলি কোরায়েশ বংশে জন্মগ্রহণ করেন। শিশু বয়স থেকেই তিনি ইসলামের নবী মুহাম্মদের (সা.) সঙ্গে লালিত-পালিত হন। ইসলামের ইতিহাসে তিনি পুরুষদের মধ্যে সর্বপ্রথম যিনি নবী মুহাম্মদের সাথে নামাজ আদায় করতেন। বালকদের মধ্যে এবং পুরুষদের তিনি সর্ব প্রথম নবুয়তের ডাকে সাড়া দিয়ে মাত্র ১০ বছর বয়সে ইসলাম গ্রহণ করেন।[৭][৮][৯] তিনি ছিলেন একজন অকুতোভয় যোদ্ধা। বদর যুদ্ধে বিশেষ বীরত্বের জন্য মুহাম্মদ তাকে "জুলফিকার" নামক তরবারি উপহার দিয়েছিলেন। খাইবারের সুরক্ষিত কামুস দুর্গ জয় করলে মহানবী তাকে "আসাদুল্লাহ" বা আল্লাহর সিংহ উপাধি দেন। তিনি খুলাফায়ে রাশেদিন-এর একজন।

জন্ম ও বংশ পরিচয়[সম্পাদনা]

হয়রত আলি কুরায়িশ বংশে জন্মগ্রহণ করেন। এই বংশ পবিত্র কাবা শরিফের রক্ষক। এই বংশের সেরা শাখাটির নাম হচ্ছে হাশেমি। হযরত আলি এর মাতা ও পিতা উভয়েই হাশেমি ছিলেন। তাঁর পিতার নাম আবদু মুনাফ এবং মাতার নাম ফাতিমা বিনতে আসাদ। আরব দেশে পুত্রের নামের সাথে মিলিয়ে পিতার নাম ডাকা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ ১.২ ১.৩ ১.৪ ১.৫ Nasr, Seyyed Hossein"Ali"Encyclopædia Britannica Online। Encyclopædia Britannica, Inc.। সংগৃহীত ২০০৭-১০-১২ 
  2. Ahmed 2005, পৃ. 234
  3. Shad, Abdur Rahman. Ali Al-Murtaza. Kazi Publications; 1978 1st Edition. Mohiyuddin, Dr. Ata. Ali The Superman. Sh. Muhammad Ashraf Publishers; 1980 1st Edition. Lalljee, Yousuf N. Ali The Magnificent. Ansariyan Publications; Jan 1981 1st Edition.
  4. Sallaabee, Ali Muhammad। Ali ibn Abi Talib (volume 2)। পৃ: ৬২১। সংগৃহীত ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  5. Madelung 1997, পৃ. 311
  6. "Ali". Random House Webster's Unabridged Dictionary.
  7. Tabatabaei 1979, পৃ. 191
  8. Ashraf 2005, পৃ. 14
  9. Diana, Steigerwald। "Alī ibn Abu Talib"। Encyclopaedia of Islam and the Muslim world; vol.1। MacMillan। আইএসবিএন 978-0-02-865604-5 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী:
{{{পূর্বসূরী}}}
খলিফা
৬৫৬৬৬১
উত্তরসূরী:
{{{উত্তরসূরী}}}

বিষয়শ্রেণি : সাহাবা বিষয়শ্রেণি : ইসলামের খলিফা বিষয়শ্রেণি : ৭ম-শতাব্দীর খলিফা বিষয়শ্রেণি : মক্কার ব্যক্তি বিষয়শ্রেণি : আরব সেনাপতি বিষয়শ্রেণি : কুরাইশ বিষয়শ্রেণি : আরব ব্যক্তিত্ব বিষয়শ্রেণি : ৭ম-শতাব্দীর আরব ব্যক্তিত্ব