বিলাল ইবনে আল-হারিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বিলাল ইবনে আল-হারিস (মৃত্যু: ৬৮২) একজন সাহাবা ছিলেন। তার পুরো নাম হচ্ছে বিলাল ইবনে আল-হারিস ইবনে আসিম ইবনে সা'ঈদ ইবনে কুররাহ ইবনে খালাদাহ ইবনে তা'লাবাহ আবু আবদ আল-রহমান আল-মাজানি।

জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ৬২৭ সালে মুযায়না থেকে একজন প্রতিনিধি হিসেবে মুহাম্মাদের কাছে এসেছিলেন এবং ৬৩০ সালে মুসলমানদের মক্কা বিজয়ের দিন তিনি মুযায়না পতাকা বহন করেছিলেন। ইবনে আল-হারিস সম্পর্কে এটি সুনানে আবু দাউদে গ্রন্থে বর্ণিত আছে:

[মুহাম্মদ] বিলাল ইবনে হারিস আল-মুজানিকে আল-কাবালিয়্যাহ-এর খনিতে একজন জায়গীর হিসাবে নিয়োগ দিয়েছিল, তিনি খনির উপর এবং নিচ উভয় স্তরের কাজ দেখাশুনা করার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। ইবনে আন-নাদর আরও বলেছেন: "জারস ও ধাত আন-নুসুবও তার সাথে নিয়োজিত হয়েছিলেন।" সম্মত সংস্করণটি হচ্ছে: "এবং কুদসের (জমি) চাষের জন্য উপযুক্ত"। [মুহাম্মদ] বিলাল ইবনে আল-হারিসকে কোনও মুসলমানের অধিকারের জন্য নিয়োজিত করেননি। [মুহাম্মদ] তাকে একটি নথি লিখে পাঠিয়েছিলেন: "[মুহাম্মদ] বিলাল ইবনে আল-হারিস আল মুজানিকে এই কাজে নিয়োগ করেছিলেন। তিনি তাকে আল-কাবালিয়্যাহের খনির উপরের এবং নীচের দিকে কাজে নিয়োজিত করেছেনএবং কুদসে চাষের উপযোগী উভয়ই খনির দায়িত্বই তাকে দিয়েছিলেন। তিনি তাকে কোনও মুসলমানের অধিকার দেননি।"[১][২]

পরবর্তীতে তিনি বসরায় (বর্তমানে ইরাক) বসবাস করেন এবং খলিফা মুয়াবিয়ার প্রথম আমলের রাজত্বের শেষ দিনগুলোতে ৬৮২ সালে মৃত্যুবরণ করেছেন।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The narrator Abu Uways said: A similar tradition has been transmitted to me by Thawr ibn Zayd from Ikrimah on the authority of Abdullah ibn Abbas from [Muhammad]. Ibn an-Nadr added: Ubayy ibn Kab wrote it.
  2. Kitab al-Kharaj, Wal-Fai' wal-Imarah (Tribute, Spoils, and Rulership), Sunan Abu-Dawud, Book 19
  3. Asad al-Ghabah fi Ma'rifah as-Sahabah by 'Izz ad-Din ibn Muhammad, better known as Ibn al-Athir al-Jazari

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]