কেভিন স্পেসি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
কেভিন স্পেসি
KevinSpaceyApr09.jpg
২০০৯ সালে কেভিন স্পেসি
স্থানীয় নাম Kevin Spacey
জন্ম কেভিন স্পেসি ফাউলার
(১৯৫৯-০৭-২৬) ২৬ জুলাই ১৯৫৯ (বয়স ৫৮)
সাউথ অরেঞ্জ, নিউ জার্সি, যুক্তরাষ্ট্র
বাসস্থান লন্ডন, যুক্তরাজ্য
পেশা অভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার, গায়ক
কার্যকাল ১৯৮১-বর্তমান
উল্লেখযোগ্য কাজ দ্য ইউজুয়াল সাসপেক্ট্‌স
অ্যামেরিকান বিউটি
পুরস্কার পূর্ণ তালিকা
ওয়েবসাইট kevinspacey.com

কেভিন স্পেসি ফাউলার (জন্ম ২৫ জুলাই, ১৯৫৯) হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার, গায়ক। তিনি মঞ্চ অভিনেতা হিসেবে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। ১৯৮০-এর দশকে তিনি চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। ১৯৯০-এর দশকে তিনি জনপ্রিয়তা ও সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করেন অপরাধ-নাট্যধর্মী দ্য ইউজুয়াল সাসপেক্ট্‌স (১৯৯৫) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। পরে ১৯৯৯ সালে মধ্য-বয়সী সংকটপূর্ণ নাট্য চলচ্চিত্র অ্যামেরিকান বিউটি-এ অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।

তার অন্যান্য চলচ্চিত্রের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল কমেডি-নাট্যধর্মী সুইমিং উইথ শার্কস্‌ (১৯৯৪), মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলারধর্মী সেভেন (১৯৯৫), অপরাধ-নাট্যধর্মী এল.এ. কনফিডেনশিয়াল (১৯৯৭), নাট্যধর্মী পে ইট ফরওয়ার্ড (২০০০), বিজ্ঞান কল্পকাহিনীমূলক কে-প্যাক্স (২০০১) এবং সুপারহিরো চলচ্চিত্র সুপারম্যান রিটার্নস (২০০৬)।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

কেভিন স্পেসি ১৯৫৯ সালের ২৫ জুলাই সাউথ অরেঞ্জ, নিউ জার্সিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার মা ক্যাথলিন অ্যান (নুটসন, ৫ ডিসেম্বর, ১৯৩১ - ১৯ মার্চ, ২০০৩) ছিলেন একজন সচিব এবং পিতা থমাস জিওফ্রে ফাউলার (৪ জুন, ১৯২৪ - ২৪ ডিসেম্বর, ১৯৯২) ছিলেন একজন টেকনিক্যাল লেখক ও ডাটা কনসালট্যান্ট। তিন ভাইবোনের মধ্যে স্পেসি ছোট, তার বড় বোন জুলি এবং ভাই র‍্যান্ডি। তার পূর্বপুরুষগণ ইংরেজ, সুয়েডীয়ওয়েলশ ছিলেন। স্পেসির যখন চার বছর বয়স তখন তার পরিবার দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার চলে যায়। সেখানে তিনি নর্থরিজ মিলিটারি একাডেমি, কানোগা পার্ক হাই স্কুল, ও চ্যাট্‌সওর্থ হাই স্কুলে পড়াশুনা করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৮০-এর দশক: মঞ্চে অভিনয়[সম্পাদনা]

স্পেসির প্রথম পেশাদারী মঞ্চ অভিনয় করেন ১৯৮১ সালে নিউ ইয়র্ক শেকসপিয়র উৎসব-এ ষষ্ঠ হেনরি, পার্ট ১ মঞ্চনাটকে একজন বর্শা বাহক হিসেবে।[২] পরের বছর তিনি প্রথমবারের মত ব্রডওয়ে থিয়েটার-এর হয়ে হেনরিক ইবসেন নির্দেশিত গোস্ট্‌স নাটকে অসওয়াল্ড চরিত্রে অভিনয় করেন। পরে তিনি মলিয়েঁ নির্দেশিত দ্য মিসান্‌থ্রপি নাটকে ফিলিন্তে চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৮৪ সালে তিনি ডেভিড রেব নির্দেশিত হার্লিবার্লি নাটকে অভিনয় করেন। পরে আন্তন চেখভের দ্য সিগাল নাটকে অভিনয় করেন। ১৯৮৬ সালে তিনি নিউ জার্সি ডিনার থিয়েটারের নির্মিত স্লেউথ নাটকে অভিনয় করেন।[৩]

মঞ্চ অভিনতা হিসেবে তার সুখ্যাতি শুরু হয় ১৯৮৬ সালে জোনাথন মিলার নির্দেশিত ইউজিন ও'নেইলের লং ডেজ জার্নি ইনটু নাইট নাটকে জ্যাক লেমন, পিটার গ্যালাগারবেথেল লেস্‌লির সাথে অভিনয় করেন। লেমন তার উপদেষ্টা ছিলেন। স্পেসি প্রথম টেলিভিশনে অভিনয় শুরু করেন ক্রাইম স্টোরি ধারাবাহিকের দ্বিতীয় মৌসুমের উদ্বোধনী প্রদর্শনী থেকে। তিনি এই ধারাবাহিকে মার্কিন সিনেটর চরিত্রে অভিনয় করেন। পরে তিনি চলচ্চিত্রে আগ্রহী হলে মঞ্চ সম্প্রদায়ের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন।

১৯৯০-এর দশক: জনপ্রিয়তা ও প্রশংসা অর্জন[সম্পাদনা]

১৯৯১ সালে স্পেসি ব্রডওয়ে থিয়েটারের নেইল সিমনের লস্ট ইন ইয়ঙ্কার্স নাটকে তার আঙ্কেল লুই চরিত্রের জন্য টনি পুরস্কার লাভ করেন। এই পুরস্কার পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত স্পেসির পিতা স্পেসি অভিনয়ে ভালো করবেন এ বিষয়ে সন্দিহান ছিলেন। ১৯৯২ সালে তিনি গ্লেনগারি গ্লেন রস ছবিতে পরশ্রীকাতর অফিস ম্যানেজার চরিত্রে এবং ১৯৯৪ সালে সুইমিং উইথ শার্কস্‌ ছবিতে বিদ্বেষপরায়ণ স্টুডিও মালিক চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯৫ সালে তিনি অপরাধ-নাট্যধর্মী দ্য ইউজুয়াল সাসপেক্ট্‌স ছবিতে দুর্বোধ্য অপরাধী ভার্বাল ক্লিন্ট চরিত্রে, আউটব্রেক ছবিতে মেজর কেসি শুলার চরিত্রে, এবং মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলারধর্মী সেভেন ছবিতে সিরিয়াল কিলার জন ডো চরিত্রে অভিনয় করেন। দ্য ইউজুয়াল সাসপেক্ট্‌স চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন এবং সেভেন, দ্য ইউজুয়াল সাসপেক্ট্‌সআউটব্রেক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি সেরা পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে সোসাইটি অফ টেক্সাস ফিল্ম ক্রিটিকস পুরস্কার লাভ করেন।[৪]

১৯৯৬ সালে স্পেসি অ্যা টাইম টু কিল ছবিতে ডিস্ট্রিক্ট এটর্নি চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯৭ সালে আলবিনো অ্যালিগেটর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্র পরিচালনায় অভিষেক হয়। সে বছর তিনি অপরাধ-নাট্যধর্মী এল.এ. কনফিডেনশিয়াল চলচ্চিত্রে গোয়েন্দা অফিসার জ্যাক ভিন্সেস চরিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি সেরা অভিনেতা হিসেবে বাফটা পুরস্কার, এবং সেরা পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে শিকাগো ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার, লস অ্যাঞ্জেলেস ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার, ও ন্যাশনাল সোসাইটি অফ ফিল্ম ক্রিটিকস পুরস্কার এর মনোনয়ন লাভ করেন। পরের বছর তিনি দ্য নেগোশিয়েটর, হার্লিবার্লি ছবিতে অভিনয় করেন, এবং পিক্সার অ্যানিমেশন স্টুডিওজের অ্যা বাগ্‌স লাইফ ছবিতে কণ্ঠ দেন।[৩] স্পেসি ১৯৯৯ সালের অ্যামেরিকান বিউটি-এ একজন ভগ্নোদ্যম পিতার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য সারাবিশ্বে সমাদৃত হন এবং তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। একই বছর তিনি হলিউড ওয়াক অফ ফেম তারকা হিসেবে সম্মানিত হন। এছাড়া তিনি দ্য আইসম্যান কমেথ-এ অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য লরেন্স অলিভিয়ার পুরস্কার লাভ করেন এবং টনি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

২০০০-এর দশক[সম্পাদনা]

স্পেসি ২০০০ সালে নাট্যধর্মী পে ইট ফরওয়ার্ড ছবিতে একজন গ্রাজুয়েশন স্কুল শিক্ষক হিসেবে অভিনয় করেন এবং পরের বছর বিজ্ঞান কল্পকাহিনীমূলক কে-প্যাক্স ছবিতে একজন মানসিক রোগী চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০০১ সালে তিনি ও জুডি ডেঞ্চ মিলে ইউনিট ফর দ্য ফিউচার গালা উপস্থাপনা করেন। এই অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য ছিল ৯/১১র নিপীড়িতদের জন্য তহবিল সংগ্রহ। ২০০৪ সালে তিনি বিয়ন্ড দ্য সী চলচ্চিত্রে গায়ক ববি ডারিনের ভূমিকায় অভিনয় করেন এবং এই চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দেন। তিনি তার গানের জন্য প্রশংসা লাভ করেন এবং গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[৫]

২০১০-বর্তমান[সম্পাদনা]

২০১১ সালে স্পেসি নেটফ্লিক্সের হাউজ অফ কার্ডস্‌ ধারাবাহিকে ফ্রাঙ্ক আন্ডারউড চরিত্রে অভিনয় করেন। এই ধারাবাহিকের জন্য তিনি ২০১৩ সালে ৬৫তম প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার-এ ধারাবাহিক নাটকে সেরা প্রধান চরিত্রে অভিনেতার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি প্রথম ওয়েব টেলিভিশন অভিনেতার জন্য প্রাইমটাইম এমির মনোনয়ন লাভ করেন। এছাড়া তিনি ২০১৪ সালে তিনি টেলিভিশন ধারাবাহিক নাটকের সেরা অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন[৬] এবং ধারাবাহিক নাটকে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার-এর মনোনয়ন লাভ করেন।[৭] একই বছর স্পেসি ব্ল্যাক কমেডি চলচ্চিত্র হরিবল বসেস-এ অভিনয় করেন, ছবিটি বক্স অফিসে সফলতা অর্জন করে।[৮] তার নির্বাহী প্রযোজনায় জীবনীমূলক থ্রিলার চলচ্চিত্র ক্যাপ্টেন ফিলিপস (২০১৩) শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করে।[৯]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

ডিস্কোগ্রাফি[সম্পাদনা]

অ্যালবাম[সম্পাদনা]

একক গান[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "A CONVERSATION WITH KEVIN SPACEY"Cinequest। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  2. "Henry IV Part One"kevinspacey। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  3. Cerasaro, Pat (২ মে, ২০১৪)। "FLASH FRIDAY: A Kevin Spacey Cornucopia - Stage, Big Screen, Small Screen & NOW"Broadway World। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  4. "The Society of Texas Film Critics 1995 Awards"The Austin Chronicle। ৫ জানুয়ারি, ১৯৯৬। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  5. Boyar, Jay (২৯ ডিসেম্বর, ২০০৪)। "A Bit Of Darin Lives In Spacey"Orlando Sentinel। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  6. "List: Who won Golden Globe awards"ইউএসএ টুডে। ১১ জানুয়ারি, ২০১৫। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  7. Leeds, Sarene (২৬ জানুয়ারি, ২০১৫)। "SAG Awards: The Complete 2015 Winners List"দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  8. "Horrible Bosses"বক্স অফিস মোজো। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  9. Nordyke, Kimberly (২ মার্চ, ২০১৪)। "Oscars 2014 Winners: The Complete List"হলিউড রিপোর্টার। সংগৃহীত ৩১ মার্চ, ২০১৭ 
  10. Tamblyn, Robin (2010).। Looking Closer: Kevin Spacey, the First 50 Years। IUniverse। পৃ: ১৩১। আইএসবিএন 1450204384 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]