সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস
জন্মআনুমানিক ৫৯৫
মক্কা, আরব
মৃত্যুআনুমানিক ৬৭৪
মদিনা, আরব
আনুগত্য রাশিদুন খিলাফত
সার্ভিস/শাখা রাশিদুন সেনাবাহিনী
কার্যকাল৬৩৬-৬৪৪
পদমর্যাদাকমান্ডার
তিসফুনের গভর্নর (৬৩৭-৬৩৮)
বুসরার গভর্নর (৬৩৮-৬৪৪), (৬৪৫-৬৪৬)
নেতৃত্বসমূহমুসলিমদের পারস্য বিজয়
শাহনামার পাণ্ডুলিপিতে অঙ্কিত কাদিসিয়ার যুদ্ধের চিত্র। সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস রাশিদুন সেনাবাহিনীর নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (আরবি: سعد بن أبي وقاص‎‎) ছিলেন মুহাম্মদ (সা.) এর অন্যতম প্রধান সাহাবী। ১৭ বছর বয়সে তিনি ইসলাম গ্রহণ করে। তিনি ইসলাম গ্রহণকারীদের মধ্যে ১৭তম ব্যক্তি। ৬৩৬ সালে পারস্য বিজয়ের নেতৃত্ব ও শাসনের জন্য তিনি অধিক পরিচিত। ৬১৬ ও ৬৫১ সালে তাকে কূটনৈতিক দায়িত্ব দিয়ে চীন পাঠানো হয়েছিল। ধারণা করা হয় চীনে যাওয়ার সময় নৌ রুটে তিনি চট্টগ্রাম বন্দরে থেমেছেন এরং বাংলাকে ইসলামের সাথে পরিচয় করানোয় তার অবদান আছে। ধারণা করা হয়, ৬৪৮ খ্রিস্টাব্দে তিনি বাংলাদেশের লালমনিরহাটে একটি মসজিদ নির্মাণ করেন, যা স্থানীয়ভাবে আবু আক্কাস মসজিদ নামে পরিচিত।[১][২] চীনা মুসলিমদের মতে চীনের ক্যান্টন বন্দরে তার কবর আছে। অবশ্য আরবদের মতে তার কবর আরবে অবস্থিত।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Mahmood, Kajal Iftikhar Rashid (২০১২-১০-১৯)। সাড়ে তেরো শ বছর আগের মসজিদ [1350 Year-old Mosque]। Prothom Alo 
  2. "History and archaeology: Bangladesh's most undervalued assets?"deutschenews24.de। bdnews24.com। ২০১২-১২-২১। 

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Nafziger, George F. (২০০৩), Islam at war, Greenwood Publishing Group, পৃষ্ঠা 278, আইএসবিএন 0-275-98101-0, সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১০  অজানা প্যারামিটার |coauthors= উপেক্ষা করা হয়েছে (|author= ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে) (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]