পবা উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পবা
উপজেলা
পবা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
পবা
পবা
বাংলাদেশে পবা উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°২৬′৩০″ উত্তর ৮৮°৩৭′৪৬″ পূর্ব / ২৪.৪৪১৬৭° উত্তর ৮৮.৬২৯৪৪° পূর্ব / 24.44167; 88.62944স্থানাঙ্ক: ২৪°২৬′৩০″ উত্তর ৮৮°৩৭′৪৬″ পূর্ব / ২৪.৪৪১৬৭° উত্তর ৮৮.৬২৯৪৪° পূর্ব / 24.44167; 88.62944 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগরাজশাহী বিভাগ
জেলারাজশাহী জেলা
আয়তন
 • মোট২৮০.৪১ কিমি (১০৮.২৭ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০০১)[১]
 • মোট২,৬২,২৫১
 • জনঘনত্ব৯৪০/কিমি (২৪০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৪৩.৬২%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৫০ ৮১ ৭২
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

পবা বাংলাদেশের রাজশাহী জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

অবস্থান[সম্পাদনা]

আয়তন: ২৮০.৪২০ বর্গ কিঃ মিঃ (পৌরসভা সহ)। অবস্থান: ২৪°১৮´ থেকে ২৪°৩১´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮°২৮´ থেকে ৮৮°৪৩´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। পবা উপজেলার উত্তরে মোহনপুর উপজেলাতানোর উপজেলা, দক্ষিণে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য ও চারঘাট উপজেলা, পূর্বে পুঠিয়া উপজেলাদুর্গাপুর উপজেলা, পশ্চিমে গোদাগাড়ী উপজেলা

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

এই উপজেলার ইউনিয়নগুলো -

  1. দর্শনপাড়া ইউনিয়ন
  2. হুজুরিপাড়া ইউনিয়ন
  3. দামকুড়া ইউনিয়ন
  4. হরিপুর ইউনিয়ন, পবা
  5. হড়গ্রাম ইউনিয়ন
  6. হরিয়ান ইউনিয়ন
  7. বড়গাছি ইউনিয়ন
  8. পারিলা ইউনিয়ন

পবা উপজেলা[সম্পাদনা]

রাজশাহী জেলাধীন পবা উপজেলা ০৮ টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা সমন্বয়ে গঠিত যার মধ্যে "বড়গাছী ইউনিয়ন" অন্যতম । আয়তন ২৮০.৪২০ বর্গ কিঃ মিঃ। ১৯৮৩ সালের ১১ নভেম্বর পবাকে থানা হতে উপজেলায় উন্নীত করা হয়। পবা মৌজা হতে পবা উপজেলার নামকরণ হয়। পূর্বে পবা মৌজায় পবা থানা অবস্থিত ছিল। সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর পবা মৌজা সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত হয় এবং পবা থানার নামকরণ করা হয় শাহমখদুম থানা। কিন্তু পবা উপজেলার নামটি অপরিবর্তিত থেকে যায়। বর্তমানে পবা থানাটি পবা উপজেলার নওহাটা পৌরসভায় অবস্থিত। পবা উপজেলার উত্তরে মোহনপুর ও তানোর উপজেলা, দক্ষিণে চারঘাট উপজেলা ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, পূর্বে পুঠিয়া ও দুর্গাপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে গোদাগাড়ী উপজেলা । এটি রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সংলগ্ন একটি উপজেলা, সিটি কর্পোরেশনের চারিদিক ঘিরেই পবা উপজেলার অবস্থান। ২০১৯ সালে পবা থানাকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিস অধিনে আনা হয় । এখানে একটি বিমান বন্দর, একটি সুগার মিল, একটি জুটমিল, একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র, আটটি বৃহৎ কোল্ড স্টোরেজ (যার মধ্যে অন্যতম মাধবপুরে অবস্থিত "রাজ কোল্ড স্টোরেজ"), এখানে প্রতিষ্ঠিত "রাজ কোল্ড স্টোরজ", বর্তমান এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বড় আলুর কোল্ড স্টোরজ । একটি সরকারী শিশু পরিবার ও একটি সেফ হোম রয়েছে।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

এখানে প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ডিগ্রি কলেজ, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক প্রতিষ্ঠান অবস্থিত । যেমন শাহ মখদুম মেডিকেল কলেজ,কবি কাজী নজরুল ইসলাম ডিগ্রী কলেজ, নওহাটা সরকারী ডিগ্রী কলেজ, নওহাটা মহিলা কলেজ, খড় খড়ী উচ্চ বিদ্যালয়,খড় খড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বড়গাছী স্কুল এন্ড কলেজ, দারূসা কলেজ, ভেড়াপড়া আদর্শ কলেজ টেকনিক্যাল কলেজ, বি এম কলেজ, কাটাখলি আদর্শ ডিগ্রী কলেজ, নওহাটা মডেল হাই স্কুল, বড়গাছী হাই স্কুল, মাধবপুর হাই স্কুল প্রভতি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

পবা উপজেলার বেশির ভাগ মানুষের মূল পেশা আলু, ধান, আখ আরও অন্যান্য ফসল চাষ করা। এই উপজেলায় অনান্য ফসলের তুলনায় পাট ও আলু চাষ বেশি হওয়ায় ৮টি কোল্ড স্টোরেজ ও আমান পাট কল গড়ে উঠেছে । রাজশাহী সুগার মিলস এই উপজেলার মধ্যেই অবস্থিত।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

এই উপজেলায় মধ্যযুগীয় কবি শুকুর মাহমুদ জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর নিবাসভূমি পবা উপজেলার সিন্দুর কুসুম্বী (নামোপাড়া) গ্রামে।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "একনজরে পবা উপজেলা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]