বিষয়বস্তুতে চলুন

বার্ল আইভস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বার্ল আইভস
Burl Ives
ক্যাট অন আ হট টিন রুফ ছবিতে আইভস
জন্ম
বার্ল আইকল আইভানহো আইভস

(1909-06-14) ১৪ জুন ১৯০৯ (বয়স ১১৪)
মৃত্যু১৪ এপ্রিল ১৯৯৫(1995-04-14) (বয়স ৮৫)
অ্যানাকর্টেস, ওয়াশিংটন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
সমাধিমাউন্ড সিমেট্রি, হান্ট সিটি, ইলিনয়
জাতীয়তামার্কিন
মাতৃশিক্ষায়তনইস্টার্ন ইলিনয় বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেতা, গায়ক, লেখক
কর্মজীবন১৯৩৫-১৯৯৩
দাম্পত্য সঙ্গীহেলেন পিক এরলিচ (বি. ১৯৪৫; বিচ্ছেদ. ১৯৭১)
ডরোথি কোস্টার পল (বি. ১৯৭১–১৯৯৫)
সন্তান

বার্ল আইকল আইভানহো আইভস (ইংরেজি: Burl Icle Ivanhoe Ives; ১৪ জুন ১৯০৯ - ১৪ এপ্রিল ১৯৯৫)[১] ছিলেন একজন মার্কিন গায়ক ও অভিনেতা। তিনি একজন ইটিনার‍্যান্ট গায়ক ও বেঞ্জোবাদক হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি দ্য ওয়েফারিং স্ট্রেঞ্জার বেতার অনুষ্ঠান দিয়ে ঐতিহ্যবাহী লোক গানগুলোকে জনপ্রিয় করে তোলেন। ১৯৪২ সালে তিনি আরভিং বার্লিনের দিজ ইজ দি আর্মি-তে অভিনয় করেন এবং সিবিএস বেতারের প্রধান তারকা হয়ে ওঠেন।

আইভস ১৯৪০ ও ১৯৫০-এর দশকে চলচ্চিত্রে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। এই সময়ে তিনি সো ডিয়ার টু মাই হার্ট (১৯৪৯), ক্যাট অন আ হট টিন রুফ (১৯৫৮) ও দ্য বিগ কান্ট্রি (১৯৫৮) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি লাভ করেন। দ্য বিগ কান্ট্রি ছবিতে রুফাস হ্যানাসি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া ১৯৬০-এর দশকে তিনি কান্ট্রি সঙ্গীতে সফলতা অর্জন করেন এবং "আ লিটল বিটি টিয়ার" ও "ফানি ওয়ে অব লাফিং" গানের রেকর্ড করেন, যা হিট তকমা লাভ করে।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

আইভস ১৯০৯ সালের ১৪ই জুন ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের জ্যাসপার কাউন্টির হান্ট সিটিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা লেভি "ফ্র্যাংক" আইভস (১৮৮০-১৯৪৭) এবং মাতা কর্ডেলিয়া "ডেলি" (জন্ম: হোয়াইট; ১৮৮২-১৯৫৪)। তার ছয় ভাইবোন ছিল, তারা হলেন অড্রি, আর্টি, ক্লেরেন্স, আর্গোলা, লিলবার্ন এবং নর্মা। তার পিতা প্রথমে কৃষক ছিলেন ও পরে ঠিকাদার হন। একদিন আইভস তার মায়ের সাথে বাগানে গান গাইছিলেন, তার চাচা সেটা শুনেন। তিনি তাকে হান্ট সিটিতে বয়োজ্যেষ্ঠ সেনাদের পুনর্মিলনীতে গান গাইতে নিয়ে যান। বালক আইভস "বারবারা অ্যালেন" লোক গান পরিবেশন করেন এবং তার চাচা ও শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

গিটার হাতে বার্ল আইভস (১৯৫৫ সালে কার্ল ভ্যানের তোলা ছবি)

১৭শ শতাব্দীর ইংরেজি গান "ল্যাভেন্ডার্স ব্লু"-এর তার গাওয়া সংস্করণ তার প্রথম হিট গান।[৩] এটি তার অভিনীত সো ডিয়ার টু মাই হার্ট (১৯৪৯)-এ ব্যবহৃত হয় এবং শ্রেষ্ঠ মৌলিক গান বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করে।[৪]

আইভস ১৯৫০-এর দশকে ইস্ট অব ইডেন (১৯৫৫)-এ ক্যালিফোর্নিয়ার স্যালিনাসের স্যাম দ্য শেরিফ, ক্যাট অন আ হট টিন রুফ (১৯৫৮)-এ বিগ ড্যাডি, ডিজায়ার আন্ডার দ্য এমস (১৯৫৮), উইন্ড অ্যাক্রস দি এভারগ্লেডস (১৯৫৮) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনি দ্য বিগ কান্ট্রি চলচ্চিত্রে রুফাস হ্যানাসি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন।[৫][৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. শিপম্যান, ডেভিড (১৫ এপ্রিল ১৯৯৫)। "Obituary: Burl Ives"দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০১৮ 
  2. আইভস, বার্ল (১৯৪৮)। Wayfaring Stranger। নিউ ইয়র্ক: হুইটলসি হাউজ, পৃষ্ঠা ১৫-২০।
  3. "Burl Ives With Captain Stubby & The Buccaneers* – Lavender Blue (Dilly Dilly) / Billy Boy " - ডিস্কোগ্‌স (প্রকাশের তালিকা)
  4. "The 22nd Academy Awards (1950) Nominees and Winners"অস্কার। একাডেমি অফ মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস (এএমপিএএস)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০২২ 
  5. "The 31st Academy Awards (1959) Nominees and Winners"অস্কার। একাডেমি অভ মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস (এএমপিএএস)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০২২ 
  6. "Winners & Nominees 1959"গোল্ডেন গ্লোবহলিউড ফরেন প্রেস অ্যাসোসিয়েশন। ১০ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]